গণদেবতা এক্সপ্রেস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গণদেবতা এক্সপ্রেস[১]
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
পরিষেবা ধরনএক্সপ্রেস
স্থানপশ্চিমবঙ্গ
বর্তমান পরিচালকপূর্ব রেলওয়ে
যাত্রাপথ
শুরুহাওড়া জংশন
বিরতি১৩
শেষআজিমগঞ্জ জংশন
ভ্রমণ দূরত্ব২৮০ কিমি (১৭০ মাইল)
যাত্রার গড় সময়৭ ঘণ্টা
পরিষেবার হারপ্রতিদিন
যাত্রাপথের সেবা
শ্রেণীCC Class (এসি চেয়ার-কার), 2S (দ্বিতীয় শ্রেণীর সিট), General (সাধারণ)
আসন বিন্যাসহ্যাঁ
খাদ্য সুবিধানা
কারিগরি
ট্র্যাক গেজ১,৬৭৬ মিলিমিটার (৫ ফুট ৬ ইঞ্চি)
পরিচালন গতি৪০ কিমি/ঘণ্টা (২৫ মাইল/ঘণ্টা)। স্টপেজ নিয়ে গড় গতিবেগ।
Gandevata and Hool exp.jpg

গণদেবতা এক্সপ্রেস একটি অতীব গুরুত্বপূর্ণ যাত্রীবাহী মেল/এক্সপ্রেস। ট্রেনটি দিনের বেলায় চলে। ট্রেনটি হাওড়া স্টেশন(কলকাতা) এবং আজিমগঞ্জ জংশন (মুর্শিদাবাদ জেলা, পশ্চিমবঙ্গ) কে সংযুক্ত করছে।  ট্রেনটি একটি ডিজেল ইঞ্জিন দ্বারা চালিত হয়।

গণদেবতা এক্সপ্রেস তারাপীঠের তীর্থযাত্রীদের একটি পছন্দের গাড়ি। সকাল ছটা বেজে পাঁচ মিনিটে ট্রেনটি হাওড়া স্টেশন থেকে ছেড়ে সকাল দশটায় রামপুরহাট পেরিয়ে দুপুর বারোটায় আজিমগঞ্জ পৌঁছায়। ট্রেনটির যাত্রাপথ ২৭৮ কিলোমিটার। গড় গতিবেগ থাকে ৪২কিমি/ঘণ্টা। ট্রেনটিতে এসি কোচ বলতে শুধু এসি চেয়ার কার। এসি চেয়ার কার এবং সেকেন্ড সিটিং চেয়ার কার এর সিটগুলি আগে থেকে বুকিং করে বসতে হয়। কোনো প্যান্ট্রি(খাবার কামরা) নেই।

যাত্রাপথের কয়েকটি উল্লেখযোগ্য স্টপেজ হল  বর্দ্ধমান ( সকাল ৭ঃ৪৬), বোলপুর-শান্তিনিকেতন (সকাল ৮ঃ৪৪), সাঁইথিয়া রামপুরহাট (সকাল ১০ঃ০৫)। 

গুরুত্বপূর্ণ দাঁড়ানোর স্টেশনগুলি[সম্পাদনা]

  1. হাওড়া জংশন ।
  2. ব্যান্ডেল জংশন।
  3. বর্ধমান জংশন।
  4. বোলপুর-শান্তিনিকেতন জংশন।
  5. প্রান্তিক রেলওয়ে স্টেশন।
  6. আহমদপুর জংশন।
  7. রামপুরহাট জংশন।
  8. নলহাটি জংশন।
  9. আজিমগ্ঞ্জ জংশন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]