এমটিভি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এমটিভি (মিউজিক টেলিভিশন)
MTV Logo 2010.svg
উদ্বোধন১ আগস্ট, ১৯৮১
মালিকানাভায়াকম
চিত্রের বিন্যাস৪৮০আই (এসডিটিভি)
১০৮০আই (এইচডিটিভি)
প্রধান কার্যালয়নিউ ইয়র্ক সিটি, যুক্তরাষ্ট্র
ভ্রাতৃপ্রতিম
চ্যানেল(সমূহ)
এমটিভি২, এমটিভি টিআর৩এস, এমটিভিইউ, ভিএইচ১
ওয়েবসাইটMTV.com
প্রাপ্তিস্থান
কৃত্রিম উপগ্রহ
ডিরেক্টটিভিচ্যানেল ৩৩১ (এসডি/এইচডি)
চ্যানেল ১৩৩১ (ভিওডি)
ডিশ নেটওয়ার্কচ্যানেল ১৬০ (এসডি/এইচডি)
ডিজি টিভি
ক্যাবল
ভেরিজোন ফিওসচ্যানেল ২১০

এমটিভি (ইংরেজি: MTV) বা মিউজিক টেলিভিশন (Music Television) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক সিটি কেন্দ্রিক একটি কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক, যার কার্যক্রম শুরু হয় ১৯৮১ সালের ১ আগস্ট।[১] এই টেলিভিশন চ্যানেলটি তৈরির মূল উদ্দেশ্য ছিলো অন এয়ারে দিতে ইচ্ছুকদের মিউজিক ভিডিওগুলো প্রচার করা।[২] বর্তমানে, এমটিভি সীমিত পরিসরে নির্বাচিত মিউজিক ভিডিও প্রদর্শন করে, কিন্তু প্রাথমিক ভাব এটি দর্শক-শ্রোতাদের মাঝে জনসাংষ্কৃতিক ও বাস্তবধর্মী টেলিভিশন অনুষ্ঠান প্রচার করে, যার মূল দর্শক হচ্ছেন সদ্য পরিণত এবং কিশোর-কিশোরীরা।উল্লেখ্য এই চ্যানেলটি প্রসারে মাইকেল জ্যাকসন এর মিউজিক ভিডিও ব্যাপক অবদান রাখে,বিশেষ করে থ্রিলারের ভিডিও গুলি।

কার্যক্রমের শুরু থেকেই এমটিভি সঙ্গীত শিল্প ও জনসংস্কৃতিতে একটি প্রভাব বিস্তার করে আসছে। "আমার এমটিভি চাই" বা "I want my MTV" ধরনের স্লোগান মানুষের ভেতরে ঢুকে গিয়েছিলো। এছাড়া এমটিভিই সর্বপ্রথম ভিজে-এর মতো ধারণাকে মানুষের মধ্যে প্রচার ও জনপ্রিয় করে তোলে। এছাড়াও যে ব্যাপারগুলো এমটিভি জনপ্রিয় করে তোলে তার মধ্যে আছে, ভিডিও ভিত্তিক সঙ্গীত, সঙ্গীত বিষয়ক অনুষ্ঠানে সংঙ্গীতশিল্পী ও সঙ্গীতপ্রেমী উভয়কেই একত্রিত করা, বিভিন্ন সঙ্গীত বিষয়ক খবরাদি প্রচার, এবং প্রচারণা চালানো। এছাড়া সঙ্গীতশিল্পী, টিভি চ্যানেল, চিভি অনুষ্ঠান, চলচ্চিত্র, ও বইয়ের মাধ্যমে সঙ্গীত বিষয়ক বিভিন্ন সূত্র পরিবেশন করাতেও এমটিভি ভূমিকা রাখে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]