ডেটিং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ডেটিং হলো দুইজন মানুষের মধ্যে বিদ্যমান রোমান্টিক সম্পর্কের একটি অবস্থা, যখন তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়া বা ঘনিষ্ঠ সঙ্গী হওয়ার জন্য দেখা করে। এটি পূর্বরাগের একটি প্রকরণ, যা একটি প্রেমিক যুগল নিজেই অথবা অন্যদের সাথে সামাজিক ক্রিয়াকর্মের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত করে। ডেটিং এর ধরণ ও চর্চা এবং একে বর্ণনা করার ধরণ স্থান ও কাল অনুযায়ী পরিবর্তিত হয়। যদিও এর বিভিন্ন অর্থ করা হয়ে থাকে, তবে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও বহুল ব্যবহৃত অর্থ দ্বারা দুইজন মানুষের রোমান্টিক বা যৌন সামঞ্জস্যপূর্ণ আচরণকে বুঝানো হয়, যা তারা অন্যের সাথে করে থাকে। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে মানুষ টেলিফোন বা কম্পিউটারের মাধ্যমেও অন্য মানুষের সাথে সাক্ষাৎ করতে পারে।

ডেটিং কখনো কখনো দুই বা ততোধিক মানুষের মধ্যেও সংঘটিত হতে পারে, যদি তারা একে অন্যের সাথে রোমানটিক ও যৌন অনুভূতি বিনিময়ে একমত হয়। এই গোষ্ঠীভুক্ত মানুষদের মধ্যে নিয়মিত ভিত্তিতে ডেটিং হতে পারে এবং তাদের মধ্যে কোন যৌন সম্পর্ক থাকতে পারে আবার নাও পারে। পূর্বরাগের এই সময়কে সম্পর্কের অগ্রগতি হিসেবে বিবেচনা করা যায়। [১][২] কোন কোন সংস্কৃতিতে একটি নির্দিষ্ট বয়সসীমা পর্যন্ত ডেটিং এর জন্য অপেক্ষা করতে হয়, যেখানে অনেক বিতর্কের উৎস রয়েছে।

পরিচ্ছেদসমূহ

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ডেটিং এর প্রাতিষ্ঠানিক রূপগ্রহণ একটি সাম্প্রতিক ঘটনা, যা বিগত কয়েক শতাব্দীতে আবির্ভূত হয়েছে। নৃবিজ্ঞান ও সমাজবিজ্ঞানের দৃষ্টিকোণে বিবাহ বা পরিবারের মত প্রতিষ্ঠানের সাথে ডেটিং যুক্ত হয়ে পড়েছে এবং এটি দ্রুত পরিবর্তনশীল একটি ঘটনা, যা প্রযুক্তি এবং ঔষধশাস্ত্রে অগ্রগতিসহ অনেক নিয়ামকের বিষয় হয়ে পড়েছে। শিকারী-সংগ্রহকারী মানবগোষ্ঠী থেকে শুরু করে সভ্য মানব সমাজে জীবতাত্ত্বিক কারণে পরিণত বয়সের মানব-মানবীর মধ্যে যৌন সম্পর্কের ধারা চলে আসছে। এই সম্পর্কের ফলেই মানব বংশবৃদ্ধি বজায় রয়েছে। [৩]

যৌন আচরণে মানুষকে অন্যান্য প্রাণীদের সাথে তুলনা করা যায়।

রেজা আব্বাসির আঁকা, প্রেমিক যুগল (১৯২৯-১৬৩০)
রোমিও ও জুলিয়েটের গোপন সাক্ষাৎ, সার ফ্র্যাঙ্ক ডিকসে, ১৮৮৪ 

সামাজিক সম্পর্ক হিসাবে ডেটিং[সম্পাদনা]

আচরণ নিদর্শনে ব্যাপক ভিন্নতা[সম্পাদনা]

জুলি অ্যাণ্ড্রুজ, মেরি পপিন্স হিসেবে

শব্দটির ভিন্ন অর্থ [সম্পাদনা]

মূল্যায়ন[সম্পাদনা]

সাক্ষাৎ স্থান[সম্পাদনা]

বলরুম নৃত্য, ডেটিং কারো সম্পর্কে জানার একটি উপায়

লিঙ্গ পার্থক্য[সম্পাদনা]

প্রেম[সম্পাদনা]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

নৃবিজ্ঞানী হেলেন ফিশার, ২০০৮ সালে

আগুন্তক বিপদ[সম্পাদনা]

প্রযুক্তি[সম্পাদনা]

