জীপ কেলেংকারি, ভারত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

১৯৪৮ সালে সংঘটিত জীপ কেলেংকারি স্বাধীন ভারত-এর প্রথম বৃহৎ কেলেংকারি বলে পরিচিত৷[১] সেইসময়ে যুক্তরাজ্য-এ ভারতীয় হাই কমিশনার পদে নিযুক্ত থাকা ভি. কে. মেনন প্রোটোকল ভঙ্গ করে এক বিদেশী কোম্পানীর থেকে সৈন্যবাহিনীর জীপ গাড়ী ক্রয় করার জন্য একটি ৮০ লাখ টাকার এক নির্ব্বাহে (contract) স্বাক্ষর করেন৷[২]

দুর্নীতির অভিযোগ[সম্পাদনা]

ভি. কে. কৃষ্ণ মেনন প্রোটোকল ভঙ্গ করে বিদেশী কোম্পানীর সাথে ২০০ টি সৈন্যবাহিনীর জীপ গাড়ী ক্রয় করার জন্য ৮০ লাখ টাকার এক নির্ব্বাহে স্বাক্ষর করেন৷ [৩][৪] সময়মত সম্পূর্ণ দাম আদায় করার পর মাত্র ১৫৫ টি জীপগাড়ী ভারত পায়৷ তাৎপর্য্যপূর্ণভাবে সেইসময়কার প্রধানমন্ত্রী নেহরু সরকারকে সেইসংখ্যক গাড়ী বলপূর্বক গ্রহণ করতে বাধ্য করা হয়৷[৫] ১৯৫৫ সালের ৩০ সেপ্টেম্বরে সেইসময়ের গৃহমন্ত্রী গোবিন্দ বল্লভ পন্ট (Govind Ballabh Pant) ঘোষণা করেন যে, এই জীপ কেলেংকারি তদন্ত কমিটির পরামর্শ আইনব্যবস্থা ভঙ্গ করার জন্য বন্ধ করা হয়েছে৷[৬] এর কিছুদিন পর ১৯৫৬ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি কৃষ্ণ মেননকে পোর্টফলিওবিহীন ক্যাবিনেট মন্ত্রীরূপে নেহরুর মন্ত্রীসভাতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়[৭][৮] পরবর্ত্তীকালে এই কৃষ্ণমেনন নেহরুর এক ঘনিষ্ঠ সতীর্থ হন এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রীরূপেও কার্য্যনির্বাহ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "On Your Marks"Outlook। India। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১০। ১৫ মে ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. Dipankar Paul (৩০ এপ্রিল ২০১১)। "The Republic of Scams: Jeep purchase (1948)"MSN। সংগ্রহের তারিখ ২০ ডিসেম্বর ২০১১ 
  3. "Media support crusade against corruption"The Hindu। India। ১৮ এপ্রিল ২০১১। 
  4. "Scamstory"Outlook। India। ১৩ আগস্ট ১৯৯৭। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "India bruised and shrunk"Times of India। India। ৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৮। 
  6. Abdul Gafoor Abdul Majeed Noorani (১৯৭০)। India's Constitution and politics। Jaico। পৃষ্ঠা 174। 
  7. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৮ ডিসেম্বর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০১৮ 
  8. "Worst political scandals of independent India"। India TV News। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জানুয়ারি ২০১৩