কার্বন-১২

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
কার্বন-১২
সাধারণ
নাম, প্রতীক Carbon,১২C
নিউট্রন
প্রোটোন
বিক্রিয়াকারী কেন্দ্রীণ ডাটা
প্রাকৃতিক প্রাচুর্য ৯৮.৯৩%
উর্ধ্বস্থ আইসোটোপ ১২Nটেমপ্লেট:Infobox isotope/Decay
12Bটেমপ্লেট:Infobox isotope/Decay
আইসোটোপ ভর ১২ u
স্পিন 0
মাত্রাধিক্য শক্তি 0± 0 keV
Binding শক্তি ৯২১৬১.৭৫৩± ০.০১৪ keV

Carbon-12 কার্বনের দুইটি সুস্থিত আইসোটোপের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায়। কার্বনের উপাদানের মধ্যে এর পরিমাণ ৯৮.৯৩%।[১] নক্ষত্রের অভ্যন্তরে সৃষ্টি হওয়া এর আধিক্যের কারণ হল ত্রি-আলফা প্রক্রিয়া। কার্বন-১২ সুনির্দিষ্টভাবে গুরুত্বপূর্ণ ;কারণ পারমাণবিক ভরের সকল নিউক্লিডস পরিমাপনের জন্য একে আদর্শ বা স্ট্যান্ডার্ড ধরা হয়। সংজ্ঞানুসারে এর ভর সংখ্যা ১২ এবং এটি ৬টি প্রোটন, ৬টি নিউট্রন এবং ৬টি ইলেক্ট্রন ধারণ করে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৫৯ সালের পূর্বে IUPAP এবং IUPAC উভয় সসংগঠনই অক্সিজেনকে মোলের সংজ্ঞায়নে ব্যবহার করত; রসায়নবিদরা মোলের সংজ্ঞায়ন করতো; অক্সিজেন এর পরমাণুর সংখ্যা ধরে, যেহেতু অক্সিজেনের ১৬ গ্রাম। পদার্থবিদরা প্রায় একইরুপ সংজ্ঞা ব্যবহার করতো, তবে তারা অক্সিজেন-১৬ আইসোটোপ কে এখানে ব্যবহার করতো। দুইটি সংগঠনই ১৯৫৯/৬০ সালে একমত হয়ে মোলের সংজ্ঞা নির্ধারণ করে; যা নিম্নে উদ্ধৃত হলো:

মোল হলো একটি ব্যবস্থার পদার্থের পরিমাণ; যা বিভিন্ন উপাদান ধারণ করে, যেখানে কার্বন-১২ এর ১২ গ্রাম পরমাণু আছে; এর প্রতীক হল mol

(The mole is the amount of substance of a system which contains as many elementary entities as there are atoms in 12 gram of carbon 12; its symbol is "mol".)

এটি ১৯৬৭ সালে CIPM (International Committee for Weights and Measures) এবং ১৯৭১ সালে ১৪ তম CGPM (General Conference on Weights and Measures) অধিবেশনে গৃহীত হয়

১৯৬১ সালে কার্বন-১২ আইসোটোপকে; অক্সিজেনের পরিবর্তে আদর্শিক মান হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। আর এটি দ্বারা পারমাণবিক ভর ও অন্যান্য উপাদান পরিমাপ করা হয়.।[২]

১৯৮০ সালে CIPM উপরোক্ত সংজ্ঞার সংশোধন করে; কার্বন-১২ পরমাণু মুক্ত এবং তাদের ground state

হয়েল স্টেট[সম্পাদনা]

Hoyle state হচ্ছে কার্বন-১২ এর উত্তেজিত, স্পিনলেস, resonant state। এটা উৎপন্ন হয়েছে ত্রি-আলফা প্রক্রিয়ায় এবং এর অস্তিত্বের সম্বন্ধে ১৯৫৪ সালে ফ্রেড হয়েল ভবিষ্যৎবাণী করেন।[৩] হয়েল স্টেটের অস্তিত্ব থাকা; হিলিয়াম দহন হয় এমন রক্তিম দৈত্যাকার নক্ষত্রের অভ্যন্তরে কার্বনের নিউক্লিওসিন্থেসিসের জন্য প্রয়োজনীয়। স্টেলার পরিস্থিতিতে কার্বনের পরিমাণের ধারণা পাওয়া যায়; যা পর্যবেক্ষণের সাথে মিলে যায়। হয়েল স্টেটের অস্তিত্ব যে আছে, তা পরীক্ষণীয়ভাবে প্রমাণিত; তবে এর সূক্ষ্ম বৈশিষ্ট্যগুলো এখনো তদন্তাধীন।[৪] ২০১১ সালে কার্বন-১২ low-lying এর এবি আনুপাতিক ক্যালকুলেশন থেকে (অধিক সংযোজন গ্রাউন্ড এবং উত্তেজিত স্পিন-২ স্টেট) হয়েল স্টেটের সকল বৈশিষ্ট্যের (properties) অনুরণন পাওয়া গিয়েছিল।[৫][৬]

আইসোটোপের পরিশোধন[সম্পাদনা]

কার্বনের আইসোটোপ পৃথক হয়ে যায়, যখন এমাইন কার্বামেটের সাথে রাসায়নিক প্রতিস্থপন বিক্রিয়া সংগঠিত হয়ে কার্বন-ডাই-অক্সাইড গ্যাস গঠিত হয়।[৭]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. "Table of Isotopic Masses and Natural Abundances" (PDF)। ১৯৯৯। 
  2. "Atomic Weights and the International Committee — A Historical Review"। ২০০৪-০১-২৬। 
  3. Hoyle, F. (১৯৫৪)। "On Nuclear Reactions Occurring in Very Hot Stars. I. the Synthesis of Elements from Carbon to Nickel."। The Astrophysical Journal Supplement Series1: 121। doi:10.1086/190005আইএসএসএন 0067-0049বিবকোড:1954ApJS....1..121H 
  4. Chernykh, M.; Feldmeier, H.; Neff, T.; Von Neumann-Cosel, P.; Richter, A. (২০০৭)। "Structure of the Hoyle State in C12" (PDF)Physical Review Letters98 (3): 032501। doi:10.1103/PhysRevLett.98.032501PMID 17358679বিবকোড:2007PhRvL..98c2501C 
  5. Epelbaum, E.; Krebs, H.; Lee, D.; Meißner, U.-G. (২০১১)। "Ab Initio Calculation of the Hoyle State" (PDF)Physical Review Letters106 (19): 192501। arXiv:1101.2547অবাধে প্রবেশযোগ্যdoi:10.1103/PhysRevLett.106.192501PMID 21668146বিবকোড:2011PhRvL.106s2501E [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  6. Hjorth-Jensen, M. (২০১১)। "Viewpoint: The carbon challenge"Physics4: 38। doi:10.1103/Physics.4.38বিবকোড:2011PhyOJ...4...38H 
  7. Kenji Takeshita and Masaru Ishidaa (ডিসেম্বর ২০০৬)। "Optimum design of multi-stage isotope separation process by exergy analysis"। ECOS 2004 - 17th International Conference on Efficiency, Costs, Optimization, Simulation, and Environmental Impact of Energy on Process Systems31 (15): 3097–3107। doi:10.1016/j.energy.2006.04.002 


হালকা:
carbon-11
কার্বন-১২ হল একটি
carbon এর আইসোটোপ
ভারী:
carbon-13
boron-12, nitrogen-12 এর
ক্ষয়প্রাপ্ত বস্তু
কার্বন-১২ এর
ক্ষয় শৃঙ্খলা
ক্ষয় এর পর:
stable