উইলবার স্মিথ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
উইলবার এডিসন স্মিথ
দ্য কোয়েম্ট বইয়ে স্বাক্ষর করছেন উইলবার স্মিথ
দ্য কোয়েম্ট বইয়ে স্বাক্ষর করছেন উইলবার স্মিথ
জন্ম (1933-01-09) ৯ জানুয়ারি ১৯৩৩ (বয়স ৮৬)
ব্রোকেন হিল, উত্তর রোডেশিয়া
পেশাঔপন্যাসিক
ধরনপ্রাকৃতিক, অ্যাডভেঞ্চার
সঙ্গীডেনিয়েল টমাস ('৯৯-এ মারা যান)
Mokhiniso Rakhimova(১৯৯৯-)
ওয়েবসাইট
http://www.wilbursmithbooks.com/

উইলবার এডিসন স্মিথ (ইংরেজি ভাষায়: Wilbur Addison Smith) (জন্ম: ৯ই জানুয়ারি, ১৯৩৩) জনপ্রিয় আফ্রিকান ঔপন্যাসিক। তার জন্ম উত্তর রোডেশিয়ার (বর্তমানে জাম্বিয়া) ব্রোকেন হিলে। দক্ষিণ আফ্রিকায় পড়াশোনা শেষে কিছুকাল সাংবাদিকতা করেন। অ্যাকাউন্টেন্টের চাকরি করার সময়ই প্রথম উপন্যাস লিখেন। বর্তমানে লন্ডনে বসবাস করছেন। তার উপন্যাসগুলো অধিকাংশ সময়ই তিনটি সিরিজের যেকোন একটির অন্তর্ভুক্ত হয়ে থাকে। সিরিজগুলো হচ্ছে, কোর্টনি, প্রাচীন মিশরব্যালান্টাইন। ২০১৪ সালের হিসাব অনুযায়ী তার প্রকাশিত ৩৫টি উপন্যাসের ১২ কোটি কপি বিক্রি হয়েছে, যার মধ্যে প্রায় আড়াই কোটি বিক্রি হয়েছে শুধু ইতালিতে।[১]

রচনাবলী[সম্পাদনা]

কোর্টনি সিরিজ[সম্পাদনা]

প্রাচীন মিশর সিরিজ[সম্পাদনা]

প্রাচীন মিশর সিরিজের সমস্ত বইয়ের বাংলা অনুবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

ব্যালান্টাইন সিরিজ[সম্পাদনা]

একক উপন্যাসসমূহ[সম্পাদনা]

সমালোচনা[সম্পাদনা]

যদিও বিভিন্ন সম্মানিত ঐতিহাসিক ও পত্রিকাগুলো স্মিথের কাজের প্রশংসা করেন। তার অন্যতম প্রধান সমালোচক মার্টিন হল তার বই জার্নাল অব সাউদার্ন আফ্রিকানস স্টাডিজে বলেন যে, উপন্যাসগুলো আফ্রিকার জাতীয়তাবাদের বিপক্ষে একপাক্ষিক ও অসম দৃষ্টিভঙ্গি ধারণ করে। অন্যান্য দাবীগুলোর মধ্যে রয়েছে, সমকামাভীত, নারীবিদ্বেষ ও জাতিবিদ্বেষের সাথে সাথে রাজনৈতিক এজেন্ডার উপস্থিতি রয়েছে উপন্যাসগুলোতে।[২][৩][৪]

বহিঃসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "উইলবার স্মিথ -"। ২৬ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০১৫ 
  2. "৬০-এর দশকঃবিরুদ্ধে লিখা"। SouthAfrica.info। ১৯ এপ্রিল ২০০১। ৭ জুন ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১০ 
  3. "উইলবার স্মিথের গ্যাবুন অ্যাডারের বিষয়ে সাবধান থাকুন" (PDF)। ২৭ জুন ২০০৮ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১০ 
  4. মার্টিন হল "The Legend of the Lost City; Or, the Man with Golden Balls". জার্নাল অব সাউদার্ন আফ্রিকান স্টাডিজ,ভলিউম ২১, নং ২ (জুন, ১৯৯৫), পৃষ্ঠা ১৭৯-১৯৯।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]