১৭৫৫ ক্যাপ এন ভূমিকম্প

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
১৭৫৫ ক্যাপ এন ভূমিকম্প
১৭৫৫ ক্যাপ এন ভূমিকম্প ম্যাসাচুসেট্‌স-এ অবস্থিত
১৭৫৫ ক্যাপ এন ভূমিকম্প
Cape Ann
Cape Ann
তারিখ Did not recognize date. Try slightly modifying the date in the first parameter.
মাত্রা ৫.৯ এমডব্লিউ[১]
উপকেন্দ্রের অবস্থান ৪২°৪২′ উত্তর ৭০°১২′ পশ্চিম / ৪২.৭° উত্তর ৭০.২° পশ্চিম / 42.7; -70.2স্থানাঙ্ক: ৪২°৪২′ উত্তর ৭০°১২′ পশ্চিম / ৪২.৭° উত্তর ৭০.২° পশ্চিম / 42.7; -70.2
দেশ/
আক্রান্ত অঞ্চল
British America, Province of Massachusetts Bay
Max. intensity VIII - Severe

১৭৫৫ সালের ক্যাপ এন ভূমিকম্প ১৮ই নভেম্বর তৎকালীন বৃটিশ উপনিবেশ ম্যাসাচুসেটস বে (বর্তমান ম্যাসাচুসেটস) এর তীরের নিকটবর্তী সমুদ্রে সংঘটিত হয়েছিলো। রিখটার স্কেলে ৬.০ থেকে ৬.৩ মাত্রার মধ্যে হওয়া এই ভূমিকম্পটি ম্যাসাচুসেটসের ইতিহাসে হওয়া সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প। যদিও ভূমিকম্পে নিহত হবার কোন ঘটনা ঘটেনি, কিন্তু এতে বোস্টনের শতাধিক বাড়িঘরের ক্ষতি হয়েছিলো এবং ভূমিকম্পটি উত্তরে নোভা স্কটিয়া এবং দক্ষিণে সুদূর দক্ষিণ ক্যারোলিনা পর্যন্ত অনুভূত হয়েছিলো।[২] তীর থেকে ২০০ মাইল (৩২০ কিলোমিটার) দূরে সমুদ্রের নাবিকেরাও ভূমিকম্পটি টের পেয়েছিলো। অনুভূতিটা এতোটাই প্রচন্ড ছিলো যে নাবিকেরা মনে করেছিলো তাদের জাহাজ ডুবোচরের উপর দিয়ে চলছে। বোস্টেন এবং আশপাশের এলাকার মানুষজন এটাকে দৈব কোন ঘটনা ধরে নিয়েছিলো এবং এর ফলে শহরে ধর্মীয় আচার-অনুষ্টানের পরিমাণ খানিকটা বেড়ে গিয়েছিলো। আধুনিক গবেষণা থেকে যে প্রাক্কলিত হিসাব করা হয়েছে সেখান থেকে জানা যায় যদি একইরকম একটি ভূমিকম্প এখনকার সময়ে বোস্টনে আঘাত হানত তবে শতশত লোক মারা যেতো এবং এটা যে ক্ষয়ক্ষতি সাধন করত তার অর্থমূল্য হত প্রায় ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। [৩]

ক্যাপ এন ভূমিকম্পের প্রায় এক সপ্তাহ আগে পর্তুগালের লিসবনে সংঘটিত হওয়া তীব্রতর ভূমিকম্পটি দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ক্যাপ এন এর ভূমিকম্প সংঘটিত হওয়া সম্ভব। যদিও এই দুই ভূমিকম্প পরস্পর সম্পর্কযুক্ত, এই ধারনার পক্ষে যথেষ্ট কোন প্রমাণ বিজ্ঞানীদের হাতে নেই।

উপকেন্দ্র[সম্পাদনা]

ভূমিকম্পটি ১৭৫৫ সালের ১৮ই নভেম্বর আনুমানিক ৪:৩০ এ সংঘটিত হয়। এর উপকেন্দ্র ক্যাপ এন এর তীর থেকে আনুমানিক ২৪ মাইল (৩৯ কিলোমিটার) পূর্বে ছিলো বলে ধারণা করা হয়।[৩] ভূকম্পনটি দক্ষিণে হলিফাক্স, নোভা স্কটিয়া, দক্ষিণে চেসাপিকা বে এবং দক্ষিণ ক্যারোলিনা, এবং উত্তর-দক্ষিণে লেক জর্জ এবং লেক চ্যামপ্লেইন, পূর্ব তীর থেকে ২০০ মাইল (৩২০ কিলোমিটার) দূরের জাহাজেও অনুভূত হয়েছিলো।[৪][৫] জাহাজের নাবিকরা জানায়, ভূকম্পনটি এতোটাই শক্তিশালী ছিলো যে তারা মনে করেছিলো জাহাজটি ডুবোচরের উপর দিয়ে চলছে।[৪] অঞ্চলটিতে বেশ কয়েকটি ভূকম্পন পরবর্তি শক অনুভূত হয়, যার প্রথমটি ভূকম্পন সংঘটিত হবার ঘন্টাখানেক পর টের পাওয়া গিয়েছিলো। ভূকম্পন পরবর্তি শকগুলোর বেশীরভাগই বোস্টনে অনুভূত হয়নি, শুধুমাত্র উপনিবেশের উত্তর-পূর্ব তীরে টের পাওয়া গিয়েছিলো।[৫]

