জাগ্রত চৌরঙ্গী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জাগ্রত চৌরঙ্গী
জাগ্রত চৌরঙ্গী
শিল্পীআবদুর রাজ্জাক
বছর১৯৭৩ সাল
অবস্থানগাজীপুর

জাগ্রত চৌরঙ্গী মুক্তিযুদ্ধের মহান শহীদদের অসামান্য আত্মত্যাগের স্মরণে নির্মিত ভাস্কর্য যা ১৯৭৩ সালে ভাস্কর আবদুর রাজ্জাক নির্মাণ করেন। মুক্তিযুদ্ধের প্রেরণায় নির্মিত এটিই প্রথম ভাস্কর্য। [১]

অবস্থান[সম্পাদনা]

ডান হাতে গ্রেনেড, বাঁ হাতে রাইফেল। লুঙ্গি পরা, খালি গা, খালি পা আর পেশিবহুল এ ভাস্কর্যটি গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর চৌরাস্তার ঠিক মাঝখানে সড়কদ্বীপে অবস্থিত। [১][২][৩]

আকার[সম্পাদনা]

ভিত বা বেদিসহ জাগ্রত চৌরঙ্গীর উচ্চতা ৪২ ফুট ২ ইঞ্চি। ২৪ ফুট ৫ ইঞ্চি ভিত বা বেদির ওপর মূল ভাস্কর্যের ডান হাতে গ্রেনেড ও বাঁ হাতে রাইফেল। কংক্রিট, গ্রে সিমেন্ট, হোয়াইট সিমেন্ট ইত্যাদি দিয়ে ঢালাই করে নির্মিত এ ভাস্কর্যটিতে ১৬ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের ৩ নম্বর সেক্টরের ১০০ জন ও ১১ নম্বর সেক্টরের ১০৭ জন শহীদ সৈনিক ও মুক্তিযোদ্ধাদের নাম উৎকীর্ণ করা আছে।[১][২][৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. জাগ্রত চৌরঙ্গী:মুক্তিযুদ্ধের প্রথম ভাস্কর্য, সাইফুল ইসলাম খান, দৈনিক কালের কণ্ঠ। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ:২৫ মার্চ ২০১২ খ্রিস্টাব্দ।
  2. ঢাকার পাশে গাজীপুর[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ],মুস্তাফিজ মামুন, সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক, ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ২০ এপ্রিল, ২০১০ খ্রিস্টাব্দ।
  3. ঢাকার কাছেই গাজীপুর,দৈনিক সকালের খবর।