টোকিও বন্দর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
টোকিও বন্দর
Tokyo passenger ship terminal.JPG
টোকিও বন্দরের যাত্রী টার্মিনাল
বিস্তারিত
পরিচালনা করেটোকিও বন্দর ককর্তৃপক্ষ
মালিকজাপান সরকার
পোতাশ্রয়ের প্রকারকৃত্রিম /প্রকৃতিক
পোতাশ্রয়ের আকার৫২ বর্গকিলোমিটার (২০ মা)
জমির আয়তন১০ বর্গকিলোমিটার (৩.৯ মা)
আকার৬৩ বর্গকিলোমিটার (২৪ মা)
উপলব্ধ নোঙরের স্থান২০৫
কর্মচারী৩০,০০০
পরিসংখ্যান
বার্ষিক কার্গো টন৯০৮ মিলিয়ন টন (২০০৭ সাল)
বার্ষিক কন্টেইনারের আয়তন৪.৫ মিলিয়ন

টোকিও বন্দর[১] হল জাপান এর হোনশু দ্বীপ এর প্রধান ও বৃহত্তম বন্দর।এটি জাপান এর বৃহত্তম বন্দর গুলোর মধ্যে অন্যতম।বন্দরটি টোকিও উপসাগর এর তীরে অবস্থিত।বন্দরটি টোকিও শহর এর পণ্য পরিবহন করে থাকে।এছাড়া এই বন্দর দিয়ে বৃহত্তর হোনশু দ্বীপ এর পণ্য দ্রব্য পরিবহন করা হয়।বন্দরটি বিশ্বের বেশির ভাগ বন্দরের সঙ্গে যুক্ত এবং এই বন্দর থেকে ওই সব বন্দরে পণ্যবাহী জাহাজ চলাচল করে।বন্দরটির গভীরতা ১০ মিটার বা ৩১ ফুটের বেশি।বন্দরটি হোনশু দ্বীপের পূর্ব দিকে অবস্থিত।প্রাচীন সময় থেকেই এই বন্দরটি জাপান এর সমুদ্র বাণিজ্যে নেতৃত্ব দিচ্ছে।বন্দরটি বছরে ৪৫ লক্ষ কন্টেইনার পরিবহন করে এবং ২০০ মিলিয়ন টন কার্গো পণ্য পরিবহন করছে।বন্দরটি মোট ৬৩ বর্গ কিলোমিটার এলাকা নিয়ে গড়ে উঠেছে।এর মধ্যে ৫২.৫ বর্গ কিলোমিটার এলাককা পোতাশ্রয় ও বাকি ১০.৫ বর্গ কিলোমিটার স্থল ভূমি। টোকিও বন্দরে মোট ৩০ হাজার কর্মী নিযুক্ত রয়েছে। বন্দরটিতে মোট ২০৫ টি জেটি চালু রয়েছে।বন্দরটিতে কন্টেইনার পণ্য ও কার্গো পণ্য পরিবহনের সুষ্ঠ ব্যবস্থা রয়েছে।বন্দরটিতে যাত্রী পরি বহনের পৃথক টার্মিনাস রয়েছে।

অবস্থান[সম্পাদনা]

টোকিও বন্দরটি হোনশু দ্বীর এর পূর্ব দিকে অবস্থিত।টোকিও উপসাগর এর তীরে বন্দরের অবস্থান।এটি সমুদ্র সমমতল থেকে ০ থেকে ২ মিটার উচু ।বন্দরটি ৩৫..৪১ ডিগ্রী উত্তর ও ১৩৯.৬৮ ডিগ্রী পূর্বে অস্থান করছে।টোকিও শহর এর সমুদ্র তীরে এর অবস্থান।এই বন্দরটি প্রশান্ত মহাসাগর এর পশ্চিম দিকে অবস্থান করছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

পোতাশ্রয়[সম্পাদনা]

টোকিও বন্দর এর পোতাশ্রয়টি প্রাকৃতিক ।এটি প্রশান্ত মহাসাগরের পশ্চিমে টোকিও উপসাগর এর পশ্চিম কূলে গড়ে উঠেছে।এই উপসাগরটি ও প্রশান্ত মহাসাগর একটি সংর্কীন জল পথ দ্বারা যুক্ত ফলে এই বন্দরের পোতাশ্রয়টি মহাসাগরীয় দূর্যোগ থেকে সুরক্ষিত থাকে। পোতাশ্রয়টি গভীর।এই পোতাশ্রয় এর গড় গভীরতা ১০ মিটার। ফলে বন্দরটিতে বড় জাহাজ চলাচল করতে পারে।

পরিকাঠাম[সম্পাদনা]

বন্দরটি ২০৫ টি জেটির সংযোগে গড়ে উঠেছে।জেটি গুলি খুবই আধুনিক ও সংয়ক্রিয়।এখানে কন্টেইনার টার্মিনাস রয়েছে।এই টার্মিনাসটি ৪.৫ হাজার মিটার বা ৪.৫ কিলোমিটার দীর্ঘ।এই টার্মিনাসে মোট ১৫ টি জেটি রয়েছে।খনিজ তেলের জন্য নির্ধারিত টার্মিনাসটি ৩.৪ হাজার মিটার দীর্ঘ।এই টার্মিনাসে মোট ৭ টি জেটি রয়েছে।এর মোট আয়তন ৯ লক্ষ বর্গ মিটার।

আমদানি রপ্তানি[সম্পাদনা]

এই বন্দর দ্বারা জাপানে প্রধানত খনিজ তেল, কয়লা, চা, প্রভৃতি আমদানি করা হয়।বন্দরটি দ্বারা বিদেশে যন্ত্রপাতি ,ইস্পাাত, প্রভৃতি রপ্তানি করা হয়।

পশ্চাৎ ভূমি[সম্পাদনা]

সমগ্র হোনশু দ্বীপ এই বন্দরের পোতাশ্রয় এর অন্তর্গত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]