পার্সিস খামবাট্টা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

পার্সিস খামবাট্টা (অক্টোবর ২, ১৯৫০ - আগস্ট ১৮, ১৯৯৮) একজন ভারতীয় মডেল ও অভিনেত্রী। পার্সি বংশোদ্ভূত ও জরাথুস্ট্র ধর্মাবলম্বী পার্সিসের জন্ম ভারতের মুম্বাই শহরে।

মাত্র ১৫ বছর বয়সে তিনি মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় জয়লাভ করেন, এবং ১৯৬৫ সালের মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। কিন্তু তাঁর পশ্চিমী (অভারতীয়) চেহারার জন্য তিনি ভারতীয় চলচ্চিত্রে সাফল্য অর্জন করতে পারেন নাই। পরে তিনি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। এছাড়া রেভলন সহ আরও কিছু পণ্যের মডেল হিসাবে কাজ করেন। ১৯৭৫ সালে তিনি দি উইলবি কন্সপিরেসি ছবিতে পার্শ্ব-চরিত্রে অভিনয় করেন। তাঁর সবচেয়ে বিখ্যাত চলচ্চিত্র হল স্টার ট্রেক সিরিজের স্টার ট্রেক:দি মোশান পিকচার (১৯৭৯) যেখানে তিনি লেফটেন্যান্ট ইলিয়া নামক একটি মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন। পরে তিনি নাইটহক্‌স (১৯৮১) ও মেগাফোর্স (১৯৮২) ছবিতেও অভিনয় করেছেন।

১৯৮০র দশকের শুরুর দিকে তাঁর হৃদপিন্ডে বাইপাস সার্জারি করা হয়। ১৯৯৭ সালে তিনি প্রাইড অফ ইন্ডিয়া নামে মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের উপরে একটি বই লিখেন। বইটি তিনি মাদার তেরেসাকে উৎসর্গ করেন, এবং এ থেকে প্রাপ্ত অর্থ মিশনারিস অফ চ্যারিটি নামক দাতব্য প্রতিষ্ঠানে দান করেন।

তাঁর সর্বশেষ টেলিভিশন অভিনয় ছিল লয়স অ্যান্ড ক্লার্ক: দি নিউ অ্যাডভেঞ্চার্‌স অফ সুপারম্যান সিরিজের একটি পর্বে।

১৯৯৮ সালে পার্সিস খামবাট্টা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দক্ষিণ মুম্বাই এর মেরিন হাসপাতালে মারা যান।

পার্সিস খামবাট্টাই একমাত্র ভারতীয় যিনি একাডেমি এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে পুরস্কার প্রদান করেছেন। তিনি ১৯৭৯ সালের একাডেমি এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে পুরস্কার দিয়েছিলেন।

[১]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]