জেমস ডাডলি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
জেমস ডাডলি
জন্ম নাম জেমস ডাডলি
জন্ম (১৯১০-০৫-১২)১২ মে ১৯১০[১]
মৃত্যু ১ জুন ২০০৪(২০০৪-০৬-০১) (৯৪ বছর)[২]
পেশাদারি কুস্তি ক্যারিয়ার
রিংয়ে নাম জেমস ডাডলি
অভিষেক ১৯৫০ এর দশকে[৩]

জেমস ডাডলি (মে ১২, ১৯১০ – জুন ১, ২০০৪) একজন আমেরিকান বেসবল খেলোয়াড় এবং পেশাদার রেসলিং ম্যানেজার ও নির্বাহী। তিনি নেগ্রো লীগ বেসবলে নয় বছর ধরে খেলেন কিন্তু তিনি ওয়ার্ল্ড ওয়াইড রেসলিং ফেডারেশনের সাথে তার সময়ের জন্যই বেশি পরিচিত। ডাডলি ছিলেন প্রথম আফ্রিকান আমেরিকান যিনি যুক্তরাষ্ট্রে প্রধান কোন ক্রীড়াঙ্গন পরিচালনা করেন (ওয়াশিংটন ডিসির টার্নারস এরিনা)।[২] তিনি পেশাদার কুস্তিতে চার প্রজন্মের ম্যাকম্যাহন পরিবারের সদস্যদের সাথে কাজ করেন এবং বিশেষত ভিনসেন্ট জে. ম্যাকম্যাহনের খুব ঘনিষ্ঠ ছিলেন। ম্যাকম্যাহন পরিবারের সাথে দীর্ঘদিন কাজের মূল্যায়ন হিসেবে ৭৪ বছর বয়সে তাকে আবার ডাব্লিউডাব্লিউইতে বেতনভুক্ত করা হয়। তিনি বেশ কিছু রেসলারের ম্যানেজার হিসেবে কাজ করেন এবং ১৯৯৪ সালে ডাব্লিউডাব্লিউই হল অফ ফেমে অধিষ্ঠিত হন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

বেসবল[সম্পাদনা]

ডাডলীকে একজন অসাধারণ ক্রীড়াবিদ হিসেবে বিবেচনা করা হতো এবং তিনি ১০ সেকেন্ডের কম সময়ের মধ্যে একাধিকবার ১০০ ইয়ার্ড ড্যাশ সম্পন্ন করতে পারতেন।[৪] যদিও তিনি ১৯২৪ সালের যুক্তরাষ্ট্রের অলিম্পিক টিমের বাছাই এ উপস্থিত ছিলেন,তাকে অংশগ্রহণ করতে দেওয়া হয়নি কারণ আফ্রিকান আমেরিকানরা দলে নিষিদ্ধ ছিল।[৪][৫] বাল্টিমোরওমেরিল্যান্ড অঙ্গরাজ্যে কিছুদিন সেমি প্রফেশনাল বেসবল খেলার পর ২৭ বছর বয়সে বাল্টিমোর এলিট জায়ান্টস এর সসাথে চুক্তিবদ্ধ হন যেখানে তার ডাকনাম ছিল"Big Train", তিনি ক্যাচার অবস্থানে খেলতেন যদিও শুরুতে পিচারদেরকে বুলপেনে ওয়ার্ম আপ এ সাহায্য করতেন।[৪] অন্য দুইজন প্রতিভাবান ক্যাচাররয় কাম্পানেলা এবংএগি ক্লার্কএর সাথে খেললেও ডাডলি সীমিত সময়ের জন্য খেলেন।[৬] ১৯৪৫ সালে প্রফেশনাল বেসবল ছেড়ে দেওয়ার আগে পর্যন্ত তিনি এলিট জায়ান্টস দলেই ছিলেন।[৭] তিনি নেগ্রো লীগে সর্বমোট ৬০ টি ম্যাচে অংশগ্রহণ করেন।[১]

পেশাদার কুস্তি[সম্পাদনা]

