ইউরেশীয় কুট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইউরেশীয় কুট
Eurasian Coot.jpg
ইউরেশীয় কুট তাসমানিয়া, অস্ট্রেলিয়াতে
সংরক্ষণ অবস্থা
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Animalia
পর্ব: Chordata
শ্রেণী: Aves
বর্গ: Gruiformes
পরিবার: রেলিডি
গণ: Fulica
প্রজাতি: F. atra
দ্বিপদী নাম
Fulica atra
Linnaeus, 1758
Fulica atra distribution.png
Range of F. atra      Breeding range     Year-round range     Wintering range
প্রতিশব্দ
  • Fulica prior De Vis, 1888[২]

ইউরেশীয় কুট (Fulica atra), এছাড়াও যারা কুট নামে পরিচিত, হল প্রধানত এরধরনের জলচর পাখি। এরা রেলিডি পরিবারের অন্তর্গত। অস্ট্রেলিয়ান উপজাতিরা অস্ট্রেলিয়ান কুট নামে পরিচিত।

বিতরণ[সম্পাদনা]

এই পাখিরা প্রধানত জলচর পাখি, তাই তারা জলভাগেই প্রজনন করে এবং এদের বসবাস জলভাগেই। এরা প্রধানত ইউরোপ, এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, আফ্রিকা প্রভৃতি মহাদেশে প্রজনন করে ও এখানেই বড় হয়। এই প্রজাতিটি হটাতই নিউজিল্যান্ড পর্যন্ত তাদের পরিধি বিস্তার করেছে। এটা তার পরিসীমা মধ্যের অংশে বসবাসকারী হয় কিন্তু শীতকালে জল বরফ হয়ে গেলে এরা দক্ষিণ থেকে পুর্ব এশিয়ার দিকে পরিযান করে।

বর্ণনা[সম্পাদনা]

ইউরেশীয় কুট ৩২–৪২ সেমি (১৩–১৭ ইঞ্চি) লম্বা এবং এদের ওজন হয় ৫৮৫–১,১০০ গ্রাম (১.২৯০–২.৪২৫ পা), এরা পুরোপুরি কালো শুধুমাত্র সম্মুখের সাদা ঢাল ছাড়া। (যা থেকে একটি প্রবাদ বাক্য তৈরি হয়েছে "কুটের মতোন টাক")।[৩] জলচর পাখি হিসেবে তাদের দীর্ঘ শক্তিশালী পায়ের আঙ্গুলের উপর আংশিক বয়ন করার বস্তু আছে।

তরুণরা প্রাপ্তবয়স্কদের থেকে হাল্কা রঙের হয়। এদের মুখের সামনে কোন ঢাল থাকে না বড়োদের মতোন। যখন এদের প্রায় ৩-৪ মাস বয়স হয় তখন এদের কালো পাখনা বেরতে শুরু করে। কিন্তু ওই সাদা ঢালটি তৈরি হয় যখন ওদের বয়স হয় ১ বছর।

এটি একটি সশব্দ পাখি, কচ্কচিয়া আওয়াজ, বিস্ফোরক বা ডঙ্কা আওয়াজের মাধ্যমে এদের চেনা যায়। এমনকি রাতেও এরা এইসব শব্দ করে বলে এরা খুব আওয়াজ সৃষ্টিকারী পাখি হিসেবে পরিচিত।

গ্যালারি[সম্পাদনা]

The call of a Eurasian Coot, recorded in Homebush Bay

এই ফাইলটি শুনতে অসুবিধা? মিডিয়া সাহায্য দেখুন।





তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. BirdLife International (2012)। "Fulica atra"IUCN Red List of Threatened Species. Version 2013.2International Union for Conservation of Nature। সংগৃহীত 26 November 2013 
  2. Condon, H. T. (1975) Checklist of the Birds of Australia: Non-Passerines Royal Australasian Ornithologists Union, 57:311
  3. CRC Handbook of Avian Body Masses by John B. Dunning Jr. (Editor). CRC Press (1992), ISBN 978-0-8493-4258-5.

বহির্সংযোগ[সম্পাদনা]