টম স্টাইনবার্গ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
টম স্টাইনবার্গ
ইংরেজি: Tom Steinberg
Tom Steinberg.jpg
২০০৯ সালে স্টাইনবার্গ
জাতীয়তাব্রিটিশ
পেশা
  • লেখক
  • ব্যবসায়ী

টম স্টাইনবার্গ ইংল্যান্ড-ভিত্তিক আন্তর্জাতিক এনজিও মাইসোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক; যা দেওয়ার্কফরইউ, আলভেটলি ও ফিক্সমাইস্ট্রিট নাগরিক প্রযুক্তি সরঞ্জামের উন্নয়ন করে।[১][২][৩] স্টাইনবার্গ যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর কৌশল বিভাগে ২০০১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত কাজ করেন।[৪]

স্টাইনবার্গ উন্মুক্ত-প্রবেশাধিকার পদ্ধতি এবং তাদের ভবিষ্যত সম্ভাবনার সহ-রচয়িতা যেখানে তিনি যুক্তি দিয়েছিলেন যে উন্মুক্ত-প্রবেশাধিকার মডেলের নীতিগুলো সরকার, নাগরিক এবং ব্যবসায়িকদের ভিত্তিগত বাস্তবায়নে প্রভাব র রাখতে পারে।[৫]

তথ্যের শক্তি: একটি স্বতন্ত্র পর্যালোচনা এড মেয়ো এবং টম স্টাইনবার্গের দ্বারা ২০০৭ সালে প্রকাশিত হয়েছিল;[৬][৭] যা সরকারের প্রতিক্রিয়া ছিল।[৮]

স্টাইনবার্গ কোড ফর আমেরিকার পরামর্শদাতার সদস্য।[৯]

২০১০ সালের মে মাসে, ঘোষণা করা হয়েছিল যে স্টাইনবার্গ যুক্তরাজ্য সরকারের নতুন স্বচ্ছ বোর্ডের অংশ হবেন, যা "সরকারকে আরো বেশি স্বচ্ছ" হিসাবে প্রচারের জন্য প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।[১০][১১] ২০১২ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকে তিনি পদত্যাগ করেন।[১২]

স্টাইনবার্গ নিজেকে 'বাম-কেন্দ্রের মধ্যপন্থী' হিসাবে বর্ণনা করেছেন।[১২] ২০১২ সালের নভেম্বরে টম ওয়াটসন সাংসদের অনুরোধে তিনি শ্রম ও রক্ষণশীল সংসদ সদস্য, মন্ত্রী এবং দলীয় কর্মী উভয়ের পক্ষে নীতিমালা লিখে তা প্রকাশ করেছিলেন।[১২] প্রকাশ করতে গিয়ে তিনি লিখেছিলেন:[১২]

আমি আফসোস করছি, আমার মনে হয় যে, এই ধারণাটি তৈরি হয়েছিল যে আমাকে অবশ্যই রক্ষণশীল হতে হবে, যেই রক্ষনশীল মানুষ টরিসকে নির্বাচিত করার চেষ্টা করেছিলেন। আমি এখনো তা না, আর আগেও ছিলাম না। আমি কখনও যুক্তরাজ্য বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোনও রক্ষণশীল দলের পক্ষে ভোট দিইনি। আমি বাম-কেন্দ্রের মধ্যপন্থী যে তার ব্যক্তিগত রাজনীতি সম্পর্কে বেশি কথা বলে না। কারণ, আপনি যখন কিছু করেন তখন আপনার দ্বারা যে অপব্যবহার হয় তা আমি উপভোগ করি না। এছাড়াও, আমি যে প্রযুক্তিগত পরামর্শ দিচ্ছি তার সিংহভাগ বাম এবং ডান সরকারের জন্য সমানভাবে বৈধ।

২০১৫ সালের মার্চে, তিনি মাইসোসাইটির প্রধান হিসাবে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তের ঘোষণা দিয়েছিলেন। যা তার কথায়, "আমরা একটি ভাল মানচিত্র পেয়েছি, একটি শক্ত গাড়ি পেয়েছি এবং আমরা জ্বালানির জন্য পর্যাপ্ত অর্থ পেয়েছি"।[১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. The former insider who became an internet guerrilla Guardian, 23 October 2008
  2. Tom Steinberg: Open house in Westminster Independent, 26 June 2009
  3. "About mySociety"। mySociety। ২০১২-০৬-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১১-২৪ 
  4. About Tom Steinberg ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৬ মার্চ ২০১৪ তারিখে, MySociety
  5. "Wide Open"। Demos। ২০০৫-০৪-২০। ৩ এপ্রিল ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১১-২৪ 
  6. "The Power of Information"। Sandbox.opsi.gov.uk। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১১-২৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. Steinberg, Tom; Mayo, Ed (২০০৭)। "The Power of Information: An Independent Review"The National Archives। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০১৯ 
  8. "The Government's Response to the Power of Information: An Independent Review by Ed Mayo and Tom Steinberg" (PDF)। UK Government। জুন ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৯ 
  9. "Code for America: Who We Are"। Code for America। ২০১২-১১-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১১-২৪ 
  10. "PM's transparency letter"। Number10.gov.uk। ২০১০-০৫-৩১। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১১-২৪ 
  11. "Advisory Panel on Public Sector Information : The National Archives"। Appsi.gov.uk। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১১-২৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  12. "Publishing policy papers I wrote for politicians & advisors, some regrets, and a statement about my personal politics"। Tom Steinberg। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১১-২৪ 
  13. Steinberg, Tom। "mySociety's Director Tom Steinberg to step down – new leadership position will be advertised soon / mySociety"। mySociety। সংগ্রহের তারিখ ২ মার্চ ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]