গায়ত্রী অশোকান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গায়ত্রী অশোকান
Gayatri Asokan.jpg
জন্ম২ মার্চ, ১৯৭৯
ত্রিশূর, কেরালা, ভারত
পেশাসংগীতশিল্পী
কার্যকাল২০০০-বর্তমান

গায়ত্রী অশোকান একজন গায়িকা, যিনি মালয়ালাম চলচ্চিত্রের নেপথ্য সঙ্গীতশিল্পী। চলচ্চিত্রে গান গাওয়া ছাড়াও তিনি অ্যালবামের ও জিঙ্গেলের জন্য গানে সুরারোপ করে থাকেন। তিনি ভজন, হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীতগজলে সুদক্ষ।আরায়ান্নাগালুদে ভিদু চলচ্চিত্রে 'দিনা দায়ালো রামা' গানটি গাওয়ার মাধ্যমে তাঁর প্লেব্যাক জগতে অভিষেক ঘটে।সস্নেহম সুমিত্রা চলচ্চিত্রে 'এন্থে নি কান্না' গানটি গাওয়ার জন্য তিনি ২০০৩ সালে সেরা গায়িকার জন্য কেরালা রাজ্য চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

শ্রী মঙ্গত নাটেসান ও শ্রী বামনন নাম্বুদিরির কাছে সংগীতের তালিম নিয়েছিলেন তিনি। এরপর ড. অলকা দেও মারুলকার ও পন্ডিত বিনায়ক তোরভির কাছ থেকে সংগীতের তালিম নিয়েছিলেন তিনি।

তিনি শ্রী শ্রী রবিশংকরের প্রভাবে প্রভাবান্বিত এবং আর্ট অব লিভিং ফাউন্ডেশনের একজন সক্রিয় সদস্য।

তিনি একজন হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীত গায়িকা ও ভজন গায়িকা। তিনি কনসার্টে চলচ্চিত্রের গানের পাশাপাশি হিন্দুস্তানি শাস্ত্রীয় সংগীত পরিবেশন করে থাকেন। তিনি বিভিন্ন অ্যালবামের গানে কণ্ঠ মিলিয়েছেন। ২০০৬ সালে এইচএমভি গ্রুপের ব্যানারে আর্ট অব লিভিং ফাউন্ডেশন একটি অ্যালবাম বের করে। অ্যালবামটি গোটা বিশ্বব্যাপী মুক্তি পায়। অ্যালবামটির সাথে যুক্ত ছিলেন তিনি।

তিনি এস. পি. বালাসুব্রামানিয়াম, কে জে যেসুদাস, জয়া চন্দ্রন, এস জানকী, শঙ্কর মহাদেবন, মধু বালাকৃষ্ণণপ্রদীপ সোমসুন্দরনের মত শিল্পীদের সাথে একই মঞ্চে গান গেয়েছেন। তিনি সম্প্রতি ইলায়ারাজার থিরুভাসাগাম অ্যালবামে গান গেয়েছেন। অ্যালবামটি সোনি মিউজিক ইন্ডিয়ার ব্যানারে মুক্তি পেয়েছে।

অন্যান্য কর্মকাণ্ড[সম্পাদনা]

তিনি ত্যাগরাজা সভা, ভারতম ও তিরুবনন্তপুরমের সূর্য উৎসবে সংগীত পরিবেশন করেছেন। তিনি মধ্যপ্রাচ্য, মালয়েশিয়া, যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে সংগীত পরিবেশন করেছেন।

তিনি এশিয়ানেট, কইরালি টিভি, জীবন টিভি ও অমৃতা টিভিতে নিয়মিত গান গেয়ে থাকেন। কইরালি টিভির 'গন্ধর্ব সংগীথাম' অনুষ্ঠানটি জি. ভেনুগোপালের সাথে যৌথভাবে উপস্থাপনা করে থাকেন। অনুষ্ঠানটি কেরালা প্রদেশের সংগীত প্রতিভা বের করে আনতে কাজ করে চলেছে। তিনি অমৃতা টিভির সুপারস্টার গ্লোবাল নামের একটি রিয়েলিটি শোতে বিচারক হিসেবে কাজ করেছেন। বর্তমানে তিনি মিডিয়া ওয়ান টিভির জনপ্রিয় গজল অনুষ্ঠান খেয়াল উপস্থাপনা করছেন।[১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

গায়ত্রী অশোকান, ড. পি. ইউ. অশোকান ও ড. কে. এস. সুনিধির সন্তান। ২০০৫ সালের জানুয়ারি মাসের চার তারিখে ড. সায়িজের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। পরে তাঁদের মাঝে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে।[২]

শ্রী শ্রী রবিশংকরের শিষ্যা হিসেবে গায়ত্রী অশোকান সারা বিশ্বজুড়ে আর্ট অব লিভিং সৎসঙ্গে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করে থাকেন।

২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসের চার তারিখে তিনি সেতারবাদক পূর্বায়ন চ্যাটার্জির সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

পুরস্কার[সম্পাদনা]

২০০৩ সালে সস্নেহম সুমিত্রা চলচ্চিত্রে 'এন্থে নি কান্না' গানটি গাওয়ার জন্য সেরা গায়িকা হিসেবে কেরালা রাজ্য চলচ্চিত্র পুরস্কার জিতেন। ২০০৭ সালে তিনি আর্ট অব লিভিং পুরস্কার জিতেন। হরিচন্দনম চলচ্চিত্রে গান গাওয়ার জন্য ২০১১ সালে সেরা প্লেব্যাক গায়িকা হিসেবে এশিয়ানেট টেলিভিশন পুরস্কার জিতেন। এর পরের বছর অগ্নিপুত্রি চলচ্চিত্রে গান গাওয়ার জন্য আবারো সেরা নেপথ্য সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে এশিয়ানেট টেলিভিশন পুরস্কার জিতেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৯ মে ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৯ 
  2. http://www.jithumpa.com/films/34-divorces-in-malayalam-film-industry/