জন কেরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জন কেরি
৬৮তম সেক্রেটারি অব স্টেট, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
দায়িত্ব
অধিকৃত অফিস
ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৩
রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা
ডেপুটি উইলিয়াম জোসেফ বার্নস
পূর্বসূরী হিলারি ক্লিনটন[১]
United States Senator
from ম্যাসাচুসেটস
কার্যালয়ে
জানুযারি ৩, ১৯৮৫ – ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৩
পূর্বসূরী পল সংগাস
উত্তরসূরী মো কাওয়ান
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনেট ফরেন রিলেশনস কমিটির চেয়ারম্যান
কার্যালয়ে
জানুয়ারি ৬, ২০০৯ – ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৩
পূর্বসূরী জো বাইডেন
উত্তরসূরী বব মেননডাজ
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনেট কমিটি ছোট ব্যবসা এবং বানিজ্যিক উপর চেয়ারম্যান
কার্যালয়ে
জানুয়ারি ৪, ২০০৭ – জানুয়ারি ৬, ২০০৯
পূর্বসূরী অলিম্পিয়া স্নুই
উত্তরসূরী মেরি ল্যানড্রিও
কার্যালয়ে
জুন ৬, ২০০১ – জানুয়ারি ৩, ২০০৩
পূর্বসূরী কিট বন্ড
উত্তরসূরী অলিম্পিয়া স্নুই
কার্যালয়ে
জানুয়ারি ৩, ২০০১ – জানুয়ারি ২০, ২০০১
পূর্বসূরী কিট বন্ড
উত্তরসূরী কিট বন্ড
ম্যাসাচ্যুসেত্সর ৬৬তম লেফটেনেন্ট গভর্নর
কার্যালয়ে
মার্চ ৬, ১৯৮৩ – জানুয়ারি ২, ১৯৮৫
গভর্নর মাইকেল ডুকাকিস
পূর্বসূরী টমাস পি নিল
উত্তরসূরী ইভেলেন মার্ফি
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম জন ফোর্বস কেরি
(১৯৪৩-১২-১১) ডিসেম্বর ১১, ১৯৪৩ (বয়স ৭০)[২]
অ্যারোরা, কলোরাডো, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
রাজনৈতিক দল ডেমোক্রেটিক
দাম্পত্য সঙ্গী জুলিয়া থুরেন (১৯৭০–১৯৮৮)
তেরেসা হিনজ (১৯৯৫–বর্তমান)
সন্তান আলেক্সানড্রা কেরি
ভেনেসা কেরি
জন (সতছেলে)
আন্ড্রে হেইনজ(সতছেলে)
ক্রিসটোফার হেইনজ (সতছেলে)
অধ্যয়নকৃত শিক্ষা
প্রতিষ্ঠান
ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়
বস্টন কলেজ
ধর্ম রোমান ক্যাথলিক
স্বাক্ষর
ওয়েবসাইট http://state.gov/secretary
সামরিক পরিষেবা
আনুগত্য  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
সার্ভিস/বিভাগ ইউনাইটেড স্টেটস নেভি
চাকুরির বছর ১৯৬৬ – ১৯৭৮
পদ US-O3 insignia.svg লেফটেনেন্ট
ইউনিট ইউ এস এস গ্রিডলি (ডিএলজি-২১)
উপকূলবর্তী স্কোয়াড্রন ১
নেতৃত্ব পিসিএফ ৪৪
পিসিএফ ৯৪
যুদ্ধ ভিয়েতনাম যুদ্ধ
পুরস্কার Silver Star ribbon.svg সিলবার স্টার
Bronze Star ribbon.svg ব্রোনজ স্টার মেডেল
Purple Heart BAR.svg পার্পল হার্ট (৩)

জন ফোর্বস কেরি (জন্মঃ ডিসেম্বর ১১, ১৯৪৩) একজন আমেরিকান রাজনীতিবিদ যিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৬৮তম এবং বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।[৩] তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস রাজ্যের সিনেটর(১৯৮৫-২০১৩) এবং সেনেটে বৈদেশিক সম্পর্ক কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি ২০০৪ সালে ডেমোক্রেটিক পার্টি থেকে প্রেসিডেন্টশিয়াল নির্বাচনের জন্য মোনোনীত হন। তবে ওই সময় তিনি জর্জ ডব্লিউ বুশের কাছে হেরে যান।[৩]

