বিষয়বস্তুতে চলুন

ওয়াইজে-৮৩

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ওয়াইজে-৮৩ হলো গণচীনে তৈরি একটি জাহাজ বিদ্ধংসী ক্ষেপণাস্ত্র।এটি ভূমি ও আকাশ থেকে ক্ষেপণ করা সম্ভব।[১]

ওয়াইজে-৮৩

ওয়াইজে-৮৩ ক্ষেপণাস্ত্র
প্রকার জাহাজ বিদ্ধংসী ক্ষেপণাস্ত্র
উদ্ভাবনকারী  গণচীন
ব্যবহার ইতিহাস
ব্যবহারকাল ১৯৯৮
ব্যবহারকারী দেখুন
উৎপাদন ইতিহাস
উৎপাদনকারী চীন মহাকাশ,বিজ্ঞান ও শিল্প কর্পোরেশন
তথ্যাবলি
ওয়ারহেড ১৯০ কেজি উচ্চ বিস্ফোরক খণ্ড (ওয়াইজে-৮৩)
১৬৫ কেজি উচ্চ বিস্ফোরক খণ্ড (ওয়াইজে-৮৩কে)

ইঞ্জিন সিটিজে-২ টার্বোজেট
অপারেশনাল
রেঞ্জ
১৮০ কিমি (ওয়ইজে-৮৩, ওয়াইজে-৮৩কে)
২৩০ কিমি (ওয়াইজে-৮৩কেএইচ)
১২০ কিমি

(সি-৮০২)
১৯০ কিমি (সি-৮০২এ)

গতিবেগ ম্যাক ০.৯
নির্দেশনা
পদ্ধতি
ইনারশিয়াল নেভিগেশন/স্বক্রিয় রাডার টার্মিনাল গাইডেন্স
লঞ্চ
প্লাটফর্ম
ভূমি এবং আকাশ

বর্ণনা[সম্পাদনা]

ওয়াইজে-৮৩ মাইক্রোপ্রসেসর এবং একটি স্ট্র্যাপডাউন ইনারশিয়াল রেফারেন্স ইউনিট ব্যবহার করে যা ওয়াইজে-৮ এবং রফতান সি-৮০২ এর তুলনায় আরও কমপ্যাক্ট রয়েছে, যার ফলে ওয়াইজে-৮৩ এর ব্যাপ্তি হলো ১৮০ কিলোমিটার এবং গতি ম্যাক ০.৯। এই ক্ষেপণাস্ত্রটি চাইনিজ সিটিজে-২ টার্বোজেট চালিত করেছে এবং এতে ১৯০ কেজি উচ্চ বিস্ফোরক খন্ড রয়েছে। টার্মিনাল গাইডেন্স একটি সক্রিয় রাডার দ্বারা হয়।[১]

ওয়াইজে-৮৩কে এর ব্যাপ্তি হলো ১৮০ কিমি এর গতি ম্যাক ০.৯।এটি ১৬৫ কেজি উচ্চ বিস্ফোরক খণ্ড বহন করে।[১] এটিই হল পিপলস লিবারেশন আর্মি নেভাল এয়ার ফোর্সের স্ট্যান্ডার্ড জাহাজ বিদ্ধংসী ক্ষেপণাস্ত্র।[২] উন্নতওয়াইজে-৮৩কেএইচ ইমেজিং-ইনফ্রারেড সন্ধানকারী ব্যবহার করে এবং এর পরিসর ২৩০ কিমি।[৩]

সি-৮০২[সম্পাদনা]

সি-৮০২

সি-৮০২ হলো ওয়াইজে-৮৩ এর রফতানি সংস্করণ।[৪] এটিতে ব্যবহারকরা হয়েছে ফরাসি টিআরআই ৬০-২ টার্বোজেট।[১] এর ব্যাপ্তি হলো ১২০ কিলোমিটার (৬৫ নটিক্যাল মাইল).[৪]

সি-৮০২এ হলো সি-৮০২ এর উন্নত সংস্করণ।এর ব্যাপ্তি হলো ১৯০ কিলোমিটার (১০০ নটিক্যাল মাইল) সি-৮০২একে হলো ওয়াইজে-৮৩কে এর রফতানি সংস্করণ।এর ব্যাপ্তি হলো১৯০ কিলোমিটার (১০০ নটিক্যাল মাইল)[৪]

ব্যবহারকারী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Gromley et al: page 101
  2. Rupprecht, Andreas (১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০)। "Images show PLAAF J-16 armed with YJ-83K anti-ship missile"Janes। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০২০ 
  3. United States Office of the Secretary of Defense (জুন ২০১৪)। Annual Report To Congress: Military and Security Developments Involving the People’s Republic of China 2014 (পিডিএফ) (প্রতিবেদন)। পৃষ্ঠা ৪০। ৯ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুন ২০১৫ 
  4. United States Office of Naval Intelligence: page 16
  5. Rahmat, Ridzwan (১৬ মার্চ ২০১৬)। "Algeria commissions second Chinese-built C28A corvette"IHS Jane's 360। ২০ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ এপ্রিল ২০১৬ 
  6. "Bangladesh Navy successfully test fires long range missile"The Daily Star। ১৭ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ এপ্রিল ২০১৬ 
  7. "C-802 / YJ-2 / Ying Ji-802 / CSS-C-8 / SACCADE / C-8xx / YJ-22 / YJ-82"GlobalSecurity.org। ১৮ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ এপ্রিল ২০১৯ 
  8. Mazumdar, Mrityunjoy (২৯ ডিসেম্বর ২০১৫)। "Myanmar commissions second frigate with reduced RCS, hospital ship"IHS Jane's 360। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ এপ্রিল ২০১৬ 
  9. "SIPRI Trade Register"। Stockholm International Peace Research Institute। ১৪ এপ্রিল ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০২০ 
  10. Dominguez, Gabriel (৬ মার্চ ২০১৮)। "PN, PAF successfully test-fire C-802 anti-ship cruise missiles"IHS Jane's 360। ১২ আগস্ট ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ আগস্ট ২০১৮ 
  11. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; Dominguez নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  12. Dominguez, Gabriel (২৮ নভেম্বর ২০১৯)। "Pakistan launches fourth Azmat-class fast attack craft"janes.com। সংগ্রহের তারিখ ১১ নভেম্বর ২০২০ 
  13. United States Office of Naval Intelligence: page 17
  14. Binnie, Jeremy (২৯ অক্টোবর ২০১৫)। "Yemeni rebels claim third anti-ship missile attack"IHS Jane's 360। ৮ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ এপ্রিল ২০১৬