অটোম্যাটেড ট্রপিক্যাল সাইক্লোন ফোরকাস্টিং সিস্টেম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মডেল থেকে পূর্বাভাস দেয়া গতিপথ এভাবেই এটিসিএফ মডেলে দেখা যায়। এই উদাহরণটি হারিক্যান আর্নেস্টো (২০০৬) এর প্রথম পূর্বাভাস থেকে নেয়া। ন্যাশনাল হারিক্যান সেন্টার (NHC) এর অফিসিয়াল পূর্বাভাসটি হালকা নীল রঙে দেখানো হচ্ছে, যেখানে ঝড়টির আসল গতিপথ ফ্লোরিডার উপর দিয়ে যাওয়া সাদা রেখা দিয়ে দেখানো হচ্ছে।

অটোম্যাটেড ট্রপিক্যাল সাইক্লোন ফোরকাস্টিং সিস্টেম (ইংরেজি: Automated Tropical Cyclone Forecasting System (ATCF), সংক্ষেপে এটিসিএফ, একটি সফটওয়্যার যা জয়েন্ট টাইফুন সেন্টার (জেটিডব্লিউসি) তে ১৯৮৮ সালে [১] এবং ন্যাশনাল হারিক্যান সেন্টার (এনএইচসি) তে ১৯৯০ সালে ব্যক্তিগত কম্পিউটারে চালানোর জন্য উন্নয়ন করা হয়। এটিএফসি এখনো যুক্তরাষ্ট্র সরকারসহ জেটিডব্লিউসি, এনএইচসি, এবং সেন্ট্রাল প্যাসিফিক হারিক্যান সেন্টারে পূর্বাভাস দেবার জন্য ব্যবহার করা মূল সফটওয়্যারখন্ড। অস্ট্রেলিয়া এবং কানাডার অন্যান্য গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রগুলোও নব্বইয়ের দশকে একই রকম সফটওয়্যারের উন্নয়ন করা হয়। এটিসিএফে তথ্যের ফাইলগুলো এ-, বি-, এবং এফ-ডেক নামে তিনটি ডেকে রাখা হয়। এ-ডেকটি পূর্বাভাস সংক্রান্ত তথ্য, বি-ডেকটি সারঃসংক্ষেপিত সময়ে কেন্দ্রের গতিপথ এবং এফ-ডেকটি বিভিন্ন কেন্দ্রের বিশ্লেষন থেকে বিভিন্ন সময়ে করা সংশোধনীগুলো জমা রাখে। সফটওয়্যারটির ব্যবহার শুরু হবার পর থেকে এটি ইউনিক্স এবং লিনাক্সে চালানোর উপযোগী করা হয়েছে।

ডেভলপ করার কারণ[সম্পাদনা]

১৯৮০ সালের মাঝামাঝি সময়ে গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস দেবার জন্য আরো আধুনিক উপায়ের প্রয়োজনীয়তা স্পষ্ট হয়। তখনকার সময়ে আমেরিকার প্রতিরক্ষা বিভাগ গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস দেবার জন্য অ্যাসিটেট, গ্রিজ পেন্সিল এবং কিছু কম্পিউটার প্রোগ্রাম ব্যবহার করত।[১] এটিসিএফ সফটওয়্যারটি নেভাল রিসার্চ ল্যাবরেটরী থেকে জয়েন্ট টাইফুন ওয়ার্নিং সেন্টার (জেটিডব্লুউসি) এর জন্য ১৯৯৬ সালে তৈরি করা হয়[২] এবং ১৯৮৮ সাল থেকে তা ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ১৯৯০ সালের দিকে সিস্টেমটি ন্যাশনাল হারিক্যান সেন্টার (এনএইচসি) কর্তৃক এনএইচসি, ন্যাশনাল সেন্টার ফর এনভায়রনমেন্টাল প্রেডিকশন এবং সেন্ট্রাল প্যাসিফিক হারিক্যান সেন্টারে ব্যবহার করার জন্য আত্নীকরণ করা হয়।[২][৩] সফটওয়্যারটি এনএইচসিকে একটি সব্যসাচী সফটওয়্যার পরিবেশ দেয়, যার মাধ্যমে কর্মদক্ষতা বাড়ানো সম্ভব হয় এবং পূর্বাভাস দেবার জন্য প্রয়োজনীয়স সময় ২৫% বা ১ ঘন্টা কমে আসে।[৩] এটিসিএফ প্রাথমিকভাবে ডস অপারেটিং সিস্টেমে ব্যবহার করার জন্য তৈরি করা হলেও পরবর্তিতে লিনাক্স এবং ইউনিক্স অপারেটিং সিস্টেমে ব্যবহার উপযোগী করা হয়।[২]

ব্যবহৃত তথ্যের ডেক[সম্পাদনা]

৫ই সেপ্টেম্বরে নাবি (২০০৫) এর এটিসিএফ ছবি যেখানে পূর্ববর্তি গতিপথ, পূর্বাভাসকৃত গতিপথের সাথে গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড়, ঝড় এবং হারিক্যানের বাতাসের রেডি, ১৮জি উচ্চতায় দেখানো হচ্ছে।