আধুনিক গবেষণা থেকে ভূমিকম্পটির তীব্রতা রিখটার স্কেলে ৬.০ থেকে ৬.৩ এর ভেতর প্রক্কলন করা হয়েছে, এবং যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা এটাকে ম্যাসাচুসেটসের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প হিসেবে লিপিবদ্ধ করেছে।[৫] এটি সহ উত্তর-পূর্ব যুক্তরাষ্ট্রে হওয়া ভূমিকম্পগুলোর কারণ সম্পর্কে বিজ্ঞানীরা পরিষ্কারভাবে জানেন না। অঞ্চলটিতে বেশকিছু পুরানো চ্যুতি (ফল্ট) আছে কিন্তু তার কোনটাই এখন সক্রিয় আছে বলে তথ্য নেই।[৩] এক সপ্তাহ আগে পর্তুগালের লিসবনে সংঘটিত তীব্রতর ভূমিকম্প দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ক্যাপ এন এর ভূমিকম্প সংঘটিত হওয়া সম্ভব যদিও এর যথেষ্ট কোন প্রমাণ নেই যে এই দুই ভূমিকম্প পরস্পর সম্পর্কযুক্ত। [৬]

ক্ষয়ক্ষতি[সম্পাদনা]

ভূমিকম্পে বোস্টল এবং ক্যাপ এন ই সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিলো। যেহেতু ভরাট করা জমি নিষ্কন্টক জমির চেয়ে ভূকম্পনে কম শক্তিশালী, তাই বোস্টনে ক্ষয়ক্ষতি মূলত বন্দরের কাছের ভরাট করা যায়গাতেই সীমাবদ্ধ ছিলো। শহরের প্রায় ১,৩০০ থেকে ১,৬০০ টি ধুম্রনালী (চিমনী) কোন না কোন ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিলো, কিছু বাড়ির চালা (গেবল) ধ্বসে পড়েছিলো এবং কিছু সংখ্যক বাড়ির ছাদ ভেঙে পড়া ধুম্রনালী (চিমনী) দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিলো।[৪] ফলমাউথ (বর্তমান পোর্টল্যান্ড, মেইন), স্প্রিংফিল্ড, ম্যাসাচুসেটস এবং নিউ হ্যাভেন, কনাটিকাটেও পাথরের তৈরি ধুম্রনালী (চিমনী) এবং বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিলো। বোস্টনের কিছু গীর্জার চূড়া (steeple)ও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিলো এবং উল্লম্ব থেকে হেলে পড়েছিলো।[৩][৫] গ্রাম এলাকায় পাথরের তৈরি সীমানা প্রাচীর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিলো। প্রত্যক্ষদর্শিদের বরাতে জানা যায় ভূমিকম্পের ফলে কিছু কিছু ঝর্ণা শুকিয়ে গিয়েছিলো, নতুন কিছু ঝর্না তৈরি হয়েছিলো এবং স্কিটুয়েট, ল্যাংকেসটার, এবং পেমব্রোকে মাটিতে ফাটল দেখা দিয়েছিলো। প্রত্যক্ষদর্শিরা আরো জানায়, পেমব্রোকে ফাটল থেকে পানি এবং মিহি বালু বের হয়ে এসেছিলো।[৪] অকাঠামোগত ক্ষয়ক্ষতি ছিলো অতি সামান্য; আদিবাসিরা কাচ এবং চীনামাটির বাসনকোসনের ক্ষয়ক্ষতির কথা জানিয়েছিলো এবং একজন পাতনকারীর জলাধার ক্ষতিগ্রস্থ হবার কারণে তার কিছু উৎপাদিত পণ্য বিনষ্ট হয়েছিলো।[৫] ক্যাপ এন ভূমিকম্প সম্ভবত যুক্তরাস্ট্রের ইতিহাসের সর্বপ্রথম লিপিবদ্ধ সুনামিরও কারণ। ক্যাপ এন থেকে ১০০০ মাইল (১৬০০ কিলোমিটার) দক্ষিণে লীওয়ার্ড দ্বীপের আদিবাসিদের বরাতে জানা যায়, ভূমিকম্পের পর পানির অবনমন ঘটেছিলো, যার ঠিক পরপরই একটা বড় ঢেউ এসে বেশকিছু নৌকাকে তীরে নিয়ে এসেছিলো এবং সমুদ্রতটে জীবন্ত মাছকে খাবি খাওয়া অবস্থায় এনে ফেলে গিয়ে ছিলো।[৭]

