দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী
দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী.jpg
জন্ম(১৮৮৯-১১-০৫)৫ নভেম্বর ১৮৮৯
সিলেট
মৃত্যু১৪ আগস্ট ১৯৬৪(1964-08-14) (বয়স ৭৪)
জাতীয়তা বাংলাদেশ
পেশাকবি, রাজনীতি

দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী (জন্ম: ৫ নভেম্বর, ১৮৮৯ - মৃত্যু:১৪ই অগাস্ট ১৯৬৪ ) হলেন একজন রাজনীতিবিদ , মরমীকবি, কবি ও লেখক, যিনি কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সভাপতি ছিলেন।[১] তিনি বিখ্যাত মরমী কবি হাছন রাজার পুত্র।

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী ১৮৮৯খ্রি ৫ নভেম্বর সিলেট জেলার বিশ্বনাথ থানার ঐতিহ্যবাহী রামপাশা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।[২] পিতা জগত বিখ্যাত মরমি কবি দেওয়ান হাছন রাজা চৌধুরী। মাতার নাম মোছাম্মাৎ ছজিদা বেগম বা সাজেদা ।দেওয়ান হাছন রাজা ছিলেন জমিদারী নিয়ে ব্যস্ত ।তার বিশাল জমিদারী,পাইক-পেয়াদা ইত্যাদি সামলাতে গিয়ে পুত্র একলিমুর রাজার প্রতি আলাদাভাবে নজর দেওয়ার সময় তার খুব একটা ছিল না সে জন্য একলিমুর রাজার বাল্যশিক্ষা দেরীতে শুরু হয়েছিল তার আবার নানান কারণ ও ছিল কারণ হলো অভিজাত শিক্ষক ছাড়া ছেলেকে পড়াবেন না ।পরে মনটু বাবু নামক ব্রাহ্মণ শিক্ষকের অধীনে একলিমুর রাজার হাতে খড়ি হয় ।প্রথম দিন শিক্ষক কে ১০১ টাকা নজরানা দেওয়া হয় ।এই শিক্ষকের নিকট একলিমুর রাজা পড়েন প্রায় বছর খানেক তখন তার বয়স ৮-৯ হবে এর পর তাকে সুনামগঞ্জ জুবলী হাই স্কুলে ভর্তি করা হয় ।সেখানে

কিছুদিন অতিবাহিত করার পর অধিকতর উন্নত পরিবেশে শিক্ষা অর্জনের জন্য তাকে ভর্তি করা হয় সিলেট সরকারী হাই স্কুলে ।সেখানে কিছুদিন অধ্যায়নের পর তাকে ঢাকার একটি স্কুলে ভর্তি করানো হয় অতঃপর কলিকাতার একটি বিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালে তার শিক্ষা জীবনের ইতি ঘঠে এবং সংসার ও জমিদারী এবং ধর্ম পালনের জন্য বাড়ী ফিরে আসেন।

রাজনীতি[সম্পাদনা]

১৯২৯ সালে ইংরেজ সরকার নিযুক্ত আসামের তৎকালিন সরকার প্রধান লর্ড আর উইন একলিমুর রাজাকে খান বাহাদুর উপাধি দেন ।তিনি ১৯২৬ থেকে ১৯২৮ সাল পর্যন্ত সিলেট লোকাল বোডের মেম্বার ছিলেন ।তিনি দীর্ঘ দিন অনারারী ম্যাজিসেট্রট ,Mass literary Campaanigne ও ঋন শালিশী বোডের অনারারী পরিচালক এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেলো ছিলেন । দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী ১৯৩৭ সাল হতে ১৯৪৬ সাল পর্যন্ত আসাম প্রাদেশিক পরিষদের মেম্বার ছিলেন ।তিনি যখন আসাম প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য তখন সাদ উল্লা মন্ত্রী সভার Ministrial Party-চেয়ারম্যান ।

কাব্য সাধনা[সম্পাদনা]

বাংলা কবিতা ও গানের জগতে একটি উজ্জল নাম দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী ।এককালে তার কবিতা স্কুলেপাঠ্য ছিল ।এখন ও তার গান পল্লী অঞ্চলে সাধারণ মানুষের কনেঠ গীত হয় ।তিনি প্রায় তিনশ'কবিতা এবং আড়াইশ'গান রচনা করেন ।

দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী একটি বিখ্যাত গান -
আমার অন্তরে বৈরাগীর লাউ বাজে
মনের মাঝে কে বিরাজে মন না লাগে কাজে ।।
ধরতে গেলে দেয়না ধরা করে লুকোচুরি ।
কেমন করে অধরারে হৃদের মাঝে ধরি ।।
দেখিতে পারি না তারে বাজে নূপুর পায় ।
অন্তরে অন্তর চোরা কেমনে লুকায় ।।
নিরবধি বাজে লাউ একলিম রাজা বলে ।
আমি বুঝিতে পারিনা লাউ বাজে কলে ।।
উক্ত গানটি সুর করেছিলেন আরেক লোকগানের জগৎ বিখ্যাত শিল্পী নির্মলেন্দু চৌধুরী ।এ গানটি গেয়ে শিল্পী ভারত বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেন ।এ ছাড়া মোস্তাফা জামান আব্বাসী কণ্ঠে বেশ জনপ্রিয়তা পায় ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদঃ গৌরবের ৭৫ বছর"www.london.eidesh.com। লন্ডন এইদেশ। ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। ১২ মে ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ মার্চ ২০১৭ 
  2. আলী, মোহাম্মদ ইলিয়াস (ফেব্রুয়ারি ২০১৪)। দেওয়ান একলিমুর রাজা জীবন ও কাব্য (প্রথম সংস্করণ)। ঢাকা: উৎস প্রকাশন।