একটা নির্দিষ্ট ঝড়ের গতিপথের জন্য উপলভ্য পূর্বাভাস দেয়া গতিপথের ইতিহাস এ-ডেক ডাটা ফাইলোগুলোতে সঞ্চিত থাকে। গতিপথের একটি সাব-সেট এবং এই ফাইলগুলোতে সংরক্ষিত তীব্রতার তথ্যগুলো ব্যবহার করে তাৎক্ষণিক দিকনির্দেশন ব্যবস্থা একটি তাৎক্ষণিক দিকনির্দেশকারী গতিপথ অঙ্কন করে। এ-ডেকটি নামটি ফাইলের নামের শুরুতে থাকা এ-উপস্বর্গের কারণে হয়েছে। সাধারণত ফাইলগুলোতে ঝড়ের পুরো জীবনকালের জন্য মডেল অভিক্ষেপ সংযুক্ত করা হয়, যার ফলে ফাইলগুলোর আকার ১ মেগাবাইট পর্যন্ত হতে পারে।[৪]

পূর্ববর্তি ঝড়গুলোর কেন্দ্রের অবস্থান, তীবতা, এবং অন্যান্য প্যারামিটারগুলোর সারসংক্ষেপিত উপাত্ত ৬ ঘন্টা পর পর ইউটিসি ০০০০, ০৬০০, ১২০০ এবং ১৮০০ সময়ে বি-ডেক ফাইলে জমা রাখা হয়। এই ফাইলগুলো সারসংক্ষেপিত সময়ের বাইরেও তথ্য, যেমন ভূমিতে পৌছানোর সময়ও জমা রাখতে পারে। হারিক্যানের মওসুমে ফাইলগুলো উপরে বলা প্যারামিটারগুলোর সর্বোত্তম কর্মক্ষম প্রাক্কলন জমা রাখে, যা সর্বোত্তম কর্মক্ষম গতিপথ হিসেবে পরিচিত। মওসুম শেষ হয়ে যাবার পর ঝড়গুলোকে বিশেষজ্ঞ এবং পূর্বাভাসদাতারা সুচারুরূপে পর্যালোচনা করেন এবং উপাত্তগুলো সে অনুসারে হালনাগাদ করা হয়। মওসুম পরবর্তি ফাইলগুলো সর্বোত্তম গতিপথ হিসেবে পরিচিত। এই সিস্টেমের ওয়েবসাইটে তাৎক্ষণিক উপাত্ত হিসেবে সর্বোত্তম কর্মক্ষম প্রাক্কলনকেই দেখায় (যা কোন পর্যালোচনার মধ্য দিয়ে যায় নি)।[৪]

একটি ঝড়ের অবস্থান এবং তীব্রতা সংক্রান্ত সংশোধনীগুলো এফ-ডেকে জমা রাখা হয়। অবস্থান সংক্রান্ত সংশোধনীগুলো মূলত ঝড়ের কেন্দ্রের প্রাক্কলিত অবস্থানের সংশোধনী। একইভাবে তীব্রতা সংশোধনীগুলো তীব্রতার প্রাক্কলনের সংশোধনী। অবস্থান এবং তীব্রতা, দুটো সংশোধনই নীচ দিয়ে ঝড়ের কেন্দ্রে উড়ে যাওয়া উড়োজাহাজের মাধ্যমে করা সংগ্রহ করা হয়।  স্যাটেলাইট ছবি এবং রিমোট-সেন্সিং যন্ত্র ব্যবহার করেও অবস্থান এবং তীব্রতার সংশোধনী পাওয়া যায়।[৪]

সিস্টেমের শনাক্তকরণ[সম্পাদনা]

জুন ৭, ২০১৪ তে গাল্ফ, মেক্সিকোতে ০০জি তে তৈরি হওয়া একটা প্রশান্ত মহাসাগরীয় ঘটনার জন্য এটিসিএফে যোগান দেয়া তথ্য থেকে তৈরি হওয়া আটলান্টিক অবজেক্টিভ এইডের একটি বার্তা। লক্ষ্যনীয় যে, এটিকে AL902014 দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে, যা দ্বারা ২০১৪ তে আটলান্টিকে তৈরি হওয়া বিশৃঙ্খলাকে বুঝানো হয়েছে।