জেমস ডাডলি ১৯৫০ এর দশকে জেস ম্যাকম্যাহন অধীনে ম্যানেজার হিসেবে কাজ করা শুরু করেন,যখন ম্যাকম্যাহন ক্যাপিটল রেসলিং কর্পোরেশন এর সহ স্বত্তাধিকারী ছিলেন।[৩] ১৯৬৩ সালে যখন ম্যাকম্যাহন এবং তার অংশীদাররা "ন্যাশনাল রেসলিং এলায়েন্স" থেকে সরে গিয়ে যখন ম্যাকম্যাহন এবং ওয়ার্ল্ড ওয়াইড রেসলিং ফেডারেশন (ডাব্লিউডাব্লিউডাব্লিউএফ) প্রতিষ্ঠা করেন,ডাডলি তখনও ম্যাকম্যাহন এর অধীনে কাজ করা জারি রাখেন।[২][৩] ডাডলি এসময় পানির বালতি বহন থেকে শুরু করে টিকিট বিক্রির গণনা পর্যন্ত, বিভিন্ন ধরনের প্রচুর কাজ করতেন।[৫] ডাডলি ভিনসেন্ট জে. ম্যাকম্যাহন এর ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন এবং যখন তার ছেলে বাবার থেকে ব্যবসার দায়দায়িত্ব বুঝে নেন তখনও ডাডলি ম্যাকম্যাহন পরিবারের জন্য কাজ করা অব্যাহত রাখেন ; মূলত তিনি ম্যাকম্যাহন এর লিমোজিন চালক এবং দেহরক্ষী হিসেবে কাজ করেন।[৮][৯] তিনি বলেন যে ভিনসেন্ট জে. ম্যাকম্যাহনকে তিনি পিতৃতুল্য মনে করতেন।[৩] ম্যাকম্যাহন পরে বেশ কয়েকবার কোম্পানিতে ডাডলির দায়িত্বের পরিমাণ বৃদ্ধি করেন অবশেষে তাকে ওয়াশিংটন ডিসির টার্নারস এরিনা পরিচালনার দায়িত্বে নিয়োজিত করেন,ডাডলি এ ধরনের পদে অধিষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম আফ্রিকান আমেরিকান ছিলেন।[২][৩] তার কাজ ছিল "টাউন এনএন্ড কান্ট্রি জাম্বরী" সহ অন্যান্য বিভিন্ন ক্রীড়া অনুষ্ঠানের তত্ত্বাবধান।[৩]

"যদিও তাকে দর্শকরা দেখতে পেত না,জেমস ডাডলি পেশাদার কুস্তির ইতিহাসে অঅন্যতম একজন গুরুত্বপূর্ণ ও প্রভাবশালী ব্যক্তি ছিলেন।১৯৫০ এবং ৬০ এর দশকে যখন ভক্তরা ডাব্লিউডাব্লিউই সাপ্তাহিক অনুষ্ঠানের জন্য টিভি চালু করত,খুব কম মানুষ ই জানত পর্দার পিছনে ডাডলির বিশাল ভূমিকার কথা।"
Hall of Fame Inductees -WWE.com[২]

ডাডলি "বোবো ব্রাজিল" সহ বেশ কিছু রেসলারের ম্যানেজার ছিলেনlব্রাজিলের ম্যাচের আগে দর্শকদের তিনি রিং এ দৌড়াতে দৌড়াতে সাদা তোয়ালে নেড়ে উত্তেজিত করতেন।[২] সময়ের সাথে কোম্পানিতে ডাডলির কাজ কমে আসে এবং তিনি তাদের সাথে কাজ করা থেকে অব্যাহতি নেন,কোম্পানির সদরদপ্তর কানেক্টিকাটে সরে যায় এবং টার্নারস এরএরিনা ধ্বংস হয়।মৃত্যুর অল্প আগে ভিনসেন্ট জে. ম্যাকম্যাহন তার ছেলে ডাব্লিউডাব্লিউই এর দায়িত্ব বুঝে নেওয়া ভিনসেন্ট কে. ম্যাকম্যাহন কে বলেন, "Whatever else you do, you take care of James Dudley."[৩] ভিনসেন্ট জে. ম্যাকম্যাহন এর মৃত্যুর পর ৭৪ বছর বয়সে তাকে আবার কোম্পানির বেতনভুক্ত করা হয় এবংi পরবর্তীকালে ভিনসেন্ট কে. ম্যাকম্যাহন এর পক্ষ হতে কোম্পানিতে তার অবদানের সম্মাননাসরূপ বিভিন্ন উপহার দেওয়া হয়।[৩] ডাডলিকে ডাব্লিউডাব্লিউই এরর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে বিবেচনা করা হয় ম্যাকম্যাহন একবার দাবি করেন যে জেমস ডাডলি না থাকলে আজকে ডাব্লিউডাব্লিউই ও থাকত না।[৩] ডাডলির সবসময় মম্যাকম্যাহন পরিবারের প্রতি আনুগত্য অনুভূতি বজায় রাখেন।[৩] ১৯৯৪ সালে ভিনসেন্ট কে. ম্যাকম্যাহন দ্বারা ডাডলি ডাব্লিউডাব্লিউই হল অফ ফেম এ অধিষ্ঠিত হন।[২]

