কচুরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
কচুরি
উৎপত্তিস্থল  ভারত  বাংলাদেশ
অঞ্চল বা রাজ্য ভারতীয় উপমহাদেশ
পরিবেশন তাপমাত্রা গরম অথবা স্বাভাবিক তাপমাত্রা
প্রধান উপকরণ ময়দা, ঘি
রান্নার বই: কচুরি  মিডিয়া: কচুরি
কচুরি সাধারণত তরকারি দিয়ে খাওয়া হয়।

কচুরি ভারতীয় উপমহাদেশ অর্থাৎ ভারত, বাংলাদেশ এবং পাকিস্থানের একটি মুখরোচক খাবার। ময়ান ও পুর ভেদে বিভিন্ন রকমের কচুরি প্রস্তুত করা হয়।

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

সংস্কৃত ভাষায় কচুরি পূরিকা হিসাবে সমাদৃত।[১]

দেব ভোগ[সম্পাদনা]

নবদ্বীপের বিভিন্ন মঠ ও মন্দিরে শীতকালে কড়াইশুঁটির কচুরির মাধ্যমে দেবতাদের ভোগ নিবেদন করা হয়ে থাকে।

খাদ্যগুণ[সম্পাদনা]

কচুরি সুস্বাদু, রুচিকর, স্নিগ্ধ, গুরুপাক, বলকারক, শুক্রবর্ধক,বায়ু ও রক্ত-পিত্ত রোগে উপকারি।

ময়ান[সম্পাদনা]

কচুরির উৎকর্ষতা ময়ান অর্থাৎ ঘি-এর পরিমানের উপর নির্ভরশীল। সাধারনতঃ এক সের (০.৯৩৩ কেজি) ময়দার সঙ্গে আধ পোয়া (০.১১৭ কেজি)থেকে দেড় পোয়া (০.৩৫০ কেজি) পর্যন্ত ময়ান দেওয়া হয়ে থাকে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. রায়, প্রণব (জুলাই ১৯৮৭)। বাংলার খাবার। কলকাতা: সাহিত্যলোক। পৃষ্ঠা ৩৪-৩৫।