মুসলিম রাষ্ট্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

যেসব দেশে ইসলাম কেন্দ্রিক শাসন ব্যবস্থা প্রচলিত তাদের মুসলিম রাষ্ট্র বলে। কিন্তু সকল মুসলিম অধ্যুষিত দেশেই এই রাষ্ট্রব্যবস্থা প্রচলিত নয়।এই রাষ্ট্রগুলি নিজেদের মুসলিম রাষ্ট্র বা Islamic State ঘোষণার পাশাপাশী ইসলামকেই শাসন তন্ত্রের একমাত্র কৌশল বলে গণ্য করে। এই রাষ্ট্রগুলিতেও একইরকমের শাসন ব্যবস্থা প্রচলিত নেই।কিছু কিছু রাষ্ট্র নিজেদের ইসলামী প্রজাতন্ত্রী ও কিছু কিছু রাষ্ট্র নিজেদের ইসলামী সমাজতন্ত্রী ঘোষণা করেছে। মদীনা সনদ অনুযায়ী কোন ধর্মকেই রাষ্ট্রধর্ম ঘোষণা না করা হলেও[১] এই দেশগুলিতে ইসলামকে সরকারী ধর্ম বলা হয়। এখানে সরকারী সাহায্যে বিভিন্ন মসজিদ, মাদ্রাসা ও অন্যান্য নির্মাণ কাজ চলে। কিছু দেশ যেমন পাকিস্তান ইসলামী আইনকে সম্পুর্ণ ভাবে অনুসরণ করে না। এখানে হুদুদ আইনের পাশাপাশী ব্রিটিশ আইন প্রচলিত। ইসলামী রাষ্ট্রএর ধারণা নতুন নয়। ইতিহাসে বিভিন্ন সময়ে এই রাষ্ট্রব্যবস্থার উল্লেখ আছে। উপমহাদেশে আলাদা মুসলিম দেশের দাবী তুলে মুসলিম লীগ। আরো শক্ত ইসলামী রাষ্ট্রব্যবস্থার দাবী তুলে জামাতে ইসলাম, মুসলিম লীগ ইত্যাদি দল। এখন আল-কায়েদা নামে জঙ্গিদল বিশ্বজুড়ে এই শাসন ব্যবস্থার দাবীতে সন্ত্রাস চালাচ্ছে।

Religion and state in Muslim majority countries.
  Islamic State: Adopted Islam as the ideological foundation for their political institution.
  State Religion: Religious body or creed officially endorsed by the state.
  Secular State: Officially neutral in matters of religion, neither supporting nor opposing any particular religions.
  No Declaration: No announcement formally or officially.

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. হাদীস শরিফ, Edited by M. Rafiqullah(1986)