উপাত্ত (কম্পিউটিং)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

উপাত্ত (একক, বহু কিংবা অসংখ্য বোঝাতে ব্যবহৃত হয়) হচ্ছে এক বা একাধিক প্রতীকের যেকোনো ক্রম যা কেবল নির্দিষ্ট ব্যাখ্যার দ্বারা অর্থবোধক হয়।

বিভিন্ন ধরনের উপাত্ত যা কম্পিউটার ডিভাইস কর্তৃক ব্যবহৃত হতে পারে

উপাত্তকে তথ্যে রুপান্তর করতে অনুবাদ কিংবা ব্যাখ্যার প্রয়োজন। উপাত্তকে তথ্যে রুপান্তরের জন্য বেশ কিছু বিষয়কে বিবেচনাধীন রাখতে হয়। কোন কোন বিষয় বিবেচনায় রাখতে হয়, তা উপাত্তের স্রষ্টা এবং উদ্দিষ্ট তথ্যের উপর নির্ভর করে। মেটাডাটা শব্দটি "তথ্যের তথ্য" বোঝাতে ব্যবহার করা হয়। মেটাডাটা উহ্য, নির্দিষ্ট কিংবা প্রদান করা হতে পারে। বাস্তবিক ঘটনা বা প্রক্রিয়া সম্পর্কিত তথ্যের সময়ের জন্য উপাদান নির্দিষ্ট থাকে। প্রায় সকল ক্ষেত্রে এই সময় সম্পর্কিত উপাদান উহ্য থাকে। এরকম একটি বিষয় হচ্ছে যখন কোনো তাপমাত্রা লিপিবদ্ধকারী যন্ত্র তাপমাত্রা সেন্সর হতে তথ্য গ্রহণ করে। যখন যন্ত্রটি তাপমাত্রা গ্রহণ করে তখন ধরে নেয়া যায় তাপমাত্রাটির "বর্তমান" সময় নির্দেশক একটি উপাদান বা অংশ রয়েছে। তাই যন্ত্রটি তাপমাত্রা,তারিখ এবং সময় একত্রে লিপিবদ্ধ করে।যখন উপাত্ত লিপিবদ্ধকারী তাপমাত্রা প্রকাশ করে তবে প্রতিটি তাপমাত্রার জন্য এটির সময় এবং তারিখ দেখানো উচিত।

ডিজিটাল উপাত্ত হচ্ছে সেইসব উপাত্ত যারা কেবল বাইনারি সংখ্যা পদ্ধতি অর্থাৎ ০ এবং ১ দ্বারা প্রকাশ করা হয়। আধুনিক (১৯৬০ পরবর্তী) কম্পিউটিং এ সকল উপাত্তই ডিজিটাল। অধিকাংশক্ষেত্রে, একটি কম্পিউটারের মধ্যে উপাত্তসমূহ সমান্তরাল পদ্ধতিতে স্থানান্তরিত হয়। অপরপক্ষে, অধিকাংশক্ষেত্রে এক কম্পিউটার হতে অন্য কম্পিউটারে তথ্য শ্রেণি পদ্ধতিতে স্থানান্তরিত হয়।যেসব উপাত্তের উৎস এনালগ ডিভাইস (যেমনঃ তাপমাত্রার সেন্সরের) তাদের এনালগ থেকে ডিজিটাল রুপান্তরক এর মধ্য দিয়ে যেতে হয় যাতে, এনালগ উপাত্ত ডিজিটাল উপাত্তে রুপান্তরিত হতে পারে।

কম্পিউটার কর্তৃক প্রক্রিয়াকৃত যেসব উপাত্ত দ্বারা মান,ক্যারেক্টার কিংবা প্রতীক প্রকাশ করা হয়, যা চৌম্বকীয়,আলোক কিংবা যান্ত্রিক উপায়ে সংরক্ষণ বা রেকর্ড করা হতে পারে, তা ডিজিটাল ইলেক্ট্রিক সিগন্যাল হিসেবে ট্রান্সমিট করা হয়।

