আকবরনামা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আকবরনামা গ্রন্থের পুথিচিত্রে দৃষ্ট সম্রাট আকবরের রাজসভা

আকবরনামা (ফার্সি: اکبرنامه; অর্থঃ আকবরের বই) হলো খ্রিষ্টীয় ষোড়শ শতকের মুঘল সম্রাট আকবরের প্রধানমন্ত্রী আবুল ফজল ইবন মুবারক কর্তৃক ফার্সি ভাষায় রচিত একটি জীবনী গ্রন্থ যাতে সম্রাট আকবরের জীবন ও সেই সময়ের সার্বিক চিত্র ফুটে উঠেছে।[১] তিন খন্ডে রচিত এই সুবিশাল গ্রন্থটির তৃতীয় খন্ডটি আইন-ই-আকবরি নামে পরিচিত যা সম্রাট আকবরের প্রশাসনের বিস্তারিত বর্ণনাসমৃদ্ধ একটি নথি হিসাবে সর্বসাধারণে সুবিদিত[২] এবং ভারতীয় উপমহাদেশের ইতিহাস সম্পর্কিত তথ্য প্রাপ্তির উত্‌স হিসাবে আকবরনামাকে সর্বোত্তম বলে গণ্য করা হয়।[৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

এই গ্রন্থটি আকবরের নির্দেশে তার দরবারে থাকা নবরত্নের অন্যতম রত্ন ঐতিহাসিক আবুল ফজল সাত বছরে এই গ্রন্থটি রচনা করেন যাতে সম্রাটের দরবারে থাকা ৪৯ জন চিত্রকরের দ্বারা অঙ্কিত অসংখ্য চিত্র রয়েছে লিখিত বিবরণের সাথে দলিল হিসাবে যেগুলো ১৫৯২ হতে ১৫৯৪ সালের মধ্যে আঁকা হয়।[৪] আবুল ফজল ১৬০২ সালে নিহত হওয়ায় তখন থেকে ১৬০৫ সাল সময়ের ঘটনাবলী ইনায়েতউল্ল্যা লেখেন।[৩]

খন্ডসমূহ[সম্পাদনা]

আকবরনামা তিন খন্ডে বিভক্ত, যার প্রথম খন্ডে রয়েছে তিমুর বংশের ইতিহাস, বাবুর ও হুমায়ুনের রাজত্বকাল এবং দিল্লির শূর বংশের সুলতানদের বিবরণ; দ্বিতীয় খন্ডে আকবরের রাজত্বের ছেচল্লিশতম বছর পর্যন্ত ঘটনাবলির বিস্তৃত বিবরণ; এবং তৃতীয় খন্ডে আকবরের সাম্রাজ্যে প্রচলিত বিধিবিধান ও সংশ্লিষ্ট বিষয়াবলি বর্ণিত আছে যা আইন-ই-আকবরী নামে পরিচিত।[৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Illustration from the Akbarnama: History of Akbar ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৯ সেপ্টেম্বর ২০০৯ তারিখে Art Institute of Chicago
  2. Introduction to Akbaranama and Ain-e-Akbari Columbia University
  3. আবদুল করিম (জানুয়ারি ২০০৩)। "আকবরনামা"। সিরাজুল ইসলামবাংলাপিডিয়াঢাকা: এশিয়াটিক সোসাইটি বাংলাদেশআইএসবিএন 984-32-0576-6। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  4. "Akbar's mother travels by the boat to Agra"V & A Museum 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]