গজেন্দ্র বর্মা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গজেন্দ্র বর্মা
Gajendra Verma.jpg
প্রাথমিক তথ্য
জন্ম (1990-04-20) ২০ এপ্রিল ১৯৯০ (বয়স ৩০)
সির্সা, হরিয়ানা, ভারত
পেশাগায়ক
সুরকার
গীতিকার
সাউন্ড রেকর্ডার
বাদ্যযন্ত্রসমূহভোকালস, গিটার
কার্যকাল২০০৮–বর্তমান
ওয়েবসাইটgajendraverma.com

গজেন্দ্র বর্মা একজন ভারতীয় গায়ক, সুরকার, গীতিকার এবং সাউন্ড রেকর্ডার[১][২]। তিনি স্পটলাইটের অধীনে এসেছেন যখন তিনি দাবি করেন যে তার প্রকাশিত গান, "এম্পটিনেস" শিরোনামে যা "তুনে মেরে জানা" নামেও পরিচিত, যেটি তিনি সাড়ে সাত বছর আগে রচনা করেছিলেন, যেখানে রোহান রাঠোর নামে এক আইআইটি ছাত্রের একটি মিথ্যা সহানুভূতিশীল গল্পের কাহিনী সম্পর্কিত তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে।[৩][৪] তার ২০১৮ সালের গান তেরা ঘাটা ইউটিউবেরে ৪৫০+ মিলিয়ন ভিউ অর্জন করে।[৪][৫]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

গজেন্দ্র বর্মা ২০ এপ্রিল ১৯৯০ সালে হরিয়ানার সির্সায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি রাজস্থান রাজ্যের জয়পুরে বেড়ে ওঠেন। তার পিতা সুরেন্দর বর্মা একজন সুপরিচিত কবি এবং থিয়েটার ব্যক্তিত্ব। তার বড় ভাই বিক্রম সিং একজন সঙ্গীত প্রযোজক, সঙ্গীত পরিচালক এবং সুরকার। তার প্রথম গান "তুনে মেরে জানা" সোনোটেক (হরিয়ানার বিখ্যাত সঙ্গীত চ্যানেল) এর সমর্থনে মুক্তি পায়।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

২০০৮ সালে গজেন্দ্র বর্মা তার ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন, এম্পটিনেস গানটি দিয়ে যা "তুনে মেরা জানা" নামেও পরিচিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "I have evolved as a musician, says Gajendra Verma"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০১-২২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-১১ 
  2. "Gajendra Verma: Latest News, Videos and Photos of Gajendra Verma | Times of India"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-১১ 
  3. Sharma, Neha (২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১১)। "The mystery of Rohan Rathore"Hindustan Times। সংগ্রহের তারিখ ১ ডিসেম্বর ২০১৩ 
  4. "'तूने मेरे जाना' वाला सिंगर, जिसका दूसरा गाना दशकभर बाद लड़कियों के अश्लील वीडियो से हिट हुआ"LallanTop - News with most viral and Social Sharing Indian content on the web in Hindi (হিন্দি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-১১ 
  5. Gajendra Verma (১৮ মে ২০১৮)। "Tera Ghata – Gajendra Verma Ft. Karishma Sharma – Vikram Singh – Official Video"। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ – YouTube-এর মাধ্যমে। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]