ডাল্টনের সূত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সমুদ্র সীমার বায়ুতে ডাল্টনের সূত্র প্রয়োগের কাল্পনিক চিত্র।

ডাল্টনের সূত্র (ডাল্টনের আংশিক চাপ সূত্র নামেও পরিচিত) রসায়নপদার্থবিজ্ঞানের একটি গুরুত্বপূর্ণ সূত্র। এ সূত্রের বিবৃতি হল, "পারস্পরিক বিক্রিয়াহীন একাধিক গ্যাস মিশ্রণ কর্তৃক প্রযুক্ত মোট চাপ এবং ঐ প্রতিটি গ্যাস কর্তৃক প্রযুক্ত আংশিক চাপের যোগফল পরস্পর সমান।"[১] এই পরীক্ষামূলক সূত্রটি জন ডাল্টন ১৮০১ সালে পর্যবেক্ষণ করেন এবং এটি আদর্শ গ্যাস সূত্রের সাথে সম্পর্কযুক্ত।

সূত্র[সম্পাদনা]

গাণিতিকভাবে, রাসায়নিক বিক্রিয়া করে না এমন গ্যাস কর্তৃক প্রযুক্ত চাপ:

      or      

যেখানে p1, p2, ..., pn প্রতিটি উপদানের আংশিক চাপকে প্রতিনিধিত্ব করে।[১]

যেখানে yi হল n সংখ্যক উপাদানের মিশ্রণে iতম উপাদানের মোল ভগ্নাংশ

আয়তন-ভিত্তিক ঘনমাত্রা[সম্পাদনা]

যেকোনো গ্যাসীয় উপাদানের আয়তন-ভিত্তিক ঘনমাত্রা নির্ধারণের সম্পর্ক

যেখানে ci হল iতম উপাদানের ঘনমাত্রা।

ডাল্টনের সূত্র বাস্তব গ্যাস কর্তৃক সঠিকভাবে অনুসৃত হয় না, চাপবৃদ্ধির সাথে সাথে বিচ্যূতি ঘটে। এ অবস্থায় অণুগুলো যে আয়তন দখল করে, তা তাদের মধ্যকার মুক্ত স্থানের তুলনায় নগণ্য হয় না। এছাড়াও আন্তআণবিক বল দ্বারা যুক্ত অণুগুলোর মধ্যকার গড় দূরত্ব বেড়ে গিয়ে তাদের দ্বারা প্রযুক্ত চাপের পরিবর্তন করে ফেলে; যা আদর্শ গ্যাস তত্ত্বের পরিপন্থী।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Silberberg, Martin S. (২০০৯)। Chemistry: the molecular nature of matter and change (5th সংস্করণ)। Boston: McGraw-Hill। পৃষ্ঠা 206। আইএসবিএন 9780073048598