ক্রিস্টোফার কলম্বাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ক্রিস্টোফার কলম্বাস
ইন্ডিজের গভর্নর
কাজের মেয়াদ
১৪৯২ – ১৪৯৯
উত্তরসূরীফ্রান্সিস্কো দে বোবাদিল্লা
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম৩১ শে অক্টোবর ১৪৫১ খ্রীস্টাব্দের পূর্বে
জেনোয়া, ইটালী
মৃত্যু২০ শে মে ১৫০৬, বয়স ৫৪ বছর
ভালাদোলিদ , ক্যাস্টিল রাজ্য (বর্তমান স্পেন)
দাম্পত্য সঙ্গীফিলিপা মনিজ পেরেস্টেরো
পেশানৌঅভিযাত্রী
অ্যালিজও ফার্নান্দেজের আঁকা ক্রিস্টোফার কলম্বাসের প্রতিকৃতি (সময়কাল:১৫০৫ থেকে ১৫৩৬)

ক্রিস্টোফার কলম্বাস (লাতিন: Christophorus Columbus ক্রিস্তোফোরুস্‌ কোলুম্বুস্‌; ইতালীয়: Cristoforo Colombo ক্রিস্তোফোরো কোলোম্বো; স্পেনীয়: Cristóbal Colón ক্রিস্তোভ়াল্‌ কোলোন্‌) (আনু. ১৪৫১-মে ২০, ১৫০৬) ছিলেন ইতালীয় নাবিকঔপনিবেশিক। তাঁর আমেরিকা অভিযাত্রা ঐ অঞ্চলে ইউরোপীয়দের উপনিবেশ স্থাপনের সূচনা করেছিল।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ক্রিস্টোফার কলম্বাসের বাংলা নাম আসে ইংরেজি Christopher Colombus ক্রিস্টফার্‌ কলাম্বাস্‌ হতে, যা মূলতঃ লাতিন Christophorus Columbus ক্রিস্তোফোরুস্‌ কোলুম্বুস্‌ হতে এসেছে। ইতালির জেনোয়া শহরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন বলে কলম্বাসের আসল নাম ইতালীয় ভাষায় Cristoforo Colombo ক্রিস্তোফোরো কোলোম্বো ছিল, কিন্তু তিনি যখন তৎকালীন ক্যাস্টিল রাজ্যের (বর্তমান স্পেনে) রাণী ইসাবেলের অনুদানে আমেরিকায় অভিযাত্রা করেন, তিনি তাঁর নামের স্পেনীয় রূপ Cristóbal Colón ক্রিস্তোভ়াল্‌ কোলোন্‌ দ্বারা পরিচিত ছিলেন।

ক্রিস্টোফার কলম্বাস (১৪৫১-১৫০৬) ইতালির বন্দর শহর জেনোয়া থেকে এসেছিলেন। তরুণ বয়সে তিনি সমুদ্রযাত্রা করেন। ১৪৭৭ সালের দিকে তিনি পর্তুগালের লিসবনে চলে যান। সেখান থেকে তিনি ভূমধ্যসাগর এবং আটলান্টিক মহাসাগরীয় বাণিজ্যিক বন্দরগুলোতে নৌ অভিযান পরিচালনা করেন। ১৪৮৩ সালে পর্তুগালের রাজা জন দ্বিতীয়র কাছে কলম্বাস তাঁর পরিকল্পনা জমা দেন। তাতে ছিল আটলান্টিক হয়ে পশ্চিমের দিকে ইন্ডিজে (এশিয়া) যাওয়ার পরিকল্পনা। রাজা যখন তাঁর পরিকল্পনায় রাজি হলেন না, তখন তিনি তা স্পেনের রাজা ও রাণীর কাছে পেশ করেন। স্পেনের রাজদরবার তার অভিযান অনুমোদন করেন এবং তাকে ইন্ডিজ দ্বীপপুঞ্জের ভাইসরয় হিসাবে নিযোগ দেন।

আটলান্টিক অভিযান[সম্পাদনা]

১৪৯১ সালে আটলান্টিক অভিযানে তিনি ব্যবহার করেছিলেন ‘রহস্যময়’ এক মানচিত্র। অভিযানের শুরু থেকে পুরো সময়টায় তাকে আলোর দিশা দিয়েছে এই মানচিত্রটি। অন্যকথায় বলা যায়, এই মানচিত্রটিকে ঘিরেই পরিকল্পনা নির্ধারণ করতেন ক্রিস্টোফার কলম্বাস।

এই মানচিত্রটি ছিল জার্মান মানচিত্রকার হেনেরিকাস মারটেলাসের তৈরি করা। অবশ্য এই মানচিত্র প্রস্তুতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল আরো কিছু কিংবদন্তীর। বহু পুরনো সেই মানচিত্রটি সময়ের ব্যবধানে এক সময় অনেকটাই নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। [১]

কলম্বাস কিউবা আবিষ্কার করেন।

আমেরিকা মহাদেশের ঠিক কোথায় কলম্বাস জাহাজ থেকে নেমেছিলেন তা নিয়ে শত শত বছর ধরে বিতর্ক চলেছে।

অন্তত ১০টি স্থানের বাসিন্দারা দাবি করেন যে কলম্বাস তাদের সেই জায়গাগুলিতেই প্রথম পদধূলি দেন।

তবে আমেরিকায় নামার পর কলম্বাস ভেবেছিলেন তিনি জাপানে পৌঁছেছেন।[২]

দ্বিতীয় অভিযাত্রা[সম্পাদনা]

কলম্বাস তার দ্বিতীয় অভিযাত্রায় ক্যারিবিয়ান সাগরে ডোমিনিকা আবিষ্কার করেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

[৪]

  1. "Map" 
  2. "Japan" 
  3. "Dominica" 
  4. http://www.vanderkrogt.net/columbus/texts/portrait.html