আমিবা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আরেই ফর মাইক্রোওয়েভ ব্যকগ্রাউন্ড অ্যানাইসোট্রপি (আমিবা)
AMiBA 1.jpg
২০০৬ সালে আমিবা নির্মাণ হয়েছে
অবস্থানমাওনা লোয়া, হাওয়াই
স্থানাঙ্ক১৯°৩২′১০″ উত্তর ১৫৫°৩৪′৩১″ পশ্চিম / ১৯.৫৩৬১৯৪° উত্তর ১৫৫.৫৭৫২৭৮° পশ্চিম / 19.536194; -155.575278স্থানাঙ্ক: ১৯°৩২′১০″ উত্তর ১৫৫°৩৪′৩১″ পশ্চিম / ১৯.৫৩৬১৯৪° উত্তর ১৫৫.৫৭৫২৭৮° পশ্চিম / 19.536194; -155.575278 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
উচ্চতা৩,৩৯৬ মিটার
তরঙ্গদৈর্ঘ্য৩ মিমি (৮৬–১০২ GHz)
নির্মিত২০০০–২০০৬
প্রথম আলোসেপ্টেম্বর ২০০৬
দূরবীক্ষণের ধরনInterferometer
ব্যাস০.৫৭৬ মিটার
মাধ্যমিক ব্যাসার্ধ[রূপান্তর: অকার্যকর সংখ্যা] উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
তৃতীয় ব্যাসার্ধ[রূপান্তর: অকার্যকর সংখ্যা] উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দীপ্ত ব্যাস[রূপান্তর: অকার্যকর সংখ্যা] উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দৈর্ঘ্য[রূপান্তর: অকার্যকর সংখ্যা] উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
প্রস্থ[রূপান্তর: অকার্যকর সংখ্যা] উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
কৌণিক রেজল্যুশনআর্কমিনিট (আমিবা৭);
২ আর্কমিনিট (আমিবা১৩)
দীপ্ত এলাকা[রূপান্তর: অকার্যকর সংখ্যা] উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মাউন্টিংহেক্সাপোড প্ল্যাটফর্ম
বেষ্টনরিট্র্যাকটাবল শেল্টার
ওয়েবসাইটamiba.asiaa.sinica.edu.tw উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
আমিবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-এ অবস্থিত
আমিবা
আরেই ফর মাইক্রোওয়েভ ব্যকগ্রাউন্ড অ্যানাইসোট্রপি (আমিবা) অবস্থান

ইউয়ান ৎসে লি আরেই ফর মাইক্রোওয়েভ ব্যাকগ্রাউন্ড অ্যানাইসোট্রপি, (ইংরেজি: Yuan-Tseh Lee Array for Microwave Background Anisotropy) আরেই ফর মাইক্রোওয়েভ ব্গ্রাউন্ড অ্যানাইসোট্রপি বা (আমিবা) নামে পরিচিত। এটি একটি বেতার দূরবীক্ষণ যন্ত্রগ্যালাক্সি ক্লাস্টার-এ মহাজাগতিক অণুতরঙ্গ পটভূমি বিকিরণ এবং সানিয়েভ-যাল'ডভিচ ইফেক্ট পর্যবেক্ষণ করতে আমিবা ডিজাইন করা হয়েছিল। এটি হাওয়াই এর মাওনা লোয়া-তে অবস্থিত যা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩,৩৯৬ মিটার (১১,১৪২ ফু) উপরে।

আমিবা মূলত হেক্সাপড মাউন্ট এর উপর ৭ উপাদানের একটি ইন্টারফেরোমিটার হিসেবে গঠিত হয়। ৩ মিমি (৮৬-১০২ GHz) তরঙ্গদৈর্ঘ্য বিস্তৃত পর্যবেক্ষণ, ২০০৬ সালের অক্টোবার মাস থেকে আরম্ভ হয় এবং সানিয়েভ-যাল'ডভিচ ইফেক্ট দ্বারা সনাক্তকৃত ৬টি গ্যালাক্সি ক্লাস্টার ২০০৮ সালে ঘোষিত হয়। ২০০৯ সালে দূরবীক্ষণ যন্ত্রটি ১৩ উপাদানে উন্নীত হয় এবং এটি পরবর্তিতে ১৯ উপাদানে উন্নীত হতেও সক্ষম। আমিবা দূরবীক্ষণ যন্ত্রটি একাডেমিয়া সিনিকা ইনস্টিটিউট অব এস্ট্রনোমি এন্ড এস্ট্রফিজিক্স, তাইওয়ান জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং অস্ট্রেলিয়া টেলিস্কোপ ন্যাশনাল ফ্যাসিলিটি এবং আরও কিছু গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায় তৈরী হয়েছে।

