ইস্টার্ন ক্যাবলস লিমিটেড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইস্টার্ন ক্যাবলস লিমিটেড
গঠিত১৯৬৭
উদ্দেশ্যবিদ্যুত পরিবাহক উৎপাদন
সদরদপ্তরচট্টগ্রাম, বাংলাদেশ
যে অঞ্চলে কাজ করে
বাংলাদেশ
দাপ্তরিক ভাষা
বাংলা
প্রধান প্রতিষ্ঠান
বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল কর্পোরেশন
ওয়েবসাইটEastern Cables Limited

'ইস্টার্ন কেবলস লিমিটেড' বাংলাদেশ সরকারের মালিকানাধীন টেলিকম সরঞ্জাম ও তার উৎপাদনকারী সংস্থা।[১] ইস্টার্ন কেবল বাংলাদেশের তার এবং পরিবাহকের বৃহত্তম উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান । মোঃ রইস উদ্দিন এবং উশাময় চাকমা প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্বে রয়েছেন। এটি বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল কর্পোরেশনের একটি সহায়ক সংস্থা।[২][৩][৪]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ইস্টার্ন কেবলস লিমিটেড ১৯৬৭ সালে চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯৭১ সালের ১ মার্চ থেকে বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু করে। [৫] এটি ১৯৮৬ সালে স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত হয়। ২০০৮ সালে, বাংলাদেশ সরকার অ্যাটলাস বাংলাদেশ, ইস্টার্ন কেবলস, জাতীয় টিউবস এবং উসমানিয়া গ্লাস শিট কারখানাটি বেসরকারী করার চেষ্টা করেছিল।কিন্তু সংস্থাগুলোর কর্মীরা এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে চ্যালেঞ্জ করে। [৬]

২০১৮ সালের মে মাসে, নিয়মিত বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত না করতে পারায় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ, ইস্টার্ন কেবলস লিমিটেড সংস্থাকে "এ" বিভাগের শেয়ার থেকে "জেড" বিভাগের শেয়ারে ডাউনগ্রেড করে। [৭] একই মাসে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আপত্তির মুখেও বিআরবি কেবল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, যা একটি বেসরকারি তার উৎপাদন কারখানা , ইস্টার্ন ক্যাবলের ৩০ শতাংশ শেয়ার শেয়ার বাজার থেকে কিনেছিল। বাংলাদেশ সরকার ৫১ শতাংশ শেয়ারের মালিকানা পায়, বাকি অংশ পুঁজিবাজারে থাকে। [৮]

কোম্পানিটির, ২০১৮ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত পূর্বের উপার্জন ২২৯ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। [৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Cable industry thrives on housing growth"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২১ জুলাই ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০ 
  2. "33rd AGM of Eastern Cables Limited"Dhaka Tribune। ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০ 
  3. "Industries Minister visits Eastern Cables in Ctg"The Daily Observer। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০ 
  4. "Proper govt guidance is key to sustainable growth"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ অক্টোবর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০ 
  5. "Eastern Cables Limited Company Profile - Bangladesh"emis.com। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০ 
  6. "Legal moves halt govt share sales"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১২ মে ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০ 
  7. "Eastern Cables now in 'Z' category"The Financial Express (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০ 
  8. "BRB Cables buys 30pc shares of state-run Eastern Cables to go into its board"New Age (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০ 
  9. "Eastern Cables' earnings fall"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১ মে ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০২০