প্রোগ্রাম হচ্ছে উপাত্তের একটি সেট যাতে কোডেড সফটওয়ার নির্দেশাবলী থাকে কম্পিউটার বা অন্য কোনো মেশিনকে নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যবহৃত হয়। ফিজিক্যাল কম্পিউটার মেমরির উপাদানে ডাটা স্টোরেজের এড্রেস এবং একটি বাইট/শব্দ নিয়ে গঠিত হয়। ডিজিটাল উপাত্ত প্রায়শই রিলেশনাল ডাটাবেজ যেমনঃ টেবিল বা এসকিউএল ডাটাবেজে সংরক্ষণ করা হয় এবং সাধারণত এবস্ট্রাক্ট কি/ভ্যালুর জোড়া হিসেবে উপস্থাপনা করা হয়।

অ্যারে,গ্রাফ,অব্জেক্ট সহ উপাত্ত ডেটা স্ট্রাকচারের বিভিন্ন উপায়ে সংগঠিত করা হয়। ডাটা স্ট্রাকচার বিভিন্ন ধরনের উপাত্ত সংরক্ষণ করতে পারে যেমনঃ সংখ্যা,স্ট্রিং এমন কি অন্য কোনো ডাটা স্ট্রাকচারও। ডাটা কম্পিউটারে বিভিন্ন পেরিফেরাল ডিভাইসের মধ্যে দিয়ে প্রবেশ করে এবং বেরিয়ে যায়।

একটি বিকল্প পন্থায়, বাইনারি ফাইলকে (যেগুলো মানুষ কর্তৃক পাঠযোগ্য নয়) কখনো কখনো ডাটা বলা হয়ে থাকে, মানুষ পাঠযোগ্য "টেক্সট" থেকে আলাদা হওয়ায়। ২০০৭ সালে মোট ডিজিটাল উপাত্তের সংখ্যা ২৮১ বিলিয়ন গিগাবাইট (=২৮১ এক্সাবাইট) ধারনা করা হচ্ছে।ডিজিটাল উপাত্ত তিন ধরনের অবস্থায় থাকে: বিশ্রামরত উপাত্ত, ট্রানজিটে উপাত্ত এবং ব্যবহৃত উপাত্ত।

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

সহজভাবে, একটি একক ডাটাম হচ্ছে একটি নির্দিষ্ট স্থানে সংরক্ষিত একটি মান।

মৌলিকভাবে, কম্পিউটার ডাটা রুপে প্রদত্ত নির্দেশের ধারা অনুসরণ করে। কোনো কাজ সম্পাদনে প্রদত্ত নির্দেশাবলীর সেটকে বলা হয় "প্রোগ্রাম"। সাধারণভাবে, কম্পিউটার দ্বারা নির্বাহিত প্রোগ্রামটিতে বাইনারি মেশিন কোড থাকে। স্টোরেজের উপাদানসমূহ যা প্রোগ্রাম কর্তৃক ব্যবহৃত হয়,তবে সিপিইউ দ্বারা নির্বাহিত নয় সেগুলোও উপাত্ত। প্রোগ্রামের নির্দেশাবলী এবং প্রোগ্রাম যেসব উপাত্ত নিজ কাজে ব্যবহার করে উভয়ই একই ভাবে সংরক্ষণ করা হয়। সেকারণেই, কোনো কম্পিউটার প্রোগ্রাম, প্রোগ্রাম্যাটিক উপাত্ত ব্যবহার করে অন্য কোনো কম্পিউটারেও পরিচালিত হতে পারে।

