জাতীয় নাগরিক পঞ্জী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

জাতীয় নাগরিক পঞ্জী (এনআরসি) হ'ল সকল ভারতীয় নাগরিকের জন্য একটি পঞ্জী যা ২০০৩-২০০৪-এ সংশোধিত হিসাবে নাগরিকত্ব আইন ১৯৫৫-এর মাধ্যমে বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল। আসাম রাজ্য ব্যতীত অন্য রাজ্যে এই পঞ্জীকরন এখনো কার্যকর করা হয়নি। [১]

অসম, অবৈধ অভিবাসনের অনন্য সমস্যাযুক্ত একটি সীমান্ত রাজ্য, ১৯৫১ সালের আদমশুমারির তথ্যের ভিত্তিতে ১৯৫১ সালে এই রাজ্যের জন্য একটি এনআরসি তৈরি করা হয়েছিল। [২] তবে পরে সেটী রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়নি। ১৯৮৩ সালে, আসামে অবৈধ অভিবাসীদের চিহ্নিত করার জন্য অবৈধ অভিবাসী (ট্রাইব্যুনাল দ্বারা নির্ধারণ) আইন পাস করে, সংসদ একটি পৃথক ট্রাইব্যুনাল প্রক্রিয়া তৈরি করে। ভারতের সুপ্রিম কোর্ট ২০০৫ সালে এটিকে অসাংবিধানিক বলে প্রত্যাখ্যান করেছিল, এর পরে ভারত সরকার আসাম এনআরসি হালনাগাদ করতে সম্মত হয়েছিল। এক দশক ধরে হালনাগাদ প্রক্রিয়াতে অসন্তুষ্টিজনক অগ্রগতির পরে, ২০১৩ সালে সুপ্রিম কোর্ট প্রক্রিয়াটি পরিচালনা ও পর্যবেক্ষণ শুরু করেছিল। [১] আসামের চূড়ান্ত হালনাগাদ হওয়া এনআরসি, ৩১ আগস্ট ২০১৯ প্রকাশিত হয়েছে, যাতে প্রায় ২০ লক্ষ আবেদনকারীর নাম বাদ গিয়ে, তিন কোটি ৩০ লক্ষ জনসংখ্যার মধ্যে তিন কোটি ১০ লক্ষ মানুষের নাম রয়েছে। [৩]

ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি সমগ্র ভারতের জন্য এনআরসি বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, কিন্তু অসম এনআরসি তার প্রত্যাশা পূরণের পরিণাম খুঁজে পায়নি। মনে করা হয় যে অবৈধ অভিবাসীদের অন্তর্ভুক্ত করার সময় বেশ কিছু বৈধ নাগরিককে বাদ দেওয়া হয়েছিল। [৪]

আইনি এবং নিয়ন্ত্রক প্রাবধান[সম্পাদনা]

("২০০৪ এর ৬ নম্বর সংখ্যাযুক্ত") নাগরিকত্ব (সংশোধন) আইন, ২০০৩ , নাগরিকত্ব আইন ১৯৫৫-এ নিম্নলিখিত ধারাটি যুক্ত করেছে:[৫]

১৪ ক. জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান

(১) কেন্দ্রীয় সরকার সনাক্তকরণের জন্য বাধ্যতামূলকভাবে ভারতের প্রতিটি নাগরিককে পঞ্জীকরণ করে তাকে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান করতে পারে।
২) কেন্দ্রীয় সরকার ভারতীয় নাগরিকদের একটি জাতীয় পঞ্জী বজায় রাখতে পারে এবং সে উদ্দেশ্যে একটি জাতীয় পঞ্জীকরণ কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠা করতে পারে।
(৩) নাগরিকত্ব (সংশোধন) আইন, ২০০৩ শুরুর তারিখে এবং পরবর্তী সময়ে, রেজিস্ট্রার জেনারেল, ভারত, জন্ম ও মৃত্যুর পঞ্জীকরণ আইন, ১৯৬৯ (১৯৬৯ এর ১৮) -র ধারা ৩ এর উপধারা (১) এর অধীনে নিযুক্ত জাতীয় পঞ্জীকরণ কর্তৃপক্ষ হিসাবে সক্রিয় থাকবেন এবং তিনি নাগরিক পঞ্জীকরণের রেজিস্ট্রার জেনারেল হিসাবে কাজ করবেন।
(৪) কেন্দ্রীয় সরকার নাগরিক পঞ্জীকরণের, রেজিস্ট্রার জেনারেলকে তাঁর কাজ ও দায়িত্ব পালনে সহায়তা করার জন্য প্রয়োজনীয় অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারী নিয়োগ করতে পারেন।
(৫) ভারতের নাগরিকদের বাধ্যতামূলক পঞ্জীকরণে অনুসরণ করা পদ্ধতিটি যথাক্রমে নির্দেশানুসার হবে।

