বিষয়বস্তুতে চলুন

অন্তরীক্ষম ৯০০০ কেএমপিএইচ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অন্তরীক্ষম ৯০০০ কেএমপিএইচ
অফিসিয়াল পোস্টার
পরিচালকসঙ্কল্প রেড্ডি
প্রযোজকসাইবাবু জাগরলামুদি
রাধা কৃষ্ণণ জাগরলামুদি
ওয়াই. রাজীব রেড্ডি
রচয়িতাসঙ্কল্প রেড্ডি
শ্রেষ্ঠাংশেবরুণ তেজ
অদিতি রাও হায়দারি
লাবণ্য ত্রিপাঠি
সত্যদেব কাঁচরানা
রহমান
আভাসলা শ্রীনিবাস
সুরকারপ্রশান্ত আর বিহারী
চিত্রগ্রাহকজ্ঞান শেকার ভি. এস.
সম্পাদকপ্রাউইন পুদি
প্রযোজনা
কোম্পানি
ফার্স্ট ফ্রেম এন্টারটেইনমেন্ট
মুক্তি
  • ২১ ডিসেম্বর ২০১৮ (2018-12-21)
স্থিতিকাল১৪০ মিনিট[১]
দেশভারত
ভাষাতেলুগু
নির্মাণব্যয় ২৫ কোটি (ইউএস$ ৩.০৬ মিলিয়ন) - [২]
আয় ৩০ কোটি (ইউএস$ ৩.৬৭ মিলিয়ন)

অন্তরীক্ষম ৯০০০ কেএমপিএইচ ২০১৮ সালে তেলুগু-ভাষায় নির্মিত একটি ভারতীয় বিজ্ঞান কল্পকাহিনী-নির্ভর অ্যাডভেঞ্চার চলচ্চিত্র[১] ছবিটির কাহিনী রচনা ও পরিচালনা করেছেন সঙ্কল্প রেড্ডি [৩][৪] এবং শ্রেষ্ঠাংশে রয়েছেন বরুণ তেজ, অদিতি রাও হায়দারি এবং লাবণ্য ত্রিপাঠি[৫] ১৫ আগস্ট ২০১৮ তারিখে ভারতের স্বাধীনতা দিবসে ছবিটি প্রথম প্রদর্শিত হয়েছিল।[৬] টিজার প্রকাশিত হয়েছিল ১৭ অক্টোবর ২০১৮ তে। [৭] ট্রেলার প্রকাশিত হয় ৯ ডিসেম্বর ২০১৮ তে। [৮] ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ২০১৮ সালের ২১ ডিসেম্বরে। ছবিটি বেশ কয়েকটি ভাষায় ডাব করা হয়। এই চলচ্চিত্রটি তেলুগু ভাষায় প্রথম স্পেস-ভিত্তিক বিজ্ঞান কল্পকাহিনী হিসাবে বিবেচিত হয়।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] বরুণ তেজ, অদিতি রাও হায়দারি, এবং লাবণ্য ত্রিপাঠির অভিনয়ের প্রশংসা করে ছবিটি সমালোচকদের কাছ থেকে মিশ্র প্রতিক্রয়া লাভ করে।

