ইয়ুলেইলাকোর শিশু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ইয়ুলেইলাকোর শিশু[১] (স্পেনীয়: [ʝu.ʝaiˈʝa.ko]), অথবা ইয়ুলেইলাকোর মমি হলো ১৯৯৯ সালের ১৬ই মার্চ জোহান রিনহার্ড ও তাঁর প্রত্নতাত্ত্বিক দল কর্তৃক চিলিআর্জেন্টিনা সীমান্তের মাঝখানে ৬,৭৩৯ মিটার (২২,১১০ ফু) আগ্নেয়গিরি পর্বত ইয়ুলেইলাকো সামিটের কাছে আবিষ্কৃত তিনজন ইনকা শিশু মমি। [২] ঐ শিশুদেরকে আনু. ১৫০০ খ্রীস্টাব্দে একটি ইনকা ধর্মীয় অনুষ্ঠানে নরবলি দেওয়া হয়েছিল। অনুষ্ঠানটিতে ঐ শিশুদেরকে মাদক দেওয়া হয়[৩] এবং পর্বতের চূড়ায় শীতল পরিবেশে রেখে দেওয়া হয়, এবং এরপর তাদেরকে মাটির নিচে একটি ১.৫ মিটার (৪.৯ ফু) ছোট কুঠরিতে মরার জন্য রেখে দেওয়া হয়।[৪] রিনহার্ডের মতে মমিগুলো "এখন পর্যন্ত পাওয়া ইনকা মমিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালোভাবে সংরক্ষিত মমি", এবং অন্যান্য প্রত্নতাত্ত্বিকেরারও একই মত প্রকাশ করেন। তারা এদের বিশ্বে সবচেয়ে ভালোভাবে সংরক্ষিত মমি বলে উল্লেখ করেন।[৫][৬][৭]

২০০১ সালের ২০ই জুন আর্জেন্টিনার জাদুঘর, স্থাপত্য ও ঐতিহাসিক স্থান বিষয়ক জাতীয় কমিশন ইয়ুলেইলাকোর শিশুদের আর্জেন্টিনার জাতীয় ঐতিহাসিক সম্পদ বলে ঘোষনা করে।[১] ২০০৭ সাল থেকে মমিগুলোকে আর্জেনটিনার শহর সাল্টার মিউজিয়াম অব হাই অল্টিচুড আর্কিওলজি জাদুঘরে রাখা আছে।

প্রেক্ষাপট[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Las tres momias denominadas "Los Niños del Llullaillaco"" (স্পেনীয় ভাষায়)। Comisión Nacional de Monumentos, de Lugares y de Bienes Históricos। ২ ডিসেম্বর ২০১৩। Archived from the original on ৩ ডিসেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৮ আগস্ট ২০১৭ 
  2. টেমপ্লেট:Cite GVP
  3. "Inca Child Sacrifice Victims Were Drugged"। ২৯ জুলাই ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৩১ আগস্ট ২০১৭ 
  4. "Final Moments of Incan Child Mummies' Lives Revealed"Live Science। সংগ্রহের তারিখ ৩১ আগস্ট ২০১৭ 
  5. Sawyer, Kathy (৭ এপ্রিল ১৯৯৯)। "Mummies of Inca Children Unearthed"Washington Post। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুলাই ২০১২ 
  6. Alface, Isabel (২৯ জুলাই ২০১৩)। "Secret Last Moments of 500-Year-Old Inca Mummified Children Revealed"Nature World News। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১৬ 
  7. Morelle, Rebecca (৩০ জুলাই ২০১৩)। "Inca mummies: Child sacrifice victims fed drugs and alcohol"BBC News। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০১৬