মানচিত্রে দেখাচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক মিডিয়া অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহৃত দেশ; ২০১৬ সালে ফেসবুক ছিলো নেতৃস্থানীয়

বিশ্বব্যাপী ডেটিং[সম্পাদনা]

ডেটিং এর প্রথা ও চর্চা স্থান ও কাল ভেদে ভিন্ন হয়ে থাকে। বিবাহের বাগদান বা বিবাহের পূর্বে মানব-মানবীর আবেগজাত সম্পর্কের সময়কাল পৃথিবীব্যাপী আলাদা লক্ষ্য করা যায়।

একটি জাপানি যুগল হাত ধরে আছে

আফ্রিকা[সম্পাদনা]

ইথিওপিয়া[সম্পাদনা]

একজন ইথিওপিয়ান লেখক বর্ণনা করেছেন, আনন্দের সাথে এ প্রেমিক যুগল ডেটিং এ কোন পার্টিতে বা সিনেমা হল ও বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে যায়, বিয়ের পর তাদের উপস্থিতি অনেকাংশে কমে যায়। তিনি বিবাহের আগের ও পরের জীবনের মধ্যে তুলনা করে বিবাহকে “দুইটি শয়তানের চেয়ে কম” বলে আখ্যা দিয়েছেন।[৪] বিয়ের মাধ্যমে ইথিওপিয়াতে দুইটি পরিবারের মধ্যে সম্পর্ক স্থাপিত হয়, যদিও বিয়ের জন্য আর্থিকভাবে তাদের অনেক যৌতুক দিয়ে থাকে।[৫] একটি সূত্র অনুযায়ী ইথিওপিয়াতে চার ভাবে বিয়ে হয়ে থাকে। ১) পারিবারিক বিয়ে, যখন পরিবারের বয়স্ক ব্যক্তিরা পাত্র ও পাত্রীর পক্ষ হয়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন করে। ২) পূর্বরাগ অথবা ডেটিং এর মাধ্যমে, যখন কোন নারী ও পুরুষ পরস্পরের সাথে পরিচিত হয় ও সম্পর্ক স্থাপন করে, যেমন কোন মার্কেটে বা ছুটির দিনে বিনোদন কেন্দ্রে দেখা হয়ে থাকে। ৩) অপহরণ, দুইটি পরিবারের মধ্যে শত্রুতা বজায় থাকে। ৪) উত্তরাধিকার, কখনো কখনো উত্তরাধিকার সূত্রেও বিয়ে হয়।

একজন নায়াংগাটম যুবকের জন্য স্ত্রী পাওয়া অনেক কঠিন একটি বিষয়। তাকে নিজের জন্য একটি বাড়ি বানাতে হয়, প্রচুর তামাক সঞ্চয় করতে হয় এবং কফি শুষ্ক করে রাখতে স্ত্রীর পিতামাতার জন্য। যদি মেয়েটি কোন ধনী পরিবারের হয়ে থাকে, তাহলে যৌতুক হিসেবে ২০০ থেকে ৫০০টি গরু, ১০০০টি ভেড়া বা ছাগল, পাঁচটি উট এবং তিনটি রাইফেল মেয়ের পিতামাতাকে দিতে হয়।

— [৫]

এশিয়া[সম্পাদনা]

চীন[সম্পাদনা]

অভিনেত্রী শু কি, ২০০৮ সালের সিনেমা ইফ ইউ আর দ্যা ওয়ান এর অভিনেত্রী

ভারত[সম্পাদনা]

একটি ভারতীয় বিবাহ

জাপান[সম্পাদনা]

কোরিয়া[সম্পাদনা]

পাকিস্তান[সম্পাদনা]

সিঙ্গাপুর[সম্পাদনা]

তাইওয়ান[সম্পাদনা]

জরিপ তাইওয়ান ছাত্র
বিবৃতি একমত
আশাবাদী তারা পাবেন একটি সম্পর্ক 37%
আছে কোন স্পষ্ট ধারণা কাছে কিভাবে কেউ আগ্রহী তাদের 90%
"পরিবর্তন হৃদয়" এবং "প্রতারণা" কারণ breakups 60%
করতে ইচ্ছুক সারসংকলন সম্পর্ক যদি সমস্যার সমাধান করা হয় 31%
হচ্ছে একের অধিক সম্পর্ক একটি সময়ে ভাল হয় না 70%
নারী, যারা না একটি সম্পর্ক লিখুন, তাহলে মানুষ জীবনে খুব দূরে 70%
নারী যারা বিশ্বাস উচ্চতা পুরুষদের বিষয়ে 96%
....উত্স: চীন দৈনিক