পটভূমি[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটি শুরু হয় চাঁদের অন্ধকার দিকে স্যাটেলাইটের চলে যাওয়া দিয়ে। মিহিরা ভারতীয় উপগ্রহগুলির মধ্যে একটি। সেটি স্পেস স্টেশনের সাথে যোগাযোগ হারিয়ে গতি হারাতে থাকে। ফলে অন্য একটি চীনা উপগ্রহের সাথে সংঘর্ষের দিকে এটি চালিত হতে থাকে। চেইন প্রতিক্রিয়ার ফলে বিশ্বজুড়ে যোগাযোগ ব্লকআউট হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। দেব (বরুণ তেজ) স্টেশনের এক অনুরাগী বিজ্ঞানী হিসাবে পরিচিত। মেরামত করার জন্য সিস্টেম কোডগুলি কেবল সেই জানে। দেব পাঁচ বছর আগে স্পেস স্টেশন ছেড়ে গিয়েছে। তাঁর সঙ্গে স্টেশন পরিচালক চন্দ্রকান্তের (রহমান) কন্যা পারু (লাবন্য ত্রিপাঠি) এর প্রেম আছে। পারু একজন স্কুল শিক্ষিকা। দেব আবেগের সাথে ভিপ্রায়ণে কাজ করে। ভিপ্রায়ণ একটি উপগ্রহ যা চাঁদে জলের তথ্য যোগান দেবে। উপগ্রহটির টেকঅফের পরে তাতে একটি গণ্ডগোল হওয়ায় দেব তার বাগদত্তাকে নিয়ে সেটি ঠিক করার জন্য স্পেস স্টেশনের দিকে যাত্রা করে। কিন্তু তার নিজের তাড়াহুড়োর কারণে গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে তারা দুর্ঘটনায় পড়ে। সে উপগ্রহ এবং তার বাগদত্তা উভয়কেই হারিয়ে ভেঙ্গে পড়ে এবং তার চাকরি ছেড়ে দেয়। মিহিরাকে ঠিক করার দরকারে পাঁচ বছর পরে স্কুল শিক্ষকতা থেকে সে ফিরে এসে মিশনে অংশ নেয় এবং তার সহকর্মী রিয়া (অদিতি রাও হায়দারি) এর সাহায্যে জটিল ত্রুটি সংশোধন করতে সক্ষম হয়।

চরিত্রায়ণ[সম্পাদনা]

নির্মাণ[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রের প্রধান ফটোগ্রাফির কাজ ১৯ এপ্রিল ২০১৮ সালে শুরু হয়েছিল এবং ছবির শুটিং ১ অক্টোবর ২০১৮ সালে শেষ হয়েছিল।[৯] ছবির অনেক দৃশ্যের শুটিং হায়দ্রাবাদ এর শূন্য-মাধ্যাকর্ষণ সেটে গ্রহণ করা হয়েছিল।[১০] কিছু গুরুত্বপূর্ণ দৃশ্যের শুটিং হয়েছে মাহিন্দ্রা একলে সেন্ট্রাল এ এবং সেটিকে ছবিতে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা হিসাবে দেখানো হয়েছে।[১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Antariksham 9000 KMPH"British Board of Film Classification 
  2. "Varun Tej on Antariksham 9000 KMPH: We have given our best within our limited budget"The Indian Express। ২৪ ডিসেম্বর ২০১৮। ২০১৮-১২-২৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  3. "Antariksham movie first look"। Times of India। 
  4. "From Jayam Ravi's Tik Tik Tik to Varun Tej's Antariksham, space genre earns mainstream acceptance in southern cinema"। ২০১৮-১০-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৭ 
  5. "Aditi Rao Hydari: Cinema has no boundaries"। ২০১৮-১০-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৭ 
  6. "First look of Antariksham 9000 kmph revealed, Varun Tej's space film looks out of this world"। ২০১৮-১০-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৭ 
  7. "Antariksham 9000 KMPH Teaser: A promising & thrilling space-adventure on the cards"The Times of India। ১৭ অক্টোবর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২২ মার্চ ২০১৯ 
  8. "Over 3M views for Varun Tej, Aditi Rao Hydari and Lavanya Tripathi's Antariksham trailer in no time"। ২০১৮-১২-১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১২-১১ 
  9. "Varun Tej's space-thriller Antariksham 9000 KMPH wraps up its shoot"। ২০১৮-১১-০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৭ 
  10. "Varun Tej's 'Antariksham' is Tollywood's first space movie"। ২০১৮-১০-১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-১৮ 
  11. "Varun Tej Antariksham Story Revealed - Telugu Bullet"Telugu Bullet (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-১১-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-১৯