তুর্কি কুর্দিস্তান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

তুর্কি কুর্দিস্তান ( ইংরেজি ভাষায়: Turkey Kurdistan; অর্থ “তুর্কি কুর্দিদের দেশ”[১]), বলতে তুরস্কের দুটি প্রশাসনিক অঞ্চল পূর্ব আনাতোলিয়া ও পশ্চিম আনাতোলিয়া অঞ্চলদ্বয়কে বুঝায়। মধ্যপ্রাচ্যে অবস্থিত ভৌগোলিক ও সাংস্কৃতিকভাবে একতাবদ্ধ একটি অঞ্চল কুর্দিস্তানের তুরস্ক নিয়ন্ত্রাধীন অংশ। এখানকার সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণ কুর্দি জাতি যারা কুর্দি ভাষায় কথা বলে ও কুর্দি সংস্কৃতি লালন করে।

সেলজুক তুর্কি সুলতান সাঞ্জার সম্ভবত সর্বপ্রথম ১২শ শতকে কুর্দিস্তান নামটি সরকারীভাবে ব্যবহার করেন। তিনি সেসময় কুর্দিদের আবাসভূমি বিজয় করেছিলেন এবং কুর্দিস্তান নামের একটি প্রদেশ গঠন করেছিলেন। এর রাজধানী ছিল বাহার শহর, যা বর্তমান ইরানি হামাদান শহরের কাছেই অবস্থিত।[২]

আধুনিককালে কুর্দিস্তান চারভাগে বিভক্ত। তুর্কি কুর্দিস্তান ছাড়াও অপর তিনটি হচ্ছে ইরাকের উত্তরের কিছু অংশ (ইরাকী কুর্দিস্তান), দক্ষিণ-পশ্চিম ইরান (ইরানি কুর্দিস্তান) এবং উত্তর সিরিয়ার (সিরীয় কুর্দিস্তান)।

ভৌগলিকভাবে কুর্দিস্তান অঞ্চলটি জগ্রোস পর্বমালার উত্তর-পশ্চিম অংশ এবং তোরোস পর্বতমালার পূর্বাংশ নিয়ে গঠিত। [৩] এছাড়া আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার সামান্য কিছু এলাকাকেও কুর্দিস্তানের অন্তর্গত গণ্য করা হয়।

কুর্দি জাতি[সম্পাদনা]

জাতি হিসেবে কুর্দিদের রয়েছে আলাদা ভাষা এবং সংস্কৃতি। জাতি হিসেবে তাদের খুব সহজেই পার্শ্ববর্তী তুর্কি ও আরবদের থেকে আলাদা করা যায়। তবে ইরানিদের সাথে তাদের সংস্কৃতিগত মিলের কারণে কুর্দিদের ইরানি মহাজাতির অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ইরানি মহাজাতির বাকি জাতিদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ইরানি (ফার্সি-ভাষী), আজারবাইজানি, তুর্কমেনি, বালুচ, পশতু, তাজিক, তালিশ, লুর, তাত, ওশেতিয় ইত্যাদি।

তুরস্কের মোট জনসংখ্যার প্রায় ২০% কুর্দি। ইরাকে ১৫%, ইরানে ১০% এবং সিরিয়ায় ৯% জনসংখ্যা কুর্দি। সংখ্যার হিসাবে তুরস্কে প্রায় ১ কোটি ৮০ লাখ থেকে ২ কোটি ৫০ লাখ, ইরানে ৬০ থেকে ৮০ লাখ, ইরাকে ৬০ থেকে ৭০ লাখ, সিরিয়ায় ২০ থেকে ২৫ লাখ।

