আকাশ (ক্ষেপণাস্ত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আকাশ (ক্ষেপণাস্ত্র)
Akash Indian Army.jpg
আকাশ ক্ষেপণাস্ত্রকে ওড়িশা রাজ্যের চাঁদিপুরে অবস্থিত ইন্টিগ্রেটেড টেস্ট রেঞ্জ (আইটিআর) থেকে পরীক্ষার জন্য ছোঁড়া হচ্ছে।
প্রকার স্থানান্তরণে সক্ষম ভূমি থেকে বায়ুতে নিক্ষেপণ যোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা
উদ্ভাবনকারী ভারত
ব্যবহার ইতিহাস
ব্যবহারকাল ২০০৯-বর্তমান
ব্যবহারকারী ভারতীয় সেনাবাহিনী
ভারতীয় বিমানবাহিনী
উৎপাদন ইতিহাস
নকশাকারী প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা
উৎপাদনকারী অর্ডিন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ড
ভারত ডায়নামিক্স লিমিটেড
ভারত ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড
উৎপাদনকাল ২০০৯-বর্তমান
উৎপাদন সংখ্যা ৩০০০ টি ক্ষেপণাস্ত্র[১]
তথ্যাবলি
ওজন ৭২০ কেজি (১,৫৯০ পা)
দৈর্ঘ্য ৫৭৮ সেমি (২২৮ ইঞ্চি)
ব্যাস ৩৫ সেমি (১৪ ইঞ্চি)

Warhead উচ্চ বিস্ফোরক, প্রাক-খণ্ডিত মস্তক (ওয়ারহেড)
Warhead weight ৬০ কেজি (১৩০ পা)
ডিটোনেশন
কৌশল
আরএফ প্রক্সিমিটি ফিউজ

প্রপেল্যান্ট সলিড প্রোপেল্যান্ট বুস্টার এবং অবিচ্ছেদ্য রকেট / রামজেট ধারক মোটর
অপারেশনাল
রেঞ্জ
৩০ কিমি (১৯ মা)[২]
Flight ceiling ১৮ কিমি (৫৯,০০০ ফু)
গতিবেগ মাচ ২.৫[২]
নির্দেশনা
পদ্ধতি
আদেশ নির্দেশনা

আকাশ (আইএএসটি: Ākāśa) একটি মাঝারি পরিসরের মোবাইল ভূমি পৃষ্ঠ থেকে বায়ুতে নিক্ষেপণ যোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, যা প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (ডিআরডিও) দ্বারা নির্মিত এবং ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার জন্য ভারত ডায়নামিক্স লিমিটেড (বিডিএল) এবং ভারতে অন্যান্য রাডারগুলির জন্য, নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রগুলির জন্য ভারত ইলেকট্রনিক্স ( বিএল) দ্বারা উৎপাদিত।[৩][৪][৫] ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাটি ৩০,০০০ মিটার দূরে ১৮,০০০ মিটার উচ্চতা পর্যন্ত বিমানকে লক্ষ্য করতে পারে।[৬] এটি যুদ্ধবিমান, ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র এবং বায়ু থেকে পৃষ্ঠতলে আঘাতকারী ক্ষেপণাস্ত্রের পাশাপাশি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের মতো বায়ু বা আকাশ থেকে আক্রমণকে প্রতিরোধ করার ক্ষমতা রাখে।[৭][৮][৯][১০] এটি ভারতীয় সেনাবাহিনী এবং ভারতীয় বিমানবাহিনীর সাথে পরিষেবাতে রয়েছে।

একটি আকাশের ব্যাটারিতে একটি একক রাজেন্দ্র ৩ডি প্যাসিভ ইলেক্ট্রনিক্যাল স্ক্যান অ্যারে রাডার এবং তিনটি ক্ষেপণাস্ত্রের সাথে চারটি লঞ্চার রয়েছে, সবগুলিই একে অপরের সাথে সংযুক্ত। প্রতিটি ব্যাটারি ৬৪ টি পর্যন্ত লক্ষ্য বস্তু সনাক্ত করতে পারে এবং এর মধ্যে ১২ টি পর্যন্ত আক্রমণ করতে পারে। ক্ষেপণাস্ত্রটির একটি ৬০ কেজির (১৩০ পাউন্ড) উচ্চ বিস্ফোরক এবং প্রাক-খণ্ডিত ওয়ারহেড রয়েছে প্রক্সিমিটি ফিউজ'সহ। আকাশ ব্যবস্থাটি পুরোপুরি স্থানান্তর যোগ্য এবং যানবাহনের চলন্ত কনভয় রক্ষায় সক্ষম। লঞ্চ প্ল্যাটফর্মটি চাকাযুক্ত এবং ট্র্যাক উভয় যানবাহনের সাথে সংহত করা হয়েছে। আকাশ সিস্টেমটি প্রাথমিকভাবে এয়ার ডিফেন্স এসএএম হিসাবে তৈরি করা হয়েছে, তবে এটি একটি ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ভূমিকাতেও পরীক্ষা করা হয়েছে। ব্যবস্থাটি ২,০০০ বর্গ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে বিমান প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্রের কভারেজ সরবরাহ করে। রাডার ব্যবস্থা'সহ (ডাব্লুএলআর এবং নজরদারি) আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র ক্রয়ের জন্য ভারতীয় সামরিক বাহিনীর আবেদনের সম্মিলিত মোট মূল্য ২৩,৩০০ কোটি (মার্কিন ডলার ৪ বিলিয়ন)।[১১][১২][১৩]

