ট্রাশি ইয়াংতসে জেলা

স্থানাঙ্ক: ২৭°৪০′ উত্তর ৯১°২৫′ পূর্ব / ২৭.৬৬৭° উত্তর ৯১.৪১৭° পূর্ব / 27.667; 91.417
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ট্রাশি ইয়াংতসে জেলা
བཀྲ་ཤིས་གཡང་རྩེ་རྫོང་ཁག་
জেলা
ভুটানের ট্রাশি ইয়াংতসে জেলার মানচিত্র
ভুটানের ট্রাশি ইয়াংতসে জেলার মানচিত্র
দেশভুটান
সদরদপ্তরইয়াংতসে
আয়তন
 • মোট১,৪৩৮ বর্গকিমি (৫৫৫ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১৭)
 • মোট১৭,৩০০
 • জনঘনত্ব১২/বর্গকিমি (৩১/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলবিটিটি (ইউটিসি+৬)
এইচডিআই (২০১৯)০.৫৮৮[১]
মধ্যম · ১৮তম
ওয়েবসাইটwww.trashiyangtse.gov.bt

ট্রাশিয়াংতসে জেলা (জংখা: བཀྲ་ཤིས་གཡང་རྩེ་རྫོང་ཁག་) হল ভুটানের ২০টি জেলার একটি জেলা। ১৯৯২ সালে ট্রাশিয়াংটসে জেলাকে ট্রাশিগাং জেলা থেকে বিভক্ত করে তৈরি করা হয়েছিল। ট্রাশিয়াংতসে জেলার আয়তন হল ১,৪৩৭.৯ বর্গ কিলোমিটার (৫৫৫.২ বর্গ মাইল)। ১৭৫০-১৮৮০ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত, ট্রাশি ইয়াংটসে জংখাগ গুরু রিম্পোচে দ্বারা আশীর্বাদিত পবিত্র স্থানে পরিপুষ্ট এবং তাওয়াং থেকে ইয়াংটসেপস, শানগ্লাস, ব্রামিস, জেমগাং থেকে খেংপাস এবং হুয়েন্তসে থেকে কুর্তোয়েপস পর্যন্ত বিস্তৃত এই সংস্কৃতি সমৃদ্ধ জেলা।

১৫ শতকের দিকে অঞ্চলটিতে টারটন পেমা লিংপার সফরের সময় দ্বারা ট্রাশিয়াংটসের নামকরণ তার নামে করা হয়েছিল (শুভ ভাগ্যের দুর্গ)।

ট্রাশিয়াংটসে জেলার মানুষের উত্তরের অংশে কাঠ খোদাই এবং কাগজ তৈরি শিল্পে দক্ষতা রয়েছে (জংখা: དལ་ཤོག)। দক্ষিণ অংশ প্রধানত অর্থকরী ফসল এবং পশুর উপর নির্ভর করে।

এই জেলার আসন ও সদরদপ্তর হল ট্রাশিয়াংটসে

ভূগোল[সম্পাদনা]

সার্পাং জেলার আয়তন ১,৪৩৮ বর্গকিলোমিটার। এর উত্তরে চীনের তিব্বত পশ্চিমে হুয়েন্তসে জেলা, দক্ষিণে মোঙ্গার জেলা, এবং দক্ষিণ-পূর্ব দিকে ট্রাশিগাং জেলা অবস্থিত।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০০৫ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী এই জেলার জনসংখ্যা ছিল ২২,৬৭৭ জন। কিন্তু ২০১৭ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী এর জনসংখ্যা হল ১৭,৩০০ জন।[২] এক দশকে যে ছয়টি জেলার জনসংখ্যা কমেছে এটি তার একটি। জনসংখ্যা হ্রাসের হার ২.৫%। এটি ভুটানের ৫ম জনবহুল জেলা। এর জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ১২ জন।

ভাষা[সম্পাদনা]

খোর্তেন কোরা, ট্রাশিয়াংটসে জেলা, ভুটান

ট্রাশিয়াংটসেতে তিনটি প্রধান ভাষায় লোকজন কথা বলে। উত্তরে, বুমডেলিং সহ বাসিন্দারা জালা ভাষায় কথা বলে। দক্ষিণে, পূর্ব ভুটানের মাতৃভাষা শাঙ্গলা (শারখোপা), জামখার, খামদাং, ইয়ালাং এবং রামজার গেওগস ভাষায় মানুষ কথা বলে। তোমঝাংটশেন গেওগের বাসিন্দারা চোচা নাগাচা এবং খেংখা কথা বলে।

প্রশাসনিক বিভাগ[সম্পাদনা]

ট্রাশিয়াংস্তে জেলা আটটি গ্রাম ব্লকে বিভক্ত (বা গেওগস):[৩]

সংরক্ষিত এলাকা[সম্পাদনা]

ট্রাশিয়াংটসে জেলায় ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে খোলং চু বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য, এই অভয়ারণ্যটি নিজেই বৃহত্তর বুমডেলিং বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যের অংশ। বুমডেলিং বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য বর্তমানে ট্রাশিয়াংটসের উত্তর অর্ধেক (বামডেলিং এবং ইয়াংটসে এর গেওগ), পাশাপাশি প্রতিবেশী জেলার উল্লেখযোগ্য অংশ জুড়ে অবস্থিত।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Sub-national HDI - Area Database - Global Data Lab"hdi.globaldatalab.org (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৯-১৩ 
  2. "Population and Housing Census of 2017 (National Report)" (PDF)। National Statistics Bureau। ২০১৮-০৬-২৬। পৃষ্ঠা 102। ২০১৯-০২-২৮ তারিখে মূল (pdf) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩১ 
  3. "Chiwogs in Trashiyangtse" (PDF)। Election Commission, Government of Bhutan। ২০১১। ২০১১-১০-০২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৭-২৮ 
  4. "Parks of Bhutan"Bhutan Trust Fund for Environmental Conservation online। Bhutan Trust Fund। ২০১১-০৭-০২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৩-২৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

  • প্রশাসনিক ওয়েবসাইট