টেমসুলা আও

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
টেমসুলা আও
২০১০ সালে ভারতের নতুন দিল্লীতে অনুষ্ঠিত আন্তরাষ্ট্রীয় গ্রন্থমেলায় টেমসুলা আও
২০১০ সালে ভারতের নতুন দিল্লীতে অনুষ্ঠিত আন্তরাষ্ট্রীয় গ্রন্থমেলায় টেমসুলা আও
জন্ম১৯৪৫ (বয়স ৭৪–৭৫)
পেশাকবি, সাহিত্যিক
জাতীয়তাভারতীয়
উল্লেখযোগ্য পুরস্কারপদ্মশ্রী (২০০৭)
সাহিত্য অকাডেমি পুরস্কার (২০১৩)

টেমসুলা আও একজন কবি, গল্পকার, লোকসংস্কৃতির গবেষক এবং সাহিত্যিক৷ ২০১৩ সালে তিনি ছোটগল্প সংকলন Laburnum for My Head-এর জন্য ইংরেজি ভাষার সাহিত্য অকাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।[১] তাঁর লেখাসমূহ ইতিমধ্যে জার্মান, ফরাসি, অসমীয়া, বাংলা এবং হিন্দী ভাষায় অনূদিত হয়েছে৷ ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্যসমূহ থেকে ইংরেজিতে সাহিত্য চর্চা করা সাহিত্যিকদের মধ্যে টেমসুলা আওয়ের এক বিশেষ আসন আছে৷

জীবনী[সম্পাদনা]

টেমসুলা আওয়ের জন্ম হয় ১৯৪৫ সালের অক্টোবরে আসাম-এর জোড়াহাট জেলায়। তিনি গোলাঘাটের রিডজব বালিকা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে স্কুলীয়া শিক্ষা সাং করেন। টেমসুলা আও নাগাল্যান্ড-এর মোককচাং জেলায় অবস্থিত ফাজি আলি মহাবিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। পরবর্তী কালে তিনি গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয়-এর থেকে ইংরেজি বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। এর পর তিনি হায়দরাবাদের ইংরেজি এবং বিদেশী ভাষা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিপ্লোমা এবং উত্তর-পূর্ব পার্বত্য বিশ্ববিদ্যালয় (নেহু) থেকে ডক্টরেট ডিগ্রী লাভ করেন।

১৯৯২-৯৭ সালে তিনি ডিমাপুরের উত্তর-পূর্ব সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ডিরেক্টর হিসাবে কার্য্যনির্বাহ করেন। নেহুতেও টেমসুলা আও শিক্ষাদান করেন। ১৯৮৫-৮৬ সালে তিনি ফুলব্রাইট ফেলোশিপ নিয়ে মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা করেন।[২]

২০০৭ সালে তিনি সাহিত্যিক অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ পদ্মশ্রী পুরস্কার লাভ করেন। ২০০৯ সালে মেঘালয় সরকার তাঁকে রাজ্যপালের স্বর্ণপদকও প্রদান করেন।[৩]

কবিতা[সম্পাদনা]

তাঁর প্রকাশিত কবিতা সংকলনসমূহ হচ্ছে –

  • Songs that Tell (১৯৮৮)
  • Songs that Try to Say (১৯৯২)
  • Songs of Many Moods (১৯৯৫)
  • Songs from Here and There (২০০৩)
  • Songs From The Other Life (২০০৭)

লোকসংস্কৃতি[সম্পাদনা]

মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা করতে থাকার সময়ে টেমসুলা আও নেটিভ আমেরিকানদের সংস্পর্শে আসেন৷ তিনি এই লোকদের সংস্কৃতি এবং লোককথাসমূহের বিষয়ে জানতে পারেন৷ এর থেকেই তিনি নিজের আও নাগা জনজাতির কথিত লোকসংস্কৃতির গবেষণা এবং সংরক্ষণের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়েন। ভারতে এসে তিনি এইসম্পর্কিত গবেষণা করতে থাকেন। আও নাগাদের মুখে মুখে চলে আসা লোকগাঁথা, পরম্পরা এবং সংস্কৃতির ওপরে করা এই গবেষণার ফলস্বরূপ ১৯৯৯ সালে আও নাগাদের কথিত পরম্পরার বিষয়ে তাঁর একটি গ্রন্থ প্রকাশ পায়৷

ছোটগল্প[সম্পাদনা]

টেমসুলা আওয়ের দুটি ছোটগল্প সংকলন প্রকাশ পেয়েছে-

  • These Hills Called Home: Stories from the War Zone
  • Laburnum for my Head (২০০৯)

প্রথমটিতে দশটা এবং দ্বিতীয় গ্রন্থে আটটা ছোটগল্প সন্নিবিষ্ট আছে৷ তাঁর ছোটগল্পসমূহে হিংসাজর্জর নাগাল্যান্ডের মানুষের সমাজ এবং মনস্তত্ত্বের এবং আত্মপ্রত্যয়ের অধিকারের সাবলীল ছবি দর্শিত হয়েছে৷

সাহিত্য সমালোচনা[সম্পাদনা]

টেমসুলা আও সাহিত্য সমালোচনায় অবদান রেখেছেন৷ ১৯৮৯ সালে তাঁর এইসম্পর্কিত একটি গ্রন্থ ’Henry James' Quest for an Ideal Heroine’ প্রকাশ পায়৷

অন্যন্য অবদান[সম্পাদনা]

গ্রন্থের তালিকা[সম্পাদনা]

  • Laburnum for My Head (২০০৯)
  • Songs that Try to Say (১৯৯২)
  • Songs of Many Moods (১৯৯৫)
  • Songs from Here and There (২০০৩)
  • Songs From The Other Life (২০০৭)

পুরস্কার এবং সম্মান[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Poets dominate Sahitya Akademi Awards 2013" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে. Sahitya Akademi. 18 December 2013. Retrieved 18 December 2013.
  2. "Women's Writing"। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  3. "Five artistes to receive Governor's Award 2009"। ১৪ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  4. "Padma Awards" (PDF)। Ministry of Home Affairs, Government of India। ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুলাই ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]