ওরেয় বুজ্জিগা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ওরেয় বুজ্জিগা
ওরেয় বুজ্জিগা পোস্টার.jpg
চলচ্চিত্র মুক্তির পোস্টার
পরিচালকবিজয় কুমার কোন্ডা
প্রযোজককে. কে. রাধামোহন
রচয়িতাবিজয় কুমার কোন্ডা
শ্রেষ্ঠাংশেরাজ তরুণ
মালবিকা নায়ার
বাণী বিশ্বনাথ
হেবাহ প্যাটেল
সুরকারঅনুপ রুবেনস
চিত্রগ্রাহকআই অ্যান্ড্রু
সম্পাদকপ্রবীণ পুড়ি
পরিবেশকআহা
মুক্তি
  • ২ অক্টোবর ২০২০ (2020-10-02)
দৈর্ঘ্য১৫৩ মিনিট
দেশভারত
ভাষাতেলুগু

ওরেয় বুজ্জিগা (অনু. আরে বুজ্জি) হল ২০২০ সালে একটি ভারতীয় তেলুগু ভাষার কৌতুকাবহ প্রণয়কাহিনীমূলক চলচ্চিত্র। এতে রাজ তরুণ এবং মালবিকা নায়ার মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন। ছবিটি পরিচালনা করেছেন বিজয় কুমার কোন্ডা এবং প্রযোজনা করেছেন কে. কে. রাধামোহন। প্রাথমিকভাবে চলচ্চিত্রটির মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ২০২০ সালের ২৫শে মার্চ, কিন্তু কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে মুক্তি স্থগিত রাখা হয়েছিল। চলচ্চিত্রটি ২০২০ সালের ২রা অক্টোবর আহা পরিষেবায় সরাসরি মুক্তি পেয়েছে।[১]

গল্প[সম্পাদনা]

ছবির গল্প শুরু হয় নিদুদাভলুতে, দেখা যায় বুজ্জির (রাজ তরুণ) বাবা-মা তার বিবাহের জন্য একটি কন্যা স্থির করেছে। এতে মর্মাহত হয়ে সে তার শহর ছেড়ে চলে যায়। একই সময়ে, কৃষ্ণবেণীও (মালবিকা নায়ার) একই কারণে বাড়ি ছেড়ে হায়দরাবাদে পালিয়ে যায়। কিন্তু পুরো শহরের মানুষজন ভাবতে থাকে যে বুজ্জি কৃষ্ণবেনীকে নিয়ে পালিয়েছে। কৃষ্ণবেণী যখন এ বিষয়টি জানতে পারে, তখন তার বুজ্জির ওপরেই রাগ হয়। কাহিনীর মোড় ঘোরে যখন কৃষ্ণবেণীর সঙ্গে বুজ্জির দেখা হয়, কিন্তু সীনু নামে। তাদের মধ্যে প্রেম সঞ্চারিত হয়। হঠাৎ কোন একদিন, বুজ্জি জানতে পারে যে, কৃষ্ণবেণীই সেই মেয়ে যে তার শহর থেকে পালিয়ে এসেছে এবং তাকে ঘৃণা করে। এরপর কিভাবে বুজ্জি সমস্ত কিছু ঠিক করে দেয় এবং কৃষ্ণবেণীর ভালবাসা জিতে নেয়, সেই নিয়েই গল্পের বাকী অংশটি গড়ে উঠেছে।

চরিত্র চিত্রণ[সম্পাদনা]

সাউন্ডট্র্যাক[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটির সাউন্ড ট্র্যাকে পাঁচটি গান রয়েছে, সেগুলি ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে। গানগুলিতে সুর করেছেন অনুপ রুবেনস

গানের তালিকা

নং.শিরোনামগীতিকারগায়কদৈর্ঘ্য
১."ই মায়া পেরেমিতো"কিট্টু বিশ্বপ্রগাড়াসিড শ্রীরাম৪:১৬
২."কুরিসেনা"কৃষ্ণ কণ্ঠআরমান মালিক, পি মেঘনা৪:০৯
৩."কৃষ্ণবেণী"শ্যাম কাসারলারাহুল সিপলীগঞ্জ৩:৪৭
৪."সারিগামা"বনমালীঅনুপ রুবেনস৩:০২
৫."কলালু চুসিনা কান্নুলে"শ্যাম কাসারলাসিড শ্রীরাম২:৫০
মোট দৈর্ঘ্য:১৮:০৪

প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়ার তথাগত পাথি এই চলচ্চিত্রটিকে ৫টির মধ্যে ২টি তারা দিয়েছিলেন এবং লিখেছিলেন, "নিস্তেজ, অনুমানযোগ্য এবং গতানুগতিক, ওরেয় বুজ্জিগা অনেক স্তরেই হোঁচট খেয়েছে এবং সত্যই আপনার ধৈর্য পরীক্ষা করে।"[২] দ্য হান্স ইন্ডিয়া পর্যালোচনা করে ৫ এর মধ্যে ২.৫ দিয়েছিল এবং বলেছিল যে "ভাবপ্রবণ চিত্রনাট্য দর্শকদের ধৈর্য পরীক্ষা করে"[৩] অন্ধ্র জ্যোতিও ছবিটির দুর্বল চিত্রনাট্যের জন্য সমালোচনা করেছিল, এবং মতামত দিয়েছিল যে এটি কোনও "মোচড় ও মোড় বিহীন"। পর্যালোচক আরও যোগ করেছিলেন যে রুবেনসের সুরারোপিত চলচ্চিত্রের গানগুলি মনে রাখার মত নয়।[৪]

দ্য হিন্দুর সংগীতা দেবী লিখেছিলেন যে, "তেলুগু রম-কম (কৌতুকাবহ প্রণয়কাহিনী) এখন পুরানো, অনুমানযোগ্য গল্পে নিয়ে চলে", এবং যোগ করেছিলেন "কয়েকটি হাস্যকর মুহুর্ত যেগুলি অতিরিক্ত দীর্ঘ, সেগুলি ছাড়াও, কয়েকটি চরিত্রের গভীরতার অভাব ছবিটিকে হতাশ করে তোলে।"[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Dundoo, Sangeetha Devi (২০২০-০৯-৩০)। "The best of both worlds for Malvika Nair"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-০২ 
  2. Orey Bujjiga Movie Review: A stale, predictable love story, ২ অক্টোবর ২০২০, সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-০২ ২/৫ তারকা
  3. "Orey Bujjiga Movie Review & Rating {2.5/5}"The Hans India। ২০২০-১০-০২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-০২ ২.৫/৫ তারকা
  4. "'ఒరేయ్.. బుజ్జిగా' రివ్యూ" [Orey Bujjiga review]। Andhra Jyothi (তেলুগু ভাষায়)। ২ অক্টোবর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-০২ 
  5. Dundoo, Sangeetha Devi (২০২০-১০-০২)। "'Orey Bujjiga' review: Been there, seen that"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১০-০২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]