প্রোগ্রাম এবং উপাত্তের মধ্যে পার্থক্যটা ঘোলাটে মনে হতে পারে। উদাহরণস্বরুপ, ইন্টারপ্রেটার হচ্ছে একটি প্রোগ্রাম। ইন্টারপ্রেটারে ইনপুটকৃত উপাত্ত নিজেই একটি প্রোগ্রাম, তবে সেটি মেশিন ল্যাঙ্গুয়েজে রুপান্তরিত নয়। অনেক ক্ষেত্রেই অনুবাদকৃত প্রোগ্রামটি মানব পাঠযোগ্য টেক্সট ফাইল হতে পারে। উক্ত টেক্সট ফাইল কোনো টেক্সট ইডিটর কর্তৃক ম্যানিউপুলেট হতে পারে। মেটাপ্রোগ্রামিং একইভাবে একটি প্রোগ্রামকে অন্য প্রোগ্রামের উপাত্ত হিসেবে ব্যবহার সম্পর্কিত। কম্পাইলার, লিংকার, ডিবাগার, প্রোগ্রাম আপডেটার, ভাইরাস স্ক্যানার এইধরনের প্রোগ্রাম অন্য প্রোগ্রামকে নিজের উপাত্ত হিসেবে ব্যবহার করে থাকে।

কোনো ফাইলে উপাত্তের বাইট সংরক্ষণ করতে, তাদেরকে ফাইল ফরম্যাটে শ্রেণিবদ্ধ হতে হয়। সাধারণত, প্রোগ্রাম বিভিন্ন ফাইল টাইপে সংরক্ষিত হয়,যা অন্য উপাত্তে ব্যবহৃত ফাইল টাইপ হতে ভিন্ন। নির্বাহযোগ্য ফাইল প্রোগ্রাম ধারণ করে; অন্য সকল ফাইলও উপাত্তের ফাইল। যাইহোক, নির্বাহযোগ্য ফাইল "ইন-লাইন" উপাত্ত ধারণ করতে পারে, যা প্রোগ্রামের ভিতর তৈরি করা থাকে। নির্দিষ্টভাবে, কিছু নির্বাহযোগ্য ফাইলের উপাত্ত অংশ থাকে, যা ধ্রুবক এবং প্রাথমিক মান ধারণ করে (এরা উভয়েই উপাত্ত)।

উদাহরণস্বরুপ, একজন ব্যবহারকারী তার অপারেটিং সিস্টেমকে একটি ফাইল হতে ওয়ার্ড প্রসেসর লোড করার নির্দেশনা দিতে পারে, এবং ওয়ার্ড প্রসেরের সাহায্যে আরেকটি ফাইলে সংরক্ষিত ডকুমেন্ট সম্পাদনা করতে পারে। এই উদাহরণে, ডকুমেন্টটিকে উপাত্ত হিসেবে বিবেচনা করা যায়। যদি ওয়ার্ড প্রসেসরটিতে একটি বানান-নিরক্ষক থাকে তবে, অভিধানটিকেও(শব্দ তালিকা) উপাত্ত ধরে নেয়া হবে। বানান-নিরক্ষক কর্তৃক সংশোধন প্রস্তাবে ব্যবহৃত এলগরিদমটি হয় মেশিন কোড উপাত্ত কিংবা অনুবাদযোগ্য প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ টেক্সট হবে।

তথ্যের কী ও মান, গঠন এবং বিদ্যমানতা[সম্পাদনা]

উপাত্তের কী উপাত্তের মানের সূত্র হিসেবে কাজ করে। উপাত্তের গঠন থাকার পরেও একটি কী নামক উপাংশ থাকে। উপাত্তের মানের অর্থবোধকতার জন্য উপাত্তের কী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। উপাত্তের সাথে কী যদি প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে সংযুক্ত না থাকে তবে উপাত্তটি অর্থহীন হয়ে যেতে পারে, সেক্ষেত্রে উপাত্তের উপাত্ত হিসেবে কোনো মূল্যই থাকে না। একারণেই, উপাত্তকে উপাত্ত হিসেবে বিবেচনা করতে এর সাথে একটি কী উপাংশ থাকা প্রয়োজন । উপাত্ত কম্পিউটারে বিভিন্নভাবে প্রকাশ করা যায়, যেমনঃ

