আব্রাহাম পেইস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Abraham Pais
Abraham Pais.jpg
Abraham (Bram) Pais
জন্ম(১৯১৮-০৫-১৯)১৯ মে ১৯১৮
Amsterdam, Netherlands
মৃত্যুজুলাই ২৮, ২০০০(2000-07-28) (বয়স ৮২)
Copenhagen, Denmark
বাসস্থানNetherlands, United States, Denmark
জাতীয়তাDutch, American
কর্মক্ষেত্রPhysicist
প্রতিষ্ঠানRockefeller University
Institute for Advanced Study, Princeton
Niels Bohr Institute
প্রাক্তন ছাত্রUniversity of Amsterdam, University of Utrecht
পিএইচডি উপদেষ্টাLéon Rosenfeld
পরিচিতির কারণG-parity
Treatment of SU(6) symmetry breaking
Coining the term "Standard Model"[১]
উল্লেখযোগ্য
পুরস্কার
Andrew Gemant Award (1993)
স্ত্রী/স্বামীJeanne
Lila Lee Atwill
Ida Nicolaisen

আব্রাহাম পেইস (মে ১৯, ১৯১৮ – জুলাই ২৮, ২০০০) ছিলেন একজন ডাচ-আমেরিকান পদার্থবিজ্ঞানী এবং বিজ্ঞান ইতিহাসবিদ। পেইস দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ডাচ বিশ্ববিদ্যালয়ে ইহুদিদের অংশগ্রহণের উপর নাৎসিবাহিনীর নিষেধাজ্ঞার ঠিক আগে উট্রেখট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। যখন নাৎসিরা জোর পূর্বক ডাচ ইহুদিদের স্থানান্তর শুরু করে,তখন তিনি লুকিয়ে পড়েন, কিন্তু পরে তিনি গ্রেফতার হন। [২] এরপর তিনি ডেনমার্কের নিলস বোরের সহকারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এবং পরে নিউ জার্সির প্রিন্সটনে ইনস্টিটিউট ফর অ্যাডভান্সড স্টাডিতে আলবার্ট আইনস্টাইনের সহকর্মী ছিলেন। পেইস এই দুই মহান পদার্থবিজ্ঞানীর জীবন এবং আধুনিক পদার্থবিজ্ঞানে তাদের অবদান নিয়ে বই লিখেছেন। অবসর গ্রহণের আগ পর্যন্ত তিনি রকফেলার বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞানের অধ্যাপক ছিলেন।

প্রথম জীবন[সম্পাদনা]

পেইস আমস্টারডামে জন্মগ্রহণ করেন, তিনি ছিলেন মধ্যবিত্ত ডাচ ইহুদি পিতামাতার প্রথম সন্তান। তার পিতা ইশাইয়া "জ্যাক" পেইস, সেপারডিক ইহুদিদের বংশধর ছিলেন যারা ১৭ শতকের শুরুতে পর্তুগাল থেকে অন্যান্য দেশে স্থানান্তরিত হন। তার মা কাটজে "কাটো" ভ্যান ক্লিফ ছিলেন আশকেনাজি ডায়মন্ড কাটারের কন্যা। তার পিতামাতা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়ার জন্য পড়াশোনা করার সময় মিলিত হন। তার একমাত্র সহোদর অ্যানি, নভেম্বর ১, ১৯২০ সালে জন্মগ্রহণ করেন। পেইসের শৈশবে তার পিতা একটি ধর্মনিরপেক্ষ বিদ্যালয় এবং একটি হিব্রু স্কুল এর প্রিন্সিপাল ছিলেন। [৩]

পেইস তার প্রাথমিক শিক্ষার সময় একজন মেধাবী ছাত্র এবং একজন সাহসী পাঠক ছিলেন এবং বলেন যে তার একটি সুখী শৈশব ছিল। [৪] ১২ বছর বয়সে তিনি স্কুলে ভর্তি হওযার জন্য উত্তীর্ণ হন। তিনি তার ক্লাসের এক নম্বর ছাত্র হিসেবে তার চূড়ান্ত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। তিনি ইংরেজি, ফরাসি এবং জার্মান ভাষায় কাজ করার জ্ঞান নিয়ে স্নাতক অর্জন করেন।

উচ্চশিক্ষা[সম্পাদনা]

১৯৩৫ সালে পেইস তার কাঙ্ক্ষিত কর্মজীবন সম্পর্কে কোন স্পষ্ট ধারণা ছাড়াই আমস্টারডাম বিশ্ববিদ্যালয়ে তার পড়াশোনা শুরু করেন। তিনি ধীরে ধীরে রসায়ন ও পদার্থবিজ্ঞানকে প্রধান বিষয় হিসেবে, এবং গণিত ও জ্যোতির্বিজ্ঞানকে ছোট খাটো বিষয় হিসেবে গ্রহণ করেন। পেইস উহেলেনবেকের এনরিকো ফার্মির নিউট্রিনোকে বিটা বিকিরণ তত্ত্বে অন্তর্ভুক্ত করার আলোচনা শুনে মুগ্ধ হয়েছিলেন।

তিনি ১৯৩৮ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি পদার্থবিজ্ঞান ও গণিতে বিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। তিনি আমস্টারডামে স্নাতক কোর্সে অংশগ্রহণ শুরু করেন, যার মধ্যে পদার্থবিজ্ঞানও ছিল।

১৯৩৮ সালে পেইস উট্রেখট বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক শ্রেণীতে ভর্তি হন। পেইস শীঘ্রই অন্যান্য বিশিষ্ট ডাচ পদার্থবিজ্ঞানী এবং পরীক্ষামূলক পদার্থবিজ্ঞানের গবেষণার ক্ষেত্রগুলির সংস্পর্শে আসেন।

জার্মানদের কর্তৃক দখল[সম্পাদনা]

পেইস তার ছাত্র জীবনে ইহুদিবাদী আন্দোলনে জড়িত ছিলেন, যার মাধ্যমে তিনি ট্রাশা (তিরৎসা) ভ্যান আমেরনগেন এবং টিনা (টিনেক) স্ট্রোবোসের সাথে পরিচিত হন এবং এই দুই নারী এবং তাদের পরিবারের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে গড়ে তোলেন।

জার্মানরা ধীরে ধীরে ডাচ ইহুদিদের কার্যকলাপ সীমাবদ্ধ করতে শুরু করে।

বিজ্ঞান ইতিহাসবিদ[সম্পাদনা]

১৯৭০-এর দশকের শেষের দিকে পেইস আধুনিক পদার্থবিজ্ঞানের ইতিহাস নথিভুক্ত করতে আগ্রহী হয়ে ওঠেন। তিনি অনুভব করেন যে, এটা করার জন্য একটি অনন্য অবস্থানে আছেন।

পেইস সম্ভবত আলবার্ট আইনস্টাইনের জীবনী রচনার জন্যই সর্বাধিক পরিচিতি লাভ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Cao, Tian Yu. Conceptual developments of 20th century field theories. Cambridge University Press, 1998, p. 320.
  2. Land-Weber, Ellen (১৯৮৬)। "Bram Pais Tells His Story (1986)"To Save A Life: Stories Of Holocaust RescueHumboldt State University। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১১-০২ 
  3. https://www.haaretz.com/jewish/.premium-this-day-birth-of-physicist-who-wrote-about-evading-the-nazis-1.5363612
  4. Pais 1997