অক্টিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
১-অক্টিন

অক্টিন একটি অ্যালিফ্যাটিক হাইড্রোকার্বন, এর সমগোত্রীয় শ্রেণীর অণুতে কার্বন=কার্বন দ্বিবন্ধন (C=C) বিদ্যমান। অক্টিন সাধারণভাবে এলকিন বা অলেফিনস নামে পরিচিত। লাতিন অলেফিনস মানে তৈল উৎপাদনকারী। এই যৌগগুলো ক্লোরিনের সাথে বিক্রিয়া করে ডাইক্লোরাইড গঠন করে যা তৈলজাতীয় যৌগ।

CH3 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH= CH2 + Cl2 = CH3 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CHCl-CH2Cl

এটি একটি মুক্ত শিকল অ্যালকিন।

সংকেত[সম্পাদনা]

  • অক্টিনের রাসায়নিক সংকেতঃ C8H16
  • অক্টিনের রাসায়নিক সংকেতঃ CH3 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH=CH2

উৎস[সম্পাদনা]

প্রকৃতিতে প্রাপ্ত[সম্পাদনা]

অক্টিন দুই পদ্ধতিতে উৎপাদন করা যায়। ভাঙন বা ক্রাকিং পদ্ধতিতে পেট্রোলিয়াম থেকে প্রাপ্ত হাইড্রোকার্বন থেকে এটি আহরণ করা হয়। আমেরিকায় প্রাকৃতিক গ্যাস এবং ইউরোপে অপরিশোধিত তেলের ন্যাপথা অংশ থেকে অক্টিন পাওয়া যায়। করে।[১] উচ্চ তাপমাত্রা ও চাপে অক্টেনকে ভাঙলে অক্টিন পাওয়া যায়। সেই সাথে কিছু এলকেনও উৎপন্ন হয়। অক্টেন---> অক্টিন + অ্যালকেন

পরীক্ষাগারে প্রস্তুতি[সম্পাদনা]

পরীক্ষাগারে অধিক পরিমাণ গাঢ় সালফিউরিক এসিডের সাথে অক্টানলকে উত্তপ্ত করলে অক্টিন উৎপন্ন হয়। CH3 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH-OH + H2SO4 = CH3 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH2 -CH=CH2 + (H2O + H2SO4)

শিল্পোৎপাদন পদ্ধতি[সম্পাদনা]

শিল্প কারখানায় অক্টিন উৎপাদনে বেশ কয়েকটি পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়।

অ্যালকোহল থেকে[সম্পাদনা]

অক্টানলকে উচ্চ তাপমাত্রায় এলুমিনিয়াম অক্সাইডের উপর দিয়ে প্রবাহিত করলে প্রচুর পরিমাণে অক্টিন উৎপন্ন হয়। এক্ষেত্রে এলুমিনা (AL2O3) নিরুদক হিসেবে কাজ করে।

অক্টাইন থেকে[সম্পাদনা]

লেড এবং বেরিয়াম সালফেট এর উপস্থিতিতে অক্টাইনের সাথে হাইড্রোজেন যুক্ত হয়ে অক্টিন উৎপন্ন করে।

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

স্বাভাবিক তাপমাত্রায় তরল। অক্টিন অক্টেনের ন্যায় অপোলার জৈব দ্রাবকে দ্রবনীয় কিন্তু পোলার দ্রাবক যেমন পানিতে অদ্রবনীয়। অক্টিনের সাথে নিকেল প্রভাবকের উপস্থিতিতে হাইড্রোজেন অণু যুক্ত হয়ে অক্টেন তৈরী করে।[২]

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

ব্যবহার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. উচ্চ মাধ্যমিক রসায়ন, দ্বিতীয় পত্র, হাজারী এবং নাগ।
  2. উচ্চ মাধ্যমিক রসায়ন, দ্বিতীয় পত্র, ড. মোঃ রবিউল ইসলাম, ড. গাজী মোঃ আহসানুল কবীর, ড. মোঃ মনিমুল হক।