কুর্দি জাতির ভাষা ‘কুর্দি ভাষা’। তবে এ ভাষায় পাঁচটি উপভাষা আছে। উপভাষারা বেশ পরিষ্কারভাবে বিচ্ছিন্ন। কুর্দির উপভাষাগুলো হচ্ছে- কুরমানজি, সোরানি, গোরানি, যাযাকি ও পেহলাওয়ানি। সিরিয় কুর্দিরা বেশিরভাগ ব্যবহার করেন কুরমানজি। ইরাকি কুর্দিরা ব্যবহার করেন কুরমানজি আর সোরানি। ইরানি কুর্দিরা ব্যবহার করেন যাযাকি বাদ দিয়ে বাকি উপভাষাগুলো। আর তুরস্কের কুর্দিরা ব্যবহার করেন পেহলাওয়ানি বাদ দিয়ে বাকি উপভাষাগুলো।

কুর্দিরা মূলত সুন্নি মুসলিম। সুন্নি মুসলিমরা সংখ্যায় প্রায় ৮০%। এছাড়া ১৫% কুর্দি শিয়া মুসলিম। আর বাদবাকি ৫% কুর্দি খ্রিস্টিয়ান, ইহুদি, ইয়াজিদি, ইয়ারসানি, মানদিয়ান, বাহাই, জরথুস্ত্র এবং নির্ধর্মী। জাতিগতভাবে কুর্দিরা ধর্মপ্রসঙ্গে ধর্মনিরপেক্ষতাবাদি এবং পরমতসহিষ্ণু। সুন্নি এবং শিয়া উভয় ভাগের মুসলিমদের মধ্যে সুফিবাদের ব্যাপক প্রভাব লক্ষণীয়।[৪]

স্বায়ত্বশাসন দাবি[সম্পাদনা]

তুরস্ক নিয়ন্ত্রাধীন কুর্দিস্তানের কুর্দিদের কিছু সংগঠন স্বায়ত্বশাসনের দাবি করছে। তবে রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে স্বায়ত্বশাসনেরর দাবি রাষ্ট্রদোহীতার সামিল। [৫]

দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে বিচ্ছিন্নতাবাদী কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) সঙ্গে দীর্ঘ ৩১ বছর লড়তে হয়েছে আঙ্কারাকে। তুরস্কের অভিযোগ, পিকেকের সঙ্গে সিরিয়ার কুর্দি সংগঠন কুর্দিশ পিপলস প্রটেকশন ইউনিটের (ওয়াইপিজি) ঘনিষ্ঠ যোগসাজশ রয়েছে। এ অঞ্চলে কুর্দিরা নিজস্ব শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে চায়।

কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টিকে (পিকেকে) সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে বিবেচনা করে তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সম্প্রতি তুর্কি বাহিনীর অভিযানে দুই শতাধিক কুর্দি বিদ্রোহী নিহত হয় বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী।

জাতিসত্তা ও ভাষা[সম্পাদনা]

তুরষ্ক নিয়ন্ত্রাধীন কুর্দিস্তান অঞ্চলে বিভিন্ন জাতিসত্তা মানুষ বাস করে এবং বিভিন্ন ভাষায় কথা বলে। এর মধ্যে কুর্দিরা সংখ্যাগরিষ্ঠ। ১৯৬৫ আদমশুমারী অনুসারে জাতিসত্তার হার।

মাতৃভাষা[৬] জনসংখ্যা a শতকরা
কুর্দি ১,১৪৯,১৬৮ ৬০.৮%
তুর্কি ৫৩৫,৮৮০ ২৮.৪%
আরবি ১২৪,৫৮৬ ৬.৬%
জাজাকি ৬০,৩২৬ ৩.২%
Other ১৯,৯৬৫ ১.১%
Total ১,৮৮৯,৯২৩ ১০০%

ধর্ম বিশ্বাস[সম্পাদনা]

তুরস্ক নিয়ন্ত্রাধীন কুর্দিস্তানে মুসলিমদের উভয় সম্প্রদায় (সুন্নি এবং শিয়া), ইয়াজিদি সম্পদায়, জরথুস্ট সম্পদায়ের লোক বাসকরে। তবে কুর্দিরা সুন্নি সংখ্যাগরিষ্ঠ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]