চাবা নদী

স্থানাঙ্ক: ৫২°২৫′০৫″ উত্তর ১১৭°৩৯′৩৮″ পশ্চিম / ৫২.৪১৮০৬° উত্তর ১১৭.৬৬০৫৬° পশ্চিম / 52.41806; -117.66056
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
চাবা নদী
ChabaRiver.jpg
চাবা নদী ও চাবা বরফক্ষেত্র
দেশকানাডা
প্রদেশআলবার্টা
অববাহিকার বৈশিষ্ট্য
মূল উৎসচাবা বরফক্ষেত্র
১,৫৯৭ মিটার (৫,২৪০ ফুট)
৫২°১৪′৪৯″ উত্তর ১১৭°৪০′৫২″ পশ্চিম / ৫২.২৪৬৯৪° উত্তর ১১৭.৬৮১১১° পশ্চিম / 52.24694; -117.68111
মোহনাআথাবাস্কা নদী
১,৩৮০ মিটার (৪,৫৩০ ফুট)
৫২°২৫′০৫″ উত্তর ১১৭°৩৯′৩৮″ পশ্চিম / ৫২.৪১৮০৬° উত্তর ১১৭.৬৬০৫৬° পশ্চিম / 52.41806; -117.66056

চাবা নদী কানাডার ব্রিটিশ কলাম্বিয়া ও আলবার্টা প্রদেশের সীমান্তে অবস্থিত একটি ছোট নদী। কানাডীয় রকি পর্বতমালার চাবা বরফক্ষেত্র হতে উৎপন্ন নদীটি আথাবাস্কা নদীতে মিশেছে। দৈর্ঘ্যে ছোট নদীটির মূল যাত্রাপথের বেশীরভাগ অংশ আলবার্টা প্রদেশের অন্তর্গত।[১] ভূতত্ত্ববিদ এ পি কোলম্যান এই নদীর নামকরণ করেন।

প্রবাহ[সম্পাদনা]

চাবা নদী রকি পর্বতমালার মধ্যে প্রবাহিত আথাবাস্কা নদীর অন্যতম উপনদী। চাবা নদীর উৎপত্তি চাবা বরফক্ষেত্র হতে। চাবা বরফক্ষেত্রের চাবা, লিসেনিং ও সান্ডিয়াল চূড়া হতে আগত গলিত বরফ এই নদীর মূল পানি প্রবাহের যোগান দেয়। এছাড়াও কুইন্সি পর্বত হতে নেমে আসা একটি ছোট হিমবাহ নদীটিতে পানি সরবরাহ করে। ক্যাটাকম্ব ও কনফেডারেশন পর্বতের মাঝের গিরিখাতে চাবা নদী, আথাবাস্কা নদীর সাথে মিশেছে।[২]

নামকরণ[সম্পাদনা]

১৮৯৫ সালে পূর্ব কানাডায় জন্মগ্রহণকারী ভূতত্ত্ববিদ এ পি কোলম্যান[৩] এই নদীর বর্ণনা করতে গিয়ে "অনেক বীভারের তৈরী বাঁধ ও গাছ"-এর কথা উল্লেখ করেছিলেন। স্টোনি ইন্ডিয়ান জাতিগোষ্টির ভাষায় 'চাবা' শব্দের অর্থ বীভার, যা একটি স্তন্যপায়ী প্রাণী। বীভার জলপ্রবাহের গতিপথে প্রাকৃতিক বাঁধ নির্মাণ করতে পারে।[২] বীভারের বিচরণ বেশি থাকার কারণে তিনি এই নদীর নাম 'চাবা' রেখেছিলেন।[৩]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Mussio Ventures. Central Alberta Backroad Mapbook. Burnaby: Backroad Mapbooks (2002)
  2. Karamitsanis, Aphrodite (1991). Place Names of Alberta, Volume 1. Calgary: University of Calgary Press, pg. 45
  3. Coleman, A.P. (১৮৯৫)। "Mount Brown and the Sources of the Athabasca"The Geographical Journal। Royal Geographical Society। 5: 53–61। ডিওআই:10.2307/1773875। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৭-১০