র‍্যাম[সম্পাদনা]

  • র‍্যান্ডম এক্সেস মেমরি সেইসব উপাত্ত ধারণ করে যেগুলোতে কম্পিউটারের প্রসেসর সরাসরি এক্সেস করতে পারে। একটি কম্পিউটার প্রসেসর কেবলমাত্র এর মধ্যে থাকা কিংবা র‍্যামে থাকা তথ্যই পরিবর্তন করতে পারে। এটা ডেটা স্টোরেজের বিপরীত, কেননা সেখানে প্রসেসরকে মেমরি এবং স্টোরেজ ডিভাইসের মধ্যে উপাত্ত আদান-প্রদান করতে হয় । র‍্যাম হচ্ছে এক কিংবা একাধিক ব্লকের একটি রৈখিক সামঞ্জস্যপূর্ণ অবস্থানের অ্যারে যাতে নির্দিষ্ট ঠিকানা বা এড্রেস প্রদান করে প্রসেসর পড়তে কিংবা লিখতে পারে । র‍্যামের পূর্ণরূপের "র‍্যান্ডম" অংশটি বুঝায় যে প্রসেসর মেমরির যেকোনো লোকেশনে, যেকোনো সময়ে অপারেট করতে পারে। র‍্যামে উপাত্তের ক্ষুদ্রতম উপাদান হচ্ছে বাইনারি বিট । র‍্যামে প্রবেশের ক্ষমতা এবং সীমাবদ্ধতা মূলত প্রসেসরের উপর নির্ভর করে। সাধারণত মূল মেমরি অর্থাৎ র‍্যাম একটি "ইলেক্ট্রনিক অন/অফের সুইচ" বা লোকেশনের অ্যারে হিসেবে বিন্যস্ত , যা হেক্সাডেসিমাল ০ তে শুরু হয়। প্রতিটি লোকেশন সাধারণত প্রসেসরের উপর নির্ভর করে ৮,১৬,৩২ বা ৬৪টি সমান্তরাল বিট ধারণ করে । অতএব, র‍্যামে একটি বাইটে স্টোর করা মানের একটি সাদৃশ্য লোকেশন রয়েছে যা একটি অফসেট হিসেবে মেমরি অ্যারের প্রথম লোকেশন হতে প্রকাশ করা হয় , যেমনঃ 0+n, যেখানে n হচ্ছে মেমরি লোকেশনের অ্যারের অফসেট।

কী[সম্পাদনা]

  • উপাত্তের কী এর মেমরিতে সরাসরি হার্ডওয়ার এড্রেসের প্রয়োজন হয় না। পরোক্ষ, বিমূর্ত এবং লজিকাল কি কোড মানের সাথে একত্রে ডাটা স্ট্রাকচার রুপে সংরক্ষণ করা হতে পারে। ডাটা স্ট্রাকচারের পূর্বে নির্ধারিত অফসেট স্ট্রাকচারের শুরু হতেই থাকে (লিংক বা পথ) যাতে উপাত্তের মান সংরক্ষণ করা হয়। যখন এমন কোনো স্ট্রাকচারের পুনরাবৃত্তি করা হয়, পুনরাবৃত্ত স্ট্রাকচারে উপাত্তের মান এবং উপাত্তের কী এর সংরক্ষণের মধ্যে পার্থক্য থাকতে পারে এবং এর ফল একটি টেবিল গঠন করে বলে বিবেচনা করা হয় যাতে পুনরাবৃত্ত স্ট্রাকচারের প্রত্যেক উপাদানকে একটি কলাম এবং প্রত্যেক স্ট্রাকচারকে টেবিলের একটি সারি বিবেচনা করা হয়। উপাত্তের এমন সংগঠনে, উপাত্তের কি সাধারণত কলামের (বিভিন্ন মানের মধ্যে সংমিশ্রণ) একটি মান।

