জিন্নাহ নৌঘাঁটি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Jinnah Naval Base
Pakistan Navy-এর অংশ
ওমারা, বালুচিস্তান, পাকিস্থান
Naval Jack of Pakistan.svg
স্থানাঙ্ক২৫°১২′০৪″ উত্তর ৬৪°৪০′০২″ পূর্ব / ২৫.২০১১১° উত্তর ৬৪.৬৬৭২২° পূর্ব / 25.20111; 64.66722স্থানাঙ্ক: ২৫°১২′০৪″ উত্তর ৬৪°৪০′০২″ পূর্ব / ২৫.২০১১১° উত্তর ৬৪.৬৬৭২২° পূর্ব / 25.20111; 64.66722
ধরননৌঘাঁট
সাইটের তথ্য
মালিকপাকিস্তান নৌবাহিনী
নিয়ন্ত্রন করেপাকিস্তান নৌবাহিনী

জিন্নাহ নৌঘাঁটি বা জিন্নাহ নেভেল বেস হল পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের ওরমারা এলাকায় অবস্থিত পাকিস্তানের নৌবাহিনীর একটি কৌশলগত নৌঘাঁটি। এটি পাকিস্তানের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আলী জিন্নাহের নামে নামকরণ করা হয়। এটি পাকিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম নৌঘাঁটি। নৌঘাঁটি করাচি ও গদর বন্দরের মাঝা মাঝি এলাকায় আরব সাগর উপকূলে গড়ে উঠেছে। এই নৌঘাটি পাকিস্থানের একটি আধুনীক ও নবিন নৌ ঘাঁটি। [১]

সংক্ষিপ্ত বিবরণ[সম্পাদনা]

জিন্নাহ বেস পাকিস্তান নৌবাহিনীকে করাচি জন্য একটি বিকল্প বিকল্প হিসাবে কাজ করবে যেখানে নৌবাহিনীর জাহাজের জাহাজ এবং এমনকি সাবমেরিনের জন্য সব অবজেক্ট এবং প্রযুক্তিগত সহায়তা পাওয়া যাবে। জাহাজ এবং সাবমেরিনের প্রযুক্তিগত মেরামতের জন্য নৌ ঘাঁটিকে প্রয়োজনীয়তার সঙ্গে উন্নত করা হচ্ছে। এটি করাচি নৌ ঘাঁটির একটি বিকল্প ব্যবস্থা এবং সহজেই আমাদের প্রতিরক্ষা প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে পারে। যাইহোক, করাচির ডকইয়ার্ডটি প্রধান পৃষ্ঠপোষক বা মেরামতের জন্য কেন্দ্র হবে এই ঘাঁটিতে।

অবস্থান[সম্পাদনা]

পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের ওরমায় নৌঘাঁটি গড়ে উঠেছে। করাচি শহর থেকে ২৪০ কিলোমিটার পশ্চিমে (১৪৯ মাইল) দূরে অবস্থিত জিন্নাহ নেভেল বেস। মাখরান উপকূলীয় মহাসড়কের মাধ্যমে জমি দ্বারা, করাচি থেকে ৩৫০ কিলোমিটার (২১৭.৪৮ মাইল) এবং গুয়ারার থেকে ২৮৫ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত। [২]

নির্মাণ[সম্পাদনা]

নৌঘাঁটি নির্মানের স্থান নির্বাচনের মাধ্যমে জিন্নাহ ১৯৯০ সালে সূচনা করে নৌ ঘাঁটির কাজ। চুক্তি করতে তুরস্কের কোম্পানি এসটিএফএ এবং জানুয়ারী দে তার জন্য বেলজিয়ামের অফশোর করা হয় এবং ভূমি উন্নয়ন ডিসেম্বর ১৯৯২ সালে। ১৯৯৪ সালে ঘাঁটি নির্মাণ শুরু করেছে এবং ভিত্তি জেনারেল পারভেজ মুশারফ কর্তৃক ২০০০ সালের ২২ জানুয়ারি উদ্বোধন হয়। বেস বা নৌ ঘাঁটি ৪.৫ কোটি ব্যয়ে নির্মিত হয়েছিল।

প্রধান বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

জিন্নাহ নৌ ঘাঁটিতে মোট আটটি যুদ্ধজাহাজ ও চারটি ডুবোজাহাজ নৌঙরের সুবিধা দিতে পারে। বেস দিয়ে ভবিষ্যতে এই সুবিধা ব্যবহার করা যাবে। বেস বর্তমানে আধুনিকায়ন প্রক্রিয়ায় পাকিস্তানের সাথে প্রতিরক্ষা চাহিদা সঙ্গে বাড়ছে। [২] ভবিষ্যতে নৌ কর্মকর্তা উন্নয়নের জন্য ক্যাডেট কলেজ ওমারা প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে। .[৩]

সাবমেরিন ঘাঁটি[সম্পাদনা]

২০১৪ সালের এপ্রিল মাসে পাকিস্তানে নৌবাহিনীর প্রাথমিক কার্যক্রম এবং ডিজেল ইলেক্ট্রিক ডুবোজাহাজ (SSKs)-এর পুরো নৌবহরের করাচির কাছে ওমরা এলাকাতে জিন্নাহ নৌঘাঁটি বা জিন্নাহ নেভেল বেসে আছে যার মধ্যে নৌবাহিনীর সম্পত্তির স্তূপাকার প্রক্রিয়ায় সেটাই ঘোষণা দেয়। [৪] এই নৌঘাঁটির ডুবোজাহাজ বাহিনী পাকিস্থানের পতিরক্ষা ব্যবস্থার একটি কৌশলগত অংশ। ডুবোজাহাজ বাহিনীটি এই নৌঘাঁটি থেকে পাকিস্থানের উপকূল এলাকা ও জলভাগের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Building Balochistan: Challenges and triumphs for Pakistan Navy
  2. "Jinnah Naval Base being upgraded as alternate port: commander"Aaj News (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১৫ 
  3. Ormara, College। "CADET COLLEGE ORMARA"www.ccormara.edu.pk (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৫-১৫ 
  4. Pakistan Navy to shift submarines from Karachi to Ormara