পরিকল্পনা[সম্পাদনা]

হেক্সাপড মাউন্টের পিছনে

প্রাথমিকভাবে আমিবাকে ৬ মিটার কার্বন ফাইবার ০.৫৭৬ মিটারের ক্যাসেগ্রেইন দ্বারা হেক্সাপড মাউন্টের উপর ৭-উপাদান ইন্টারফেরোমিটার হিসেবে গঠিত হয়। এটি হাওয়াই এর মাওনা লোয়াতে অবস্থিত। ৩ মিমি (৮৬-১০২ GHz) তরঙ্গদৈর্ঘ্য দ্বারা পর্যবেক্ষণ করা হয় যেন পুরোভূমির অতাপযোগ্য উৎস থেকে তরঙ্গ নির্গমন কমানো যায়। টেলিস্কোপটির একটি সঙ্কোচনীয় অভিগমন আছে যা সাতটি ইস্পাতের আঁটি এবং পিভিসি ফেব্রিক দিয়ে তৈরী।[১]

রিসিভারেরা মনোলিথিক মাইক্রোওয়েভ ইন্টিগ্রেটেড সার্কিট প্রযুক্তি এবং লো নয়েজ এম্পলিফায়ার্স (যেগুলোর ২০ GHz ব্যান্ডউইথ আছে[১] এবং ৪৬ dB এম্পলিফিকেশন যোগান দেয়) এর উপর ভিত্তি করে সংকেত গ্রহণ করে।[২] সংকেত গুলো একটি এনালগ কোরিলেটর এর সঙ্গে পারস্পরিক সম্পর্ক করার পূর্বে স্থানিক দোলক এর সাথে একত্রিত হয় সংকেতগুলোর কম্পাঙ্ক কমানোর জন্য। এই সিস্টেমের তাপমাত্রা ৫৫ থেকে ৭৫ কেলভিনের মধ্যে থাকে।[১]

আমিবা ২০০০ সাল থেকে তাইওয়ান মিনিস্ট্রি অব্‌ এডুকেশনের কসমলজি এন্ড পার্টিকেল ফিজিক্স প্রকল্প (৪ বছরের প্রকল্প) মোতাবেক শুরু হয়। ২০০২ সালে ২-উপাদানের আদিরূপের আমিবা মাওনা লোয়াতে স্থাপন করা হয়। চার বছর পর ২য় বারের মতো জাতীয় বিজ্ঞান কাউন্সিল[৩] এটিকে উন্নত করেছে। ২০০৫ সালে আমিবা এর জন্য প্লাটফর্ম তৈরী করা হয়। প্রথম ৭-উপাদান টেলিস্কোপ (আমিবা৭) এর কার্যক্রম বৃহস্পতি গ্রহ পর্যবেক্ষণের মধ্য দিয়ে শুরু হয় ২০০৬ সালে। টেলিস্কোপটি ২০০৬ সালে ইউয়ান ৎসে লি এর নামে উৎসর্গিত করা হয়। ২০০৯ সালে এই টেলিস্কোপটিকে ১৩-উপাদান টেলিস্কোপ আমিবা১৩ এ রূপান্তরিত হয়।[১] অনেক পরীক্ষা এবং ক্রমাঙ্কনের পরে ২ বছর পরে ২০১১ সালে এটি দ্বারা আবারও পর্যবেক্ষণ করা শুরু হয়। এটিকে ১৯-উপাদান পর্যন্ত সম্প্রসারিত করা যাবে।[২]

পর্যবেক্ষণ[সম্পাদনা]