এটিসিএফের ভেতরে সিস্টেমগুলোকে বেসিনের উপস্বর্গ (AL, CP, EP, IO, SH, SL, WP) দিয়ে এবং ০০ থেকে ৪৯ পর্যন্ত বিভিন্ন সংখ্যা দিয়ে সক্রিয় গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড়গুলোকে চিহ্নিত করা হয়,[৫] যা প্রতিটি নতুন সিস্টেম এবং এর সাথে সংযুক্ত বছরের জন্য বৃদ্ধি করা হয়। ৫০ থেকে ৭৯ পর্যন্ত সংখ্যাগুলো বেসিনের সংক্ষেপিত নামের সাথে যুক্ত করে বেসিন সংশ্লিষ্ট ট্রপিক্যাল সাইক্লোন ওয়ার্নিং সেন্টার এবং রিজিওনাল স্পেশালাইজড মেটেরিওলজিক্যাল সেন্টারে অভ্যন্তরীণ কাজে ব্যবহার করা হয়।[৬] ৮০এর ঘরের সংখ্যাগুলো প্রশিক্ষণের কাজে ব্যবহার করা হয় এবং সংখ্যাগুলো পুনঃব্যবহারযোগ্য। ৯০ এর ঘরের সংখ্যাগুলো বিভিন্ন আগ্রহের যায়গার জন্য ব্যবহার করা হয়,[৭] যা প্রায়শই বিনিয়োগ অথবা বিশৃঙ্খল আবহাওয়ারকে বোঝায়, এবং সংখ্যাগুলো কোন নির্দিষ্ট বছরে পুনঃব্যবহারও করা হয়। তাদের অবস্থা সংস্লিষ্ট তথ্যে ফাইলের সাথে নিম্নলিখিত উপায়ে তালিকাভুক্ত করা হয়: DB - disturbance, TD - tropical depression (গ্রীষ্মমন্ডলীয় নিম্নচাপ), TS - tropical storm (গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড়), TY - typhoon (টাইফুন), ST - super typhoon (সুপার টাইফুন), TC - tropical cyclone (গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড়), HU - hurricane (হারিক্যান), SD - subtropical depression (উপগ্রীষ্মমন্ডলীয় নিম্নচাপ), SS - subtropical storm (উপগ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড়), EX - extratropical systems, IN - inland (ভূমিতে উদ্ভূত), DS - dissipating (নিঃশ্বেষিত হচ্ছে এমন), LO - low (নিচু), WV - tropical wave (গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঢেউ), ET - extrapolated (দূরদর্শিত), এবং XX - unknown(অজানা)। সময়কে ৪ সংখ্যার বছর, মাস, দিন এবং ঘন্টা রূপে লেখা হয়।[৫]

অন্যত্র ব্যবহৃত অনুরূপ সফটওয়্যার[সম্পাদনা]

'৯০ এর দশকে অন্যান্য অনেক দেশ অনুরূপ ঘূর্ণিঝড় পূর্বাভাস দেবার সফটওয়্যার সিস্টেমের উন্নয়ন করে। অস্ট্রেলিয়ার ব্যুরো অফ মেটেওরোলজি অস্ট্রেলিয়ান ট্রপিক্যাল সাইক্লোন ওয়ার্কস্টেশন নামের একটি সিস্টেমের উন্নয়ন করে। কানাডিয়ান হারিক্যান সেন্টারের উন্নয়নকৃত সিস্টেমের নাম কানাডিয়ান হারিক্যান সেন্টার ফোরকাস্টার'স ওয়ার্কস্টেশন।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ronald J. Miller, Ann J. Schrader, Charles R. Sampson, and Ted L. Tsui (ডিসেম্বর ১৯৯০)। "The Automated Tropical Cyclone Forecasting System (ATCF)"। Weather and Forecasting। American Meteorological Society। 5: 653–600। doi:10.1175/1520-0434(1990)005<0653:TATCFS>2.0.CO;2বিবকোড:1990WtFor...5..653M 
  2. Sampson, Charles R; Schrader, Ann J (জুন ২০০০)। "The Automated Tropical Cyclone Forecasting System (Version 3.2)"। Bulletin of the American Meteorological Society। American Meteorological Society। 81 (6): 1231–1240। doi:10.1175/1520-0477(2000)081<1231:tatcfs>2.3.co;2বিবকোড:2000BAMS...81.1231S 
  3. Rappaport, Edward N; Franklin, James L; Avila, Lixion A; Baig, Stephen R; Beven II, John L; Blake, Eric S; Burr, Christopher A; Jiing, Jiann-Gwo; Juckins, Christopher A; Knabb, Richard D; Landsea, Christopher W; Mainelli, Michelle; Mayfield, Max; McAdie, Colin J; Pasch, Richard J; Sisko, Christopher; Stewart, Stacy R; Tribble, Ahsha N (এপ্রিল ২০০৯)। "Advances and Challenges at the National Hurricane Center"। Weather and Forecasting24 (2): 409। doi:10.1175/2008WAF2222128.1বিবকোড:2009WtFor..24..395R 
  4. Jonathan Vigh (২০১৩)। "Tropical Cyclone Guidance Project"। University Center for Atmospheric Research। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৮-২৯ 
  5. United States Naval Research Laboratory (২০১০-০৬-০৮)। "Best Track/ Objective Aid/ Wind Radii Format"United States Navy। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৬-২০ 
  6. Office of the Federal Coordinator for Meteorology (২০০৭)। "61st Interdepartmental Hurricane Conference Action Items" (PDF)। Internet Archive Wayback Machine। পৃষ্ঠা 14। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৫-২০ 
  7. Michael J. Brennan (২০১৩-০৫-১৮)। "Automated Tropical Cyclone Forecast (ATCF) Data Files / Text Files"National Hurricane Center