অ্যাবরদিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অ্যাবরদিন
টেমপ্লেট:Lang-gd
টেমপ্লেট:Lang-sco

3rd Aug 2012- Abdn Harbour 2.JPG
Aberdeen City Centre & Harbour

অ্যাবরদিন যুক্তরাজ্য-এ অবস্থিত
অ্যাবরদিন

অ্যাবরদিন shown within the United Kingdomটেমপ্লেট:Infobox UK place/NoLocalMap
Population (2011 Mid-Year Estimate)
 - Density ১,১৮৭ /কিমি (৩,০৭০ /বর্গমাইল)[১]
Language ইংরেজি
স্কটস (ডোরিক)
OS grid reference NJ925065
 - Edinburgh  ৯৪ mi (১৫১) [২]
 - London  ৪০৩ mi (৬৪৯) [২]
Council area অ্যাবরদিন সিটি[৩]
Lieutenancy area Aberdeen
Post town ABERDEEN
Postcode district AB10-AB13 (part), AB15, AB16, AB21-AB25
Dialling code 01224
Police  
Fire  
Ambulance  
UK Parliament অ্যাবরদিন নর্থ
অ্যাবরদিন সাউথ
গর্ডন
Aberdeen Central
Aberdeen Donside
Aberdeen South and North Kincardine
Website: http://www.aberdeencity.gov.uk
List of places: United Kingdom

স্থানাঙ্ক: ৫৭°০৯′০৯″ উত্তর ২°০৬′৩৬″ পশ্চিম / ৫৭.১৫২৬° উত্তর ২.১১° পশ্চিম / 57.1526; -2.11

অ্যাবরদিন শুনুনi/æbərˈdn/ (টেমপ্লেট:Lang-sco এই শব্দ সম্পর্কে listen ; টেমপ্লেট:Lang-gd টেমপ্লেট:IPA-gd) স্কটল্যান্ডের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলবর্তী একটি শহরউত্তর সাগরের ডি ও ডন নদীর মিলনস্থলে এ শহরের অবস্থান। উত্তরাঞ্চলীয় স্কটল্যান্ডের প্রধান শিল্পকেন্দ্র স্থান। একসময় এ শহরটি গ্রাম্পিয়ন অঞ্চলের রাজধানী ছিল। গ্ল্যাসগোএডিনবরার পর এটি স্কটল্যান্ডের তৃতীয় বৃহত্তম জনবহুল শহর হিসেবে পরিচিত। স্কটল্যান্ডের ৩২টি স্থানীয় সরকার পরিষদের এটি অন্যতম। যুক্তরাজ্যের ৩৭তম পরিকল্পিত অঞ্চল অ্যাবরদিনের জনসংখ্যা ২২০,৪২০।[৪] এছাড়াও, এটি গুরুত্বপূর্ণ সমুদ্রবন্দর ও দেশের সর্ববৃহৎ মৎস্য বন্দর।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রায় আট হাজার বছর পূর্ব অ্যাবরদিনে জনবসতি গড়ে উঠেছে।[৫] ডিডন নদীর প্রবেশ মুখে প্রাচীন ঐতিহাসিক গ্রামগুলো প্রতিষ্ঠা পায়।

গ্রানাইট পাথর দিয়ে তৈরি ভবনের জন্য বিখ্যাত হয়ে রয়েছে অ্যাবরদিন। অষ্টাদশ শতকের মধ্যবর্তী সময় থেকে বিংশ শতাব্দীর মধ্যবর্তী সময় পর্যন্ত অ্যাবরদিনের ভবনগুলো স্থানীয় ধূসর গ্রানাইট দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। এতে উচ্চ পর্যায়ের অভ্র উপাদান রয়েছে।[৬] এ শহরটি স্বর্ণবালু দিয়ে তৈরি রৌপ্য শহর হিসেবে ডাকা হয়ে থাকে। এছাড়াও, শহরটি গ্রানাইট সিটি কিংবা গ্রে সিটি নামে পরিচিত। ১০ ফেব্রুয়ারি, ১৪৯৫ তারিখে বিশপ উইলিয়াম এলফিনস্টোন কর্তৃক অ্যাবরদিন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯১০ সালে রবার্ট গর্ডন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হলেও অষ্টাদশ শতকের সাথে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি জড়িত।

১৯৭০-এর দশকে অ্যাবরদিনের উপত্যকার সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির পরিকল্পনা নেয়া হয়। এরফলে এ শহরটি উত্তর সাগরের পেট্রোলিয়াম শিল্পকারখানার প্রধান কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠে। এ সময়ে উত্তর সাগরে তৈলক্ষেত্রের আবিষ্কার হয়। এ প্রেক্ষিতে অ্যাবরদিন ইউরোপের তৈল রাজধানী বা ইউরোপের জ্বালানী রাজধানীরও মর্যাদা পায়।[৭] রাসায়নিক দ্রব্যাদি, যন্ত্রাংশ, বস্ত্রশিল্প ও কাগজ প্রস্তুতকারী শহরের মর্যাদা পায়। দীর্ঘ বালুকাময় উপকূলে পর্যটন কেন্দ্র হিসেবেও এর পরিচয় রয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mid-2011 Population Estimates Scotland"। Gro-scotland.gov.uk। 30 June 2011। সংগৃহীত 8 November 2012 
  2. ২.০ ২.১ Indo.com। "How Far Is It?"। 16 March 2007-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত 13 March 2007 
  3. "The Aberdeen and Grampian Tourist Board Scheme Amendment Order 1995"। Legislation.gov.uk। 9 May 1995। সংগৃহীত 21 May 2012 
  4. "Mid-2011 Population Estimates Scotland"। Gro-scotland.gov.uk। সংগৃহীত 8 November 2012 
  5. "Welcome to Aberdeen"। Aberdeen Accommodation Index। সংগৃহীত 19 February 2007 
  6. "The Granite City"। Aberdeen and Grampian Tourist Board। 5 February 2007-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত 8 February 2007 
  7. "About Aberdeen"। University of Aberdeen। 5 February 2007-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত 8 February 2007 

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Aberdeen