নির্দিষ্ট আইনের অধীনে প্রণীত নাগরিকত্ব (নাগরিকদের পঞ্জিকরণ এবং জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান) বিধি, ২০০৩।[৫]

৪.ভারতীয় নাগরিকদের জাতীয় পঞ্জীকরণের প্রস্তুতি

(১) কেন্দ্রীয় সরকার, ভারতীয় নাগরিকদের জাতীয় পঞ্জিকরণের উদ্দেশ্যে, একটি স্থানীয় অঞ্চলে বসবাসকারীর নাগরিক অধিকারের হালসহ, প্রতিটি পরিবার এবং ব্যক্তি সম্পর্কিত নির্দিষ্ট বিবরণ সংগ্রহের জন্য দেশজুড়ে ঘরে ঘরে গণনা করবে।
(২) নাগরিক পঞ্জিকরণের রেজিস্ট্রার জেনারেল সরকারী ঘোষনাপত্রে গণনার সময়কাল ও অবধি অবহিত করবেন।
(৩) স্থানীয় রেজিস্ট্রারের প্রস্তুতি এবং ভারতীয় নাগরিকদের অন্তর্ভুক্তির লক্ষ্যে, জনসংখ্যা রেজিস্ট্রারে, প্রতিটি পরিবার এবং এক একটি ব্যক্তির সংগ্রহ করা বিশদগুলি স্থানীয় রেজিস্ট্রারের দ্বারা যাচাই এবং বাছাই করা হবে। স্থানীয় রেজিস্ট্রারকে, নাগরিক পঞ্জীকরণের রেজিস্ট্রার জেনারেল দ্বারা নির্দিষ্ট এক বা একাধিক ব্যক্তি দ্বারা সহায়তা করা যেতে পারে।
(৪) যাচাই প্রক্রিয়া চলাকালীন, যাদের নাগরিকত্ব সন্দেহজনক, এই জাতীয় ব্যক্তির বিশদ বিবরণ, পরবর্তী তদন্তের জন্য স্থানীয় রেজিস্ট্রার দ্বারা জনসংখ্যা রেজিস্ট্রারে যথাযথ মন্তব্য সহ লিখিত হবে এবং যাচাইকরণ প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার সাথে সাথে একটি নির্দিষ্ট রীতি অনুযায়ী সন্দেহজনক নাগরিকত্বের ক্ষেত্রে সেই ব্যক্তি বা পরিবারকে সেই বিষয়ে অবহিত করা হবে।
(৫) ...

২০১৮ সালের ডিসেম্বরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের দ্বারা যেরকম ব্যাখ্যা করা হয়েছে, "১৯৫৫ সালের নাগরিকত্ব আইন ভারতের প্রতিটি নাগরিকের বাধ্যতামূলক পঞ্জীকরণ এবং তাকে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদানের বিধান দেয়। ১৯৫৫ সালের নাগরিকত্ব আইনের আওতায়, ২০০৩ সালের নাগরিকত্ব বিধিমালা, নাগরিকদের জাতীয় পঞ্জীকরণের প্রস্তুতির পদ্ধতি নির্ধারণ করে। আসামের জাতীয় নাগরিক পঞ্জী (এনআরসি) প্রস্তুত করার জন্য বিধিগুলির অধীনে একটি আবেদন- ভিত্তিক বিশেষ বিধান রয়েছে যা ভারতের অন্যান্য অঞ্চল থেকে ভিন্ন যেখানে এটি একটি গণনা ভিত্তিক প্রক্রিয়া।"[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Gupta, Beyond the poll rehetoric 2019
  2. Roychoudhury, Anil (২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৮১), "National Register of Citizens, 1951", Economic and Political Weekly, 16 (8): 267–268, জেস্টোর 4369558 
  3. NRC final list: How and where to check your name on Assam's National Register of Citizens, India Today, 31 August 2019.
  4. BJP Concerned Over NRC in Assam, But Wants Register Across India, The Diplomat, 30 August 2019.
  5. Universal's The Citizenship Act, 1955, Universal Law Publishing Co., 2004.
  6. Gupta, Beyond the poll rehetoric 2019, পৃ. 4।