অবস্থা[সম্পাদনা]

ভারতীয় সেনা[সম্পাদনা]

২০১৭ সালের প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেড চলাকালীন আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র

২০১০ সালের জুনে, প্রতিরক্ষা অধিগ্রহণ কাউন্সিল (ডিএসি) একটি আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা ক্রয়ের আদেশ দেয়, যার মূল্য ১২,৫০০ কোটি (২.৮ বিলিয়ন ডলার) টাকা। ভারত ডায়নামিক্সকে (বিডিএল) আকাশ আর্মি সংস্করণের ব্যাবস্থা সংযোগকারক এবং নোডাল প্রযোজনা সংস্থা হিসাবে নিযুক্ত করার কথা বলা হয়।[১১] সেনাবাহিনী ক্ষেপণাস্ত্রের দুটি রেজিমেন্ট যুক্ত করার পরিকল্পনা করে।[১৪]

বিস্তৃতি[সম্পাদনা]

ভারতীয় বিমানবাহিনী আকাশকে গওয়ালিয়ের (মহারাজপুর এএফএস), জলপাইগুড়ি (হাসিমারা এএফএস), তেজপুর, জোড়হাট এবং পুনের (লোহেগাঁও এএফএস) ঘাঁটিতে স্থাপন করেছে।[১৫][১৬]

ভারতীয় সেনাবাহিনী ২০১৫ সালের জুন থেকে জুলাই মাসের মধ্যে একটি আকাশ রেজিমেন্ট মোতায়েন করেছে, দ্বিতীয়টি ২০১৬ সালের শেষদিকে প্রস্তুত হবে।[১৭]

ব্যবহারকারী[সম্পাদনা]

 ভারত
  • ভারতীয় বিমানবাহিনী — আটটি স্কোয়াডন পরিষেবাতে, আরও সাতটি ক্রয়ের জন্য আবেদন করা হয়েছে।[১৮][১৯] প্রতিটি স্কোয়াড্রনে ১২৫ টি ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে।[২০]
  • ভারতীয় সেনাবাহিনী — ২০১৫ সালে হস্তান্তর শুরু হওয়ার সাথে সাথে দুটি রেজিমেন্ট ক্রয়ের জন্য আবেদন করা হয়েছে। আরও দুটি ক্রয়ের জন্য আবেদন করার পরিকল্পনা করা হয়েছে।[২১] প্রতিটি রেজিমেন্টে ২৪০-২৮৮ টি লঞ্চার এবং ৬২৫-৭৫০ টি ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে।[২২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Indian Army Orders Akash Missile System"। Aviation Week। ২৫ মার্চ ২০১১। ২৭ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মে ২০১২ 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Sify নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; dr নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  4. "AkashSAM.com"। ২৮ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  5. "Guided Threat Systems"। International Electronic Countermeasures HandbookJournal of Electronic Defense Staff। Artech House। ২০০৪। পৃষ্ঠা 115। আইএসবিএন 978-1-58053-898-5 
  6. Asian tribune: Upgraded version of ‘Akash’ test fired; By Hemanta Kumar Rout[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. "Akash missile successfully test fired for second day, Dated:18 November 2014"। ৬ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৯ 
  8. "India Successfully Test Fires Medium-Range Akash Missile"ndtv.com। ১২ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৬ 
  9. "Nuclear-capable Akash missile test fired | India News - Times of India"। ২৭ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১২  Nuclear-capable Akash missile test fired
  10. "Akash Surface-to-Air Missile System"। ২৭ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১২  kash Surface-to-Air Missile System, India[অনির্ভরযোগ্য উৎস?]
  11. "Akash Missile System For Indian Army OK'd"। ২৭ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 
  12. "Akash Missile Users Give Feedback To DRDO | AVIATION WEEK"। ২৭ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 
  13. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ২৭ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 
  14. Press Trust of India (২ ডিসেম্বর ২০১০)। "India eyes producing more Akash missiles, BEL expects windfall"। ১৩ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  15. "Akash Air Defence System to be Formally Inducted Into IAF"The New Indian Express। ৩০ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  16. "Surface-to-air missile 'Akash' inducted in IAF - Times of India"The Times of India। ১৩ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  17. "Indian Army gets muscle with Akash missile system - Rediff.com India News"www.rediff.com। ৭ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  18. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; :1 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  19. Pandit, Rajat (১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯)। "Akash missile: Rs 5400 crore deal inked for 7 more squadrons of Akash missiles for IAF"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। 
  20. "IAF orders another 750 Akash SAMs"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। Indo-Asian News Service। ২ ফেব্রুয়ারি ২০১০। ৬ মার্চ ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ মার্চ ২০১৯ 
  21. Peri, Dinakar (৩০ মে ২০১৭)। "More Akash systems for Army"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ মার্চ ২০১৯ 
  22. Nair-Ghaswalla, Amrita (৪ মে ২০১৮)। "Army to get 'enhanced' Akash missiles"The Hindu Business Line (ইংরেজি ভাষায়)।