ঐতিহাসিক ঘটনাবলী[সম্পাদনা]

A cityscape including a number of skyscrapers, with a river running through the middle
আকাশ থেকে দেখা বোস্টনের ব্যাক উপসাগরের ছবি, যেখানে ১৭৫৫ ক্যাপ এন-এর মত আরেকটি ভূমিকম্প বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি সাধন করতে পারে

তৎকালীন ম্যাসাচুসেটসের অনেক অধিবাসীই ভূমিকম্পটাকে অসৎ কার্মকান্ডের জন্য ঈশ্বরের থেকে আসা শাস্তি হিসেবে বিবেচনা করেছিল।[৭] ভূমিকম্পের পরের দিনগুলোতে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়েছিলো এবং বিভিন্ন নাগরিক সমাজ উপবাসব্রত ঘোষণা করেছিল। জেরেমিয়া নিউল্যান্ডের Verses Occasioned by the Earthquakes in the Month of November, 1755 এবং  থমাস প্রিনসের Earthquakes the Works of God and Tokens of his Just Displeasure-এর মত ধর্মোপদেশমূলক অনেক লেখা তখন প্রকাশিত হয়েছিলো। এই ঘটনার সব ব্যাখ্যাই যে ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে ছিলো তা নয়; হার্ভার্ডের অধ্যাপক জন উইনথর্প, পৃথিবীপৃষ্টের নিচে আটকে পড়া রাসায়নিক বাস্প এবং তাপের উপর ভিত্তি করে বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিকোণ থেকে একটি ব্যাখ্যা প্রদান করেন।[৫]

১৭৫৫ সালের ভূমিকম্পের পর থেকে বোস্টন এবং এর আশপাশের এলাকা একটা অন্যতম প্রধান মহানগরে পরিণত হয়েছে। অনেক নতুন অট্টালিকা ভরাট করা জমিতে নির্মিত হয়েছে, বিশেষত ব্যাক বে এলাকায়, যেখানে ভূমিকম্পের ফলে বেশী কম্পন এবং বালু ও কাঁকরের সুসংহত মিশ্রণ (কম্পেকশন) হবার ঝুঁকি বেশী। বোস্টন এলাকার বেশীরভাগ পুরানো দালান পাথর এবং ইট দিয়ে নির্মিত, যেগুলো বড় কোন ভূমিকম্পে পুরোপুরি ধ্বসে পড়ার সম্ভাবনা অনেক বেশী। এই তথ্যের উপর ভিত্তি করে আধুনিককালে পর্যবেক্ষকেরা এমন বড় একটা শহরে আরেকটি বড় ভূমিকম্পের প্রভাব নিয়ে তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। ১৯৯০ সালে Massachusetts Emergency Management Agency এর করা একটা গবেষণায় হিসেবে দেখানো হয় যে আরেকটি বড় ভূমিকম্পে সম্ভাব্য অর্থনৈতিক ক্ষতি ৪ থেকে ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং সম্ভাব্য মৃত্যের সংখ্যা 'শ এর কোঠায়।[৩] ফলস্বরূপ, প্রাদেশিকভাবে বিল্ডিং কোড এবং জোনিং আইন সংশোধন করা হয়েছে, যা অনুসারে নতুন সকল নির্মাণ এবং  ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় কাঠামোর পরিবর্ধন এমন ভাবে করতে হবে যাতে তা ভূমিকম্প প্রতিরোধ করতে পারে।[৩]

নিউ হ্যামশায়ার তীর ধরে, ক্যাপ এন থেকে ১৫ মাইল দূরে তৈরি হওয়া সিব্রোক স্টেশন পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিরোধীরা আন্দোলনের সময় উক্ত এলাকায় ভূমিকম্পের ঝুঁকির কথা সবার সামনে তুলে ধরেছিলো। কিন্তু বিরোধিতা সত্ত্বেও বিদ্যুত কেন্দ্রটি তৈরি করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ebel, J.E. (২০০৬)। "The Cape Ann, Massachusetts earthquake of 1755: a 250th anniversary perspective"Seismological Research LettersSeismological Society of America77 (1): 74। doi:10.1785/gssrl.77.1.74 
  2. Ballard C. Campbell, ed.
  3. Newman, William A. and Holton, Wilfred E. (2006).
  4. "Cape Ann, Massachusetts" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৮ মে ২০০৯ তারিখে.
  5. Ebel, John.
  6. Hough, Susan Elizabeth; Bilham, Roger G. (2006).
  7. Gunn, Angus M. (2007).