কোম্পানিতে ডাডলির শেষ উপস্থিতি ছিল ২০০২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে ডাব্লিউডাব্লিউই স্ম্যাকডাউন এর একটি এপিসোডে। চিত্রণাট্য অনুসারে,স্টেফানি ম্যাকম্যাহন "ভেরিজন এমসিয়াই সেন্টার এ নিষিদ্ধ ছিলেন, সিকিউরিটি পার হওয়ার জন্য তিনি ডাডলিকে একটি হুইলচেয়ারে করে নিয়ে যাচ্ছিলেন,তারপরও তাকে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি।দৃশ্যটির পরে ডাডলি হুইলচেয়ার থেকে উঠে হেঁটে গিয়ে নিজের আসনে বসেন এবং অনুষ্ঠানের বাকি অংশ উপভোগ করেন।[৩]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ডাডলি পেশাদার কুস্তি থেকে অবসর গ্রহনের পর ডিস্ট্রিক্ট অফ কলম্বিয়ায় বসবাস করতে থাকেন।তার ৩৭ জনপৌত্র/পৌত্রী, ৩৪ জন প্রপৌত্র/প্রপৌত্রী এবং ১৬ জম প্রপ্রপৌত্র/প্রপ্রপৌত্রী ছিল।[৩] ২০০৪ সালের ১ জুন ৯৪ বছর বয়সে ডাডলি বার্ধ্যক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন।[২][৮]

পেশাদার কুস্তি[সম্পাদনা]

চ্যাম্পিয়নশিপ ও অন্যান্য অর্জন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "James Dudley"। Negro Leagues Baseball eMuseum। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-১০-১০ 
  2. "Hall of Fame: James Dudley"। WWE.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৩-২৯ 
  3. "James Dudley"। Cauliflower Alley Club। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৫-২৪ 
  4. Kelley, Brent P. (২০০০)। The Negro Leagues Revisited: Conversations with 66 More Baseball Heroes। McFarland। পৃষ্ঠা 55। আইএসবিএন 0-7864-0875-8 
  5. Kelley, Brent P. (২০০০)। The Negro Leagues Revisited: Conversations with 66 More Baseball Heroes। McFarland। পৃষ্ঠা 57। আইএসবিএন 0-7864-0875-8 
  6. Kelley, Brent P. (২০০০)। The Negro Leagues Revisited: Conversations with 66 More Baseball Heroes। McFarland। পৃষ্ঠা 55–56। আইএসবিএন 0-7864-0875-8 
  7. Kelley, Brent P. (২০০০)। The Negro Leagues Revisited: Conversations with 66 More Baseball Heroes। McFarland। পৃষ্ঠা 59। আইএসবিএন 0-7864-0875-8 
  8. Gallipoli, Thomas M. (২০০৭-০৯-১৮)। "Specialist: List of Deceased Wrestlers for 2004"Pro Wrestling Torch। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৫-২৪ 
  9. "A Blast From The Past—The Federation Hall Of Fame"। World Wrestling Federation Magazine13 (9): 56–57। সেপ্টেম্বর ১৯৯৪। 8756-7792। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]