ইউরোপ[সম্পাদনা]

ব্রিটেন[সম্পাদনা]

ফ্লার্টিং, ফ্রেডরিক সোলাক্রোইক্সের আঁকা, (১৮৫৮-১৯৩৩)

জার্মান-ভাষী দেশ[সম্পাদনা]

ভিয়েনা শহরের বলরুম (১৯০০)

ইতালি[সম্পাদনা]

স্পেন[সম্পাদনা]

উত্তর আফ্রিকা[সম্পাদনা]

মধ্যপ্রাচ্য[সম্পাদনা]

ইরান[সম্পাদনা]

ইসরাইল[সম্পাদনা]

লেবানন[সম্পাদনা]

সৌদি আরব[সম্পাদনা]

উত্তর আমেরিকা[সম্পাদনা]

একটি আমেরিকান পরিবার

কানাডা এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র[সম্পাদনা]

এরনি কোভাকস এবং এডি এডামস, তাদের টেলিভিশন শো টেক এ গুড লুক

ওশেনিয়া[সম্পাদনা]

অস্ট্রেলিয়া[সম্পাদনা]

দক্ষিণ আমেরিকা[সম্পাদনা]

ব্রাজিল[সম্পাদনা]

এলজিবিটি কমিউনিটি[সম্পাদনা]

ঘটক[সম্পাদনা]

ঘটক , জেরার্ড ভ্যান হনথ্রোস্টের আঁকা (১৫৯০-১৬৫৬)

ঘটক হিসেবে বন্ধু[সম্পাদনা]

ঘটক হিসেবে পরিবার[সম্পাদনা]

ঘটকালি পদ্ধতি এবং সেবা[সম্পাদনা]

ঘটক হিসেবে কম্পিউটার[সম্পাদনা]

সফটওয়্যার উদ্যোক্তা গ্যারি রবিনসন ১৯৮০ এর দশকে নিউ ইয়র্কে একটি উন্নত অনলাইন ডেটিং সেবা চালু করেছেন, যার নাম ২১২-রোমান্স, যা জটিল কম্পিউটার আলগোরিদিম ব্যবহার করে অনুমান করতে পারে যে কে কাকে পছন্দ করে
অনলাইন ওয়েবসাইট ব্যবহার জরিপ[৬]
অনুমান %
ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের যারা ব্যবহার করেছি, এটা রোম্যান্টিক 74%
এমন কাউকে জানেন যে পাওয়া দীর্ঘমেয়াদী অংশীদার মাধ্যমে ইন্টারনেট 15%
কেউ জানতে ব্যবহৃত একটি ডেটিং ওয়েবসাইট 31%
জানি, কেউ সর্বস্বান্ত একটি তারিখে পরিদর্শন করার পর একটি ওয়েবসাইট 26%
একমত অনলাইন ডেটিং বিপজ্জনক হতে পারে 66%
মনে করবেন না অনলাইন ডেটিং বিপজ্জনক 25%
বিশ্বাস অনলাইন ডেটিং করা হয় তাদের জন্য, "অকূল পাথার" 29%
সর্বস্বান্ত একটি ডেটিং ওয়েবসাইট 10%

মিডিয়া[সম্পাদনা]

বোর্ড গেম[সম্পাদনা]

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

বয়স[সম্পাদনা]

অভিনেত্রী ডেমি মুর বয়সে ছোট অভিনেতা অ্যাস্টন কুচার এর সাথে ডেটিং এ,

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

নোট[সম্পাদনা]

  1. "'Lao wai' speak out on false image in China"China Daily। ২০০৪-০২-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১২-০৯ 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; twsDecI34ee নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. Note: although even this is changing, with the advent of test-tube babies, in vitro fertilization, and such.
  4. "Marriage versus Single Life: Choosing the Lesser of Two Evils?"Ethiopian Observer। ২০১০-১২-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১২-০৯... I seldom saw them with the happy faces they were observed before marriage. 
  5. Staff Writer (২৬ জুন ২০১০)। "Marriage in Nyangatom"The Reporter। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১২-০৯There are four types of marriage among the Nyangatom marriage by arrangement, by the couple's mutual consent by abduction and by inheritance. [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. Mary Madden, Research Specialist, Amanda Lenhart, Senior Research Specialist (সেপ্টেম্বর ২০০৫)। "Online Dating: Americans who are seeking romance use the internet to help them in their search, but there is still widespread public concern about the safety of online dating"Pew Internet & American Life Project। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১২-০৮ 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

  • উইকিমিডিয়া কমন্সে ডেটিং সম্পর্কিত মিডিয়া দেখুন