আমিবার প্রাথমিক লক্ষ্য হলো মহাজাগতিক অণুতরঙ্গের পটভূমির তাপমাত্রা ও মেরুকরণ করা এবং গ্যালাক্সি ক্লাস্টারে সানিয়েভ যাল'ডভিচ ইফেক্ট পর্যবেক্ষণ করা। প্রাথমিক পর্যায়ে এটি ৩০০০[১] মেরুর পরিমাপ করে যার রজল্যুশন ৬ আর্কমিনিট। গ্রহগুলোর ক্রমাঙ্কনের জন্য শুধু ভালো আবহাওয়ায় রাতের আকাশে টেলিস্কোপটি দ্বারা পর্যবেক্ষণ করা হয়।[৪]

২০০৭ সালে ৬টি ক্লাস্টার আমিবা দ্বারা শনাক্ত হয়। এগুলো এবেল গ্যালাক্সিতে পাওয়া যায়। তাই এগুলোকে এবেল ক্লাস্টার বলা হয়। ৬টি ক্লাস্টার হলো এবেল ক্লাস্টার ১৬৮৯, ১৯৯৫, ২১৪২, ২২৬১ এবং ২৩৯০ যেগুলোর ০.০৯১ এবং ০.৩২২ লোহিত সরণ রয়েছে। বড় এবং উজ্জ্বল চারটি ক্লাস্টার হলোঃ এবেল ১৬৮৯, ২২৬১, ২১৪২ এবং ২৩৯০। এগুলোর আকার এবং ঔজ্জ্বল্যতা তুলনা করা হয়েছে এক্স-রশ্মি দ্বারা সুবারু দুর্বল লেন্সিং থেকে প্রাপ্ত রশ্মিয় বৈশষ্ট্য এবং বিন্যাস থেকে। ভবিষ্যদ্বাণী করা হচ্ছে যে, ১৩ অথবা ১৯-উপাদান টেলিস্কোপ সানিয়েভ-যাল'ডভিচ ইফেক্ট ব্যবহার করে বছরে ৮০টি ক্লাস্টার শনাক্ত করতে পারবে।[৪]

সহযোগিতা[সম্পাদনা]

আমিবা টেলিস্কোপটি একাডেমিয়া সিনিকা ইনস্টিটিউট অব এস্ট্রনোমি এন্ড এস্ট্রফিজিক্স, ন্যাশনাল তাইওয়ান ইউনিভার্সিটি এবং অস্ট্রেলিয়া টেলিস্কোপ ন্যাশনাল ফ্যাসিলিটি এর যৌথ উদ্যোগ এবং সহযোগিতায় তৈরী হয়। এছাড়াও হার্ভার্ড -স্মিথসনিয়ান সেন্টার ফর এস্ট্রোফিজিক্স, ন্যাশনাল রেডিও এস্ট্রোনমি অবজারভেটরি, হাওয়াই বিশ্ববিদ্যালয়, ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়, নটিংহ্যাম ট্রেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়, কানাডা তাত্ত্বিক জ্যোতির্বিজ্ঞান ইনস্টিটিউ এবং কার্নেগী মেলন বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ববিদালয়ের গবেষকদের সহযোগিতায় আমিবা তৈরী হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ho, Paul; ও অন্যান্য (২০০৮)। "The Yuan-Tseh Lee Array for Microwave Background Anisotropy"। arXiv:0810.1871অবাধে প্রবেশযোগ্যdoi:10.1088/0004-637X/694/2/1610বিবকোড:2009ApJ...694.1610H 
  2. Wu, Jiun-Huei Proty (2008). "AMiBA Observations, Data Analysis and Results for Sunyaev-Zel'dovich Effects". arXiv:0810.1015.
  3. Ho, Paul T.P.; ও অন্যান্য (২৮ জুন ২০০৮b)। "The Yuan Tseh Lee AMiBA Project"। Modern Physics Letters A (MPLA)23 (17/20): 1243–1251। doi:10.1142/S021773230802762Xবিবকোড:2008MPLA...23.1243H 
  4. Umetsu, Keiichi; ও অন্যান্য (২০০৮)। "Mass and Hot Baryons in Massive Galaxy Clusters from Subaru Weak Lensing and AMiBA SZE Observations"। arXiv:0810.0969অবাধে প্রবেশযোগ্যdoi:10.1088/0004-637X/694/2/1643বিবকোড:2009ApJ...694.1643U