সংগঠিত আবর্ত ডাটা স্ট্রাকচার[সম্পাদনা]

  • পুনরাবৃত্ত ডেটা স্ট্রাকচারের স্তরিত চিত্র হচ্ছে অনেকগুলো ঘটনার মধ্যে একটিমাত্র সম্ভাবনা। পুনরাবৃত্ত ডেটা স্ট্রাকচার ক্রমিক শ্রেণিবদ্ধ অবস্থায় এমনভাবে সংগঠিত হতে পারে যাতে নোডগুলো একে অপরের সাথে প্যারেন্ট-চাইল্ড সম্পর্কের ক্যাসাকেডের মত সংযুক্ত থাকে। মান এবং সম্ভাব্য অধিক জটিল ডাটা স্ট্রাকচার নোডের সাথে সংযুক্ত থাকে। এভাবে নোডাল হায়ারার্কি (ক্রমিক শ্রেনী) নোডের সাথে সংযুক্ত ডাটা স্ট্রাকচারকে নির্দেশ করার জন্য কী প্রদান করে থাকে। এটিকে একটি ইনভার্টেড ট্রি হিসেবে বিবেচনা করা যায়। যেমনঃ আধুনিক কম্পিউটারের অপারেটিং সিস্টেমের ফাইল সিস্টেম হচ্ছে একটি সাধারণ উদাহরণ, এবং আরেকটি হচ্ছে এক্সএমএল

সর্টেড বা সাজানো উপাত্ত[সম্পাদনা]

  • কি এর সাথে সাজানো থাকলে,উপাত্তের কিছু সহজাত বৈশিষ্ট্য থাকে। কি এর প্রতিটি উপসেটের মান একসাথে প্রকাশ করা হয়। একই কি ব্যবহার করে ক্রমানুসারে উপাত্তেরর কয়েকটি গ্রুপ পাস করা হলে অথবা কোনো উপসেটের কি পরিবর্তিত হলে উপাত্ত প্রক্রিয়াকরণে এটি "ব্রেক" বা "কন্ট্রোল ব্রেক" বলা হয়। এটি মূলত কী এর উপসেটের উপাত্ত একীভূতকরণের সুবিধা দেয়।

পেরিফেরাল স্টোরেজ[সম্পাদনা]

