ট্রাকোমা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ট্রাকোমা
Entropion and trichiasis secondary to trachoma A44-652-11.jpg
নেত্রপল্লবে রুপান্তরিত হয় এবং eyelashes ট্রাকোমার ফলস্বরুপ
শ্রেণীবিভাগ এবং বহিঃস্থ সম্পদ
বিশিষ্টতা infectious disease[*]
আইসিডি-১০ A৭১
আইসিডি-৯-সিএম ০৭৬
ডিজিসেসডিবি ২৯১০০
মেডলাইনপ্লাস ০০১৪৮৬
ইমেডিসিন oph/118
পেশেন্ট ইউকে ট্রাকোমা
মেএসএইচ D০১৪১৪১ (ইংরেজি)

ট্রাকোমা, গ্রানুলার কনজাংকটিভাইটিস, ইজিপসিয়ান ওপথামিয়া,[১] এবং ব্লাইন্ডিং ট্রাকোমা হিসাবেও পরিচিত, যা ব্যাকটেরিয়া ক্লেমেডিয়া ট্রাকোমেটিস দ্বারা সৃষ্ট একটি সংক্রামক রোগ।[২] এর সংক্রমণে নেত্রপল্লবের ভিতরের পৃষ্ঠ অমসৃণ হয়। এই অমসৃণতা চোখে ব্যথা, চোখের বর্হিপৃষ্ঠে অথবা কর্ণিয়ায় ভাঙ্গন সৃষ্টি করতে পারে এবং অন্ধত্বের কারণ হতে পারে।[২]

কারণ[সম্পাদনা]

যে ব্যাকটেরিয়ার কারণে এই রোগ সৃষ্টি হয় তা আক্রান্ত ব্যক্তির চোখ অথবা নাক হতে প্রত্যক্ষ অথবা পরোক্ষ সংস্পর্শে ছড়াতে পারে।[২] পরোক্ষ সংস্পর্শের মধ্যে আছে পোষাক অথবা মাছি যা আক্রান্ত ব্যক্তির চোখ অথবা নাকের সংস্পর্শে আসে।[২] নেত্রপল্লবে গুরুতর ক্ষত তৈরি হয়ে চোখের পাঁপড়ি চোখে ঘষা লাগতে শুরু করার পূর্বে অনেক সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে সাধারণত বেশ কয়েক বছর সময় লাগতে পারে।[২] শিশুরা সাধারণ বয়স্কদের চেয়ে বেশি এই রোগ ছড়ায়।[২] নিম্নমানের পয়নিষ্কাশন, জনাকীর্ণ আবাস্থল, অপর্যাপ্ত বিশুদ্ধ পানি এবং শৌচাগারও এই রোগ ছড়ায়।[২]

প্রতিরোধ এবং চিকিৎসা[সম্পাদনা]

বিশুদ্ধ পানির প্রাপ্যতা বৃদ্ধি এবং অ্যান্টিবায়োটিক দ্বারা চিকিৎসা করে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা কমিয়ে এই রোগ প্রতিরোধ করা যায়।[২] এর মধ্যে আছে, একসাথে সকলকে, যে সকল গ্রুপের মধ্যে এই রোগের সম্ভাবনা বেশি তাদের চিকিৎসা করে।[৩] কেবল ধৌতকরণ এই রোগ প্রতিরোধে যথেষ্ট নয় কিন্তু অন্যান্য পদক্ষেপের সাথে কার্যকরী হতে পারে।[৪] চিকিৎসা পদ্ধতিগুলোর মধ্যে আছে মুখে সেবনযোগ্য অ্যাজিথ্রোমাইসিন অথবা ত্বকে ব্যবহার্য টেট্রাসাইক্লিন[৩] মুখে কেবল একবার সেবনের সুবিধা থাকায় অ্যাজিথ্রোমাইসিন অধিকতর পছন্দনীয়।[৫] নেত্রপল্লবে ক্ষত তৈরি হবার পর চোখের পাতার অবস্থান ঠিক করতে এবং অন্ধত্ব রোধে অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হতে পারে।[২]

মহামারী সংক্রান্ত বিদ্যা[সম্পাদনা]

বিশ্বজুড়ে, প্রায় ৮০ মিলিয়ন মানুষের সক্রিয় সংক্রমণ আছে।[৬] অনেক এলাকায় ৬০-৯০% শিশুদের মধ্যে এই রোগের সংক্রমণ থাকতে পারে এবং পুরুষদের চেয়ে মহিলাদের এই রোগের সংক্রমণ বেশি কারণ তারা শিশুদের সংস্পর্শে বেশি আসে।[২] এই রোগ ২.২ মিলিয়ন মানুষের কম দৃষ্টিশক্তির কারণ যাদের ১.২ মিলিয়ন সম্পূর্ণ অন্ধ হয়ে যায়।[২] এই রোগটি সাধারণত আফ্রিকার ৫৩টি দেশ, এশিয়া এবং মধ্য এবং দক্ষিণ আমেরিকায় ২৩০ মিলিয়ন মানুষকে ঝুঁকিতে রাখে।[২] এটি বছরে ৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ক্ষতি সাধন করে।[২] এটি অবহেলিত গ্রীষ্মমন্ডলীয় রোগ নামে পরিচিত গোত্রের অন্তর্ভুক্ত।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Swanner, Yann A. Meunier ; with contributions from Michael Hole, TakudzwaShumba&B.J. (২০১৪)। Tropical diseases : a practical guide for medical practitioners and students। Oxford: Oxford University Press, USA। পৃ: ১৯৯। আইএসবিএন 9780199997909 
  2. "Blinding Trachoma Fact sheet N°382"World Health Organization। নভেম্বর ২০১৩। সংগৃহীত ১৪ মার্চ ২০১৪ 
  3. Evans JR1, Solomon AW (মার্চ ২০১১)। "Antibiotics for trachoma"। Cochrane Database Syst Rev 16 (3): CD001860। ডিওআই:10.1002/14651858.CD001860.pub3পিএমআইডি 21412875 
  4. Ejere, HO; Alhassan, MB; Rabiu, M (Apr ১৮, ২০১২)। "Face washing promotion for preventing active trachoma."। The Cochrane database of systematic reviews 4: CD003659। ডিওআই:10.1002/14651858.CD003659.pub3পিএমআইডি 22513915 
  5. Mariotti SP (নভেম্বর ২০০৪)। "New steps toward eliminating blinding trachoma"N. Engl. J. Med. 351 (19): 2004–7। ডিওআই:10.1056/NEJMe048205পিএমআইডি 15525727 
  6. Fenwick, A (Mar ২০১২)। "The global burden of neglected tropical diseases."। Public health 126 (3): 233–6। ডিওআই:10.1016/j.puhe.2011.11.015পিএমআইডি 22325616