কর্নেলিয়া জোন্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কর্নেলিয়া জোন্স
কর্নেলিয়া জোন্স.jpg
জন্ম
কর্নেলিয়া রোসিনা জোন্স

(১৯০৭-০৯-১০)১০ সেপ্টেম্বর ১৯০৭
এসটি. জোন্স, সাবা (ডাচ এম্পায়ার এর অংশ)
মৃত্যু২৩ ডিসেম্বর ১৯৭৯(1979-12-23) (বয়স ৭২)
সাবা, নেদারল্যান্ড
জাতীয়তাডাচ
অন্য নামকাটচি জোন্স
পেশাপান্থশালার মালিক, রাজনীতিবিদ

কর্নেলিয়া জোন্স (১০ সেপ্টেম্বর ১৯০৭- ২৩ ডিসেম্বর ১৯৭৯) ছিলেন সাবা এর একজন ডাচ নারী যিনি সরকারী গেষ্টহাউস পরিচালনা করতেন এবং আইল্যান্ড কাউন্সিল এর প্রথম নারী পরিবেশক। তিনি উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ড এর প্রথম নারী কর্মকর্তা ছিলেন। সাবায় তার কার্যক্রম এর জন্য রানী জুলিয়ানা অব নেদারল্যান্ড এর কাছ থেকে সম্মানিত হন।[১]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

কর্নেলিয়া রোসিনা জোন্স ওরফে কাটচি ১০ সেপ্টেম্বর ১৯০৭ সালে সাবা দ্বীপের সেন্ট জনস এ জন্মগ্রহন করেন। তার বাবা ছিলেন ছিলেন একজন কৃষ্ঝাঙ্গ নাবিক এবং মা ছিলেন একজন স্বেতাঙ্গ দ্বীপবাসিনিী। তার দুই বড় ভাই এবং একটি ছোট ভাই আছে। [২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

জোন্স সরকারী গেষ্টহাউজ পরিচালনা করতেন যা ভ্রমনকারীদের জন্য প্রসিদ্ধ জায়গা হিসেবে পরিচিত ছিলো। জোন্স সম্পূর্ন সম্পত্তির দেখাশোনা করতেন যার মধ্যে ছিলো একটি আঞ্চলিক সরকার নির্মিত দ্বিতল ভবন, পার্লার, গ্রন্থাগার, ডাইনিং রুম এবং রান্নাঘর। তিনি তার কার্যক্রম এর জন্য উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাদের কাছে আলোচিত হতে থাকেন।

১৯৫১ সালে জোন্স রাজনীতিতে নাম লেখান। তিনি উরসুলা ড্রাংকলিন হিউজেস এবং মিলিসেন্ট এল. উইলসন কে নিয়ে আঞ্চলিক কাউন্সিল নির্বাচনে যান। তিনজন নারী প্রার্থীর মধ্যে তারা কেবল মাত্র ৩ টি ভোট পান। ১৯৫৩ সালে যখন কেনিথ পিটার্সন অবসরে যান তখন তার বদলে জোন্স নিযুক্ত হন এবং ১৯৫৪ সালে এই অ্রঞ্চলের দায়ীত্ব পালন করেন।

তিনি পুনরায় ১৯৫৩ সালের মেয়াদের জন্য নির্বাচনে লড়েন, যদিও তিনি নির্বাচনে জিততে পারেন নি তবুও তাকে সম্মানের সহিত এই পদে নির্বাচিত করা হয়। ১৯৫৫ সালে ডেভেলপার রা সরকারী গেষ্টহাউস কে উচ্চ মানের হোটেল এ রুপান্তর এর প্রস্তাব দিলে কাউন্সিল দ্বারা তা প্রত্যাখান করা হয়, কারন জোন্স এর বহাল থাকার ব্যাপারে ডেভেলপার রা কোন নিশ্চয়তা দিতে পারেন নি। অনেক বছর যাবৎ সরকারী গেষ্টগাউস দেখাশোনা করার পরে তিনি উইন্ডওয়ার্ডসাইড গেষ্টহাউস এর মালিক হন। সাবা দ্বীপে অনেকদিন সেবা দেওয়ার কারনে তিনি নেদারল্যান্ড এর রানী জুলিয়ানা দ্বারা সম্মানিত হন।[৩]

মৃত্যু এবং উত্তরাধিকার[সম্পাদনা]

জোন্স ২৩ ডেসেম্বর ১৯৭৯ সালে মারা যান। তাকে পারিবারিক বাসভবন এর পাশে সমাহিত করা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Hornos, Axel; Hornos, Mary (২১ আগস্ট ১৯৬০)। "Visit to Saba: Guest Book Puts Spotlight on Miss Cornelia Jones"। Rochester, New York: Democrat and Chronicle। পৃষ্ঠা 86। সংগ্রহের তারিখ ৪ নভেম্বর ২০১৭Newspapers.com-এর মাধ্যমে।  উন্মুক্ত প্রবেশাধিকারযুক্ত প্রকাশনা - বিনামূল্যে পড়া যাবে
  2. Johnson, Will (১৫ আগস্ট ২০০৯)। "Under the Sea Grape Tree: Miss Cornelia Jones First Woman Member of the Island Council" (PDF)। Philipsburg, St. Maarten: The Daily Herald। ৪ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ নভেম্বর ২০১৭ 
  3. Johnson, Will (২১ জুন ২০০৮)। "Under the Sea Grape Tree: The Women of Saba" (PDF)। Philipsburg, St. Maarten: The Daily Herald। ৪ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ নভেম্বর ২০১৭