  • অনুদ্বায়ী কম্পিউটার মেমরির যেমনঃ ইউএসবি স্টিক আবির্ভাবের আগে পর্যন্ত স্থায়ী উপাত্ত স্টোরেজ প্রথাগতভাবে বহিঃব্লক ডিভাইস যেমন চৌম্বক টেপ এবং ডিস্ক ড্রাইভে লিখা হত। এই ডিভাইসগুলো সাধারণত চৌম্বক মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট লোকেশনের খোঁজ করে এবং অতঃপর পূর্বনির্ধারিত সাইজের উপাত্তের ব্লক লেখা কিংবা পড়ার কাজটি করে থাকে। এই ক্ষেত্রে মাধ্যমটির লোকেশন হচ্ছে উপাত্তের কী এবং ব্লক গুলো হচ্ছে উপাত্তের মান। পুরাতন উপাত্তের ফাইল সিস্টেম অথবা ডিস্ক অপারেটিং সিস্টেম উপাত্তের ফাইলের জন্য ডিস্ক ড্রাইভে নিকটস্থ ব্লক সঞ্চয় করতো । এইসব সিস্টেমে, ফাইলগুলো পূর্ণ হয়ে যেতে পারতো,ফলে অনেকসময়েই এমন হতো যে সম্পূর্ণ উপাত্ত লিখার পূর্বেই উপাত্তের স্পেস শেষ হয়ে যেত। এইভাবে বিপুল পরিমাণ অব্যবহৃত উপাত্তের স্পেস অকার্যকরীভাবে সঞ্চয় করা হত ঐ ঘটনা থেকে বেঁচে থাকার জন্য। এটা র' ডিস্ক হিসেবে পরিচিত ছিল। পরে ফাইল সিস্টেমে পার্টিশন যোগ হয়।তারা পার্টিশনের জন্য ডিস্কের ব্লক ডাটা এবং বরাদ্দকৃত ব্লক ডায়নামিকভাবে ফাইলে পার্টিশনের ব্লক নির্দিষ্ট করে দিয়ে অধিক সাশ্রয়ীভাবে সঞ্চয় করত। এটি করতে, ফাইল-সিস্টেমের কোনো ডাটা ফাইল কর্তৃক ব্যবহৃত ও অব্যবহৃত ব্লকসমূহের তালিক একটি ক্যাটালগ বা বরাদ্দকরণ টেবিলে সংরক্ষণ করতে হত। যদিও এটি ডিস্ক ডাটা স্পেসের উত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করে, এটির ফলে ডিস্কের ভেতর ফাইলের ভগ্নাংশ সৃষ্টি হত। তাছাড়া দেরীর কারণে সংযুক্ত কর্মক্ষমতায়ও প্রভাব পড়ে। আধুনিক ফাইল সিস্টেমগুলো ভগ্নাংশগুলোকে পুনর্বিন্যাস করে যাতে কম সময়ে ফাইলগুলোতে প্রবেশ করা যায়। ফাইল সিস্টেমকে আরো উন্নীতকরণের ফলে ডিস্ক ড্রাইভের ভার্চুয়ালাইজেশন সম্ভব হয় ফলে, যেখানে একটি লজিক্যাল ড্রাইভকে একাধিক ফিজিক্যাল ড্রাইভ হতে পার্টিশন হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা যায়।

সূচিত উপাত্ত[সম্পাদনা]

  • বড় কোনো সেট হতে উপাত্তের ক্ষুদ্র একটি সাবসেটকে পুনরুদ্ধার করা বলতে ক্রমান্বয়ে উপাত্তটির মধ্যে খোঁজাকে বোঝায়। এটি অযৌক্তিক। ইনডেক্স হচ্ছে ফাইল,টেবিল বা উপাত্তের সেট হতে কী এবং লোকেশন এড্রেস কপি করে, ইনভার্টেড ট্রি ব্যবহার করে তাদের সংগঠিত করা। যাতে মূল উপাত্তের কোনো সাবসেটকে পুনরুদ্ধার করতে সময় কম ব্যয় হয়। এটি করতে হলে, উপাত্ত পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়া শুরু করার পূর্বেই উপাত্তের সাবসেটের কী জানতে হবে।কিছু জনপ্রিয় ইনডেক্সের মধ্যে রয়েছে বি-ট্রি এবং ডায়নামিক হ্যাশ কি ইনডেক্সিং প্রক্রিয়া। তথাপি, ফাইলিং এবং উপাত্ত পুনরুদ্ধারে ইনডেক্সিং একটি ব্যয়বহুল প্রক্রিয়া । ইনডেক্স সংগঠনের আরো অনেক পদ্ধতি রয়েছে যেমনঃ কী সাজিয়ে নেয়া বা পরিমাণ সংশোধন(বা কী এবং উপাত্ত একত্রে ) এবং বাইনারি সার্চ প্রক্রিয়া ব্যবহার প্রভৃতি।

বিমূর্ততা ও অনির্দিষ্টতা[সম্পাদনা]