আর্মি এয়ার কর্পস এর পুত্র কেরি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অররা, কলোরাডোতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ম্যাসাচুসেটস এবং নিউ হ্যাম্পশায়ারের বোর্ডিং স্কুলে এবং ১৯৬৬ সালে ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কূটনীতি বিষয়ে স্নাতক সম্পন্ন করেন।[২] স্নাতক সম্পন্ন করার পর কেরি সেচ্ছাসেবক হিসেবে ইউনাইটেড স্টেটস নেভি-তে যোগ দেন। তিনি ভিয়েতনাম যুদ্ধ-এ অংশগ্রহন করেন এবং সেখানে তিনি কামান - বাহী পোত অফিসার ছিলেন। তিনি ভিয়েতনাম যুদ্ধ-এ সাহসিকতার প্রতিদান সরুপ সিলবার স্টার, ব্রোনজ স্টার মেডেল, তিনটি পার্পল হার্ট পুরুষ্কার লাভ করেন।[৩]মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-এ ফেরার পর তিনি ভিয়েতনামের যুদ্ধবিরোধী ভেটেরান্সদের সাথে যোগ দেন এবং যেখানে তিনি স্পষ্টভাষী মুখপাত্র হিসেবে জাতীয়ভাবে পরিচিত ছিলেন। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বৈদেশ সঙ্ক্রান্ত সেনেট কমিটির কাছে ভিয়েতনাম যুদ্ধের যে নীতি তাতে যুধ্দাপরাধ বিষয়টি উত্থাপন করেন।

বস্টন কলেজ ল স্কুল থেকে তার জে.ডি প্রাপ্তির পর, কেরি সহকারী জেলা অ্যাটর্নি হিসাবে কাজ করেন এবং একটি প্রাইভেট ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি মাইকেল ডুকাকিসের অধীনে ম্যাসাচ্যুসেত্স এর লেফটেনেন্ট গভর্নর ছিলেন(১৯৮৩-১৯৮৫)। যেখানে তিনি জাতীয় ক্লিন এয়ার এক্ট এর প্রাথমিক অগ্রদূত হিসেবে কাজ করেন। তিনি ১৯৮৪ সালে মার্কিন সেনেট ডেমোক্রেটিক প্রাথমিকে জয় লাভ করেন এবং পরের জানুয়ারিতে শপথ গ্রহণ করেন। সিনেট ফরেন রিলেশনস কমিটিতে তিনি ১৯৮৭-১৯৮৯ সালে শুনানিতে ইরান-বিরূদ্ধে ব্যাপারে নেতৃত্বের অগ্রদূত ছিলেন। তিনি ছিলেন ২০০৩ সালের ইরাক আক্রমন প্রথম সমর্থক, কিন্তু পরবর্তীতে একজন শক্তিশালী ইরাক যুদ্ধ বিরোধী হয়ে ওঠেন।

কেরি ইরাক যুদ্ধ বিরোধী মতবাদের উপর ভিত্তি করে ২০০৪ সালের রাষ্ট্রপতি পদের জন্য প্রচারণা চালান। কিন্তু তিনি এবং তার চলমান সহচর সেনেটর জন এডওয়ার্ডস দৈাড়ে হেরে যান। পরবর্তীকালে তিনি আমেরিকা প্রমিস প্যাক প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হন। কেরি ২০০৯ সালে সেনেট ফরেন রিলেশনস কমিটির চেয়ারম্যান হন এবং ২০১১ সালে অকুলান কমানো উপর সংযুক্ত সিলেক্ট কমিটিতে নিযুক্ত হন। আর হিলারি ক্লিনটন-এর বিদায়ের পর প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা দ্বারা ৬৮তম পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে মনোনীত হন এবং মার্কিন সেনেট ২৯ জানুয়ারি, ২০১৩ তরিখে ৯৪-৩ ভোটে তা নিশ্চিত করে। ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৩ থেকে তার কর্মদিবস শুরূ হয়।

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]