গ্যাংনাম স্টাইল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
"গ্যাংনাম স্টাইল"
সাই এর একক
সাই ৬ (সিক্স রুলস), পর্ব ১ অ্যালবাম থেকে
মুক্ত জুলাই ১৫, ২০১২ (2012-07-15)
পদ্ধতি সিডি একক, ডিজিটাল ডাউনলোড
Recorded ২০১২
ধরন কে-পপ[১][২]
সময় :৩৯
লেবেল YG, ইউনিভার্সাল রিপাবলিক, স্কুল বয়
গীতিকার পার্ক জেয়-সাং, Yoo Gun-hyung[৩]
প্রযোজক পার্ক জেয়-সাং, Yoo Gun-hyung, Yang Hyun-suk[৪]
সাই কালক্রম
"কোরেয়া"
(২০১২)
"গ্যাংনাম স্টাইল"
(২০১২)
"জেন্টেলম্যান"
(২০১৩)
সাই ৬ (সিক্স রুলস), পর্ব ১ ডিস্ক আর্টওয়ার্ক
সাই ৬ (সিক্স রুলস), পর্ব ১ ডিস্ক আর্টওয়ার্ক
সঙ্গীতের নমুনা
মিউজিক ভিডিও
"গ্যাংনাম স্টাইল" ইউটিউবে
গ্যাংনাম স্টাইল
হাঙ্গুল্
হাঞ্জা 스타일
কোরীয় রোমানীকরণ Gangnamseuta-il
MR Kangnamsŭt'ail

গ্যাংনাম স্টাইল হল (কোরীয়: 강남스타일, আইপিএ: [kaŋnam sɯtʰail]) দক্ষিণ কোরিয়ার গায়ক অনুযায়ী ১৮তম কে-পপ একক শিল্পী সাই। তার ষষ্ঠ স্টুডিও অ্যালবাম সাই ৬ (ছয় বিধি) এর প্রথম একক অ্যালবাম, পর্ব ১ হিসেবে গানটি জুলাই ২০১২ সালে মুক্তি পেয়েছে এবং দক্ষিণ কোরিয়ার জেন চার্টে নম্বর এক হিসেবে আত্মপ্রকাশ পেয়েছে ছিল। ২১শে ডিসেম্বর, ২০১২ সালে "গ্যাংনাম স্টাইল" ইউটিউব এর প্রথম ভিডিও যা বিলিয়ন মানুষ দেখেছে।[৫] জাস্টিন বিবারের "বেবি" একক গানটির পরেই এটি সাইটির সর্বাধিক দেখা ভিডিও ছিল।[৬] ১৭ই জুলাই, ২০১৩ সালে পর্যন্ত ইউটিউব এ ১,৭৪৬ বিলিয়ন মানুষ দেখেছে। বর্তমানে ইউটিউবের এক নম্বর সর্বাধিক প্রদর্শনীত ভিডিও।

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে গ্যাংনাম বলে একটা এলাকা আছে। সেখানকার বিলাসবহুল জীবনযাপনকারীদের ব্যঙ্গ করেই এ গান গাওয়া হয়েছে। গানটির কথা যতটা না মজার, তার চেয়ে বেশি অদ্ভুত দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গীতশিল্পী সাইয়ের ঘোড়া-নাচ। অদ্ভুতুড়ে এ নৃত্যশৈলী কাঁপিয়ে দিয়েছে পুরো বিশ্ব।[৭][৮]

সর্বোচ্চ দেখা ভিডিও[সম্পাদনা]

এখন পর্যন্ত গোটা বিশ্বে ভিডিওটি দেখা হয়েছে ৮০ কোটি ৮০ লাখ বার। ৫৪ লাখ ব্যক্তি ইউটিউবে গ্যাংনাম স্টাইলকে পছন্দ করেছেন। ফলে গানটি এখন গিনেস বুকের পাতায় স্থান পেয়েছে। এর আগে ২০১০ সালে কিশোর সঙ্গীতশিল্পী জাস্টিন বিবারের গাওয়া ‘বেবি’ সবচেয়ে জনপ্রিয় ইউটিউব ভিডিও ছিল। বিবারের ম্যানেজার স্কুটার ব্রনের টুইটার অ্যাকাউন্টে গানটি পোস্ট করা পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র গ্যাংনাম জ্বরে আক্রান্ত।[৭][৮]

গ্যাংনাম জ্বর[সম্পাদনা]

২০১২ সালের জুলাইয়ে রিলিজ হওয়ার পর গ্যাংনাম জ্বরে কাঁপছে বিশ্ব। এরই ধারাবাহিকতায় সাইয়ের গাওয়া এ গান এখন ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট ইউটিউবের সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও। শুধু সঙ্গীতপ্রেমীরাই নয়, টি২০ ওয়ার্ল্ড কাপজয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ফিলিপাইনের কারাবন্দিরা, চীনের জনপ্রিয় শিল্পী আই ওইওই, জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন, চীনা রোবট, বলিউডের নায়ক অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খানসহ মহাতারকাদের অনেকে এখন গ্যাংনাম জ্বরে আক্রান্ত। এ গান নিয়ে অনেক জায়গায় প্যারোডি ভিডিও বানানো হয়েছে। যুক্তরাজ্যের ইটন কলেজের ছাত্ররা এবং টিভি সিরিজ স্টার ট্রেকের ভাষা লিংঅনে গ্যাংনাম স্টাইল গাওয়া প্যারোডি বেশ পরিচিতি লাভ করেছে।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Fisher, Max। "Visual music: How 'Gangnam Style' exploited K-pop's secret strength and overcame its biggest weakness"The Washington Post। সংগৃহীত 2012-11-11 
  2. Cochrane, Greg। "Gangnam Style the UK's first K-pop number one"। BBC। সংগৃহীত 2012-11-11 
  3. "Rap Songs 2012-10-20"Billboard। October 1, 2012। সংগৃহীত 2012-10-12 [অকার্যকর সংযোগ]
  4. Gangnam Style (Album notes)। PsyUniversal Republic। 2012http://www.discogs.com/viewimages?release=3945023
  5. Gruger, William। "PSY's 'Gangnam Style' Video Hits 1 Billion Views, Unprecedented Milestone"Billboard। সংগৃহীত December 21, 2012 
  6. officialpsy (April 1, 2013)। "PSY – GANGNAM STYLE (강남스타일) M/V" (YouTube)। 
  7. ৭.০ ৭.১ ৭.২ গ্যাংনাম স্টাইল এখন ইউটিউবের সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও,বণিক বার্তা ডেস্ক। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: নভেম্বর ২৭, ২০১২।
  8. ৮.০ ৮.১ ‘গ্যাংনাম স্টাইল’ এর বিশ্ব রেকর্ড (ভিডিও),অনলাইন ডেস্ক ,দৈনিক প্রথম আলো। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ২৫-১১-২০১২।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]