  • উপাত্ত এবং সফটওয়ারকে বুঝতে অবজেক্ট ওরিয়েন্টেশন দুটি মৌলিক ধারণা ব্যবহার করে থাকে- ১। প্রোগ্রাম-কোড ক্লাসের ট্যাক্সোনোমিক র‍্যাংক-কাঠামো, যা হচ্ছে হায়ারার্কিয়াল ডাটা স্ট্রাকচারের উদাহরণ এবং ২। রান টাইমে, একটি ক্লাস লাইব্রেরির উদাহরণ হতে উপস্থাপিত ইন-মেমরি অবজেক্টের ডাটা স্ট্রাকচারে উপাত্তের কী রেফারেন্স সৃষ্টি ।উদাহরণ হতে উপস্থাপিত হবার পরেই, কোনো নির্দিষ্ট ক্লাসের নির্বাহী অবজেক্ট তৈরী হয়। একটি অবজেক্টের কী রেফারেন্স শুন্যীকরণের পরে,ঐ অবজেক্ট কর্তৃক যে উপাত্তকে নির্দেশ করা হয় তা উপাত্ত হিসেবে অস্তিত্বহীন হয়ে পড়ে। কেননা সেক্ষেত্রে কী রেফারেন্স শুন্য হয়ে যায়। অবজেক্টের উপাত্তসমূহ যে মেমরি লোকেশনে সংরক্ষণ করা হয়েছিল তাদেরকে গার্বেজ হিসেবে বিবেচনা করা হয় এবং সেগুলোকে পুনব্যবহারযোগ্য অব্যবহৃত মেমরি হিসেবে পুনরায় শ্রেনীভুক্ত করা হয়।

ডেটাবেজের ডেটা[সম্পাদনা]

  • ডাটাবেজের আবির্ভাব স্থায়ী তথ্য স্টোরেজের এক বিমূর্ত স্তরের অবতারণা করেছে। ডাটাবেজ ক্লায়েন্ট এবং সার্ভারের মধ্যে মেটাডাটা এবং স্ট্রাকচার্ড কুয়েরী ল্যাঙ্গুয়েজ প্রোটোকোল ব্যবহার করে নেটওয়ার্কের মধ্য দিয়ে যোগাযোগ সম্পন্ন করে। তথ্য সঞ্চয়ের সময় তথ্যের পরিপূর্ণতা নিশ্চিতকরণে এটি দুই দশা লগিং ব্যবস্থা ব্যবহার করে থাকে।

সমান্তরাল বন্টিত উপাত্ত প্রক্রিয়াকরণ[সম্পাদনা]

  • বিপুল পরিমাণ কম্পিউটারে যাতে উচ্চ ব্যান্ডউইথের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা হয় তাতে আধুনিক পরিমাপযোগ্য বা উচ্চ কর্মক্ষম উপাত্ত সঞ্চয়ী প্রযুক্তি ব্যাপকভাবে সমান্তরাল বন্টিত উপাত্ত প্রক্রিয়াকরণের উপর নির্ভর করে। এর একটি উদাহরণ হচ্ছে এপাচি হাডুপ। এই ব্যবস্থায় তথ্য একাধিক কম্পিউটারে বণ্টন করা হয় এবং তার ফলে ব্যবস্থাটির যেকোনো কম্পিউটার উপাত্তের কি  দ্বারা প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে প্রকাশিত হতে হবে। এটির ফলে দুটি অনুরূপ উপাত্তের সেটের মধ্যে পার্থক্যকরণ সম্ভব হয়। কেননা, প্রতিটি সেট একই সময়ে দুটি ভিন্ন কম্পিউটারে প্রক্রিয়া হতে থাকে।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ^ data, Oxford Dictionaries. Archived from the original on 2012-10-06. Retrieved 2012-10-11.
  2. ^ computer program. The Oxford Pocket Dictionary of Current English. Archived from the original on 2011-11-28.Retrieved 2012-10-11.
  3. ^ file OpenBSD Manual Pages. 2015-12-24. Archived from the original on 2018-02-05. Retrieved 2018-02-04.
  4. ^ Paul, Ryan (March 12, 2008). "Study: amount of digital info > global storage capacity" Ars Technics. Archived from the original on March 13,2008. Retrieved 2008-03-12.
  5. ^ Gantz, John F.; et al. (2008). "The Diverse and Exploding Digital Universe".International Data Corporation via EMC. Archived from the original on 2008-03-11. Retrieved 2008-03-12.