হাপি (দেবতা)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হাপি
C+B-Nile-Hapi.PNG
হাপি নৈবেদ্য বহন করে আছেন
চিত্রলিপি
Ha
p y
N36
প্রধান অর্চনাকেন্দ্র centerএলিফেনটাইন
প্রতীকপদ্মগাছ
হাপি, যিনি প্রতীকীভাবে উপরের এবং নীচের মিশরকে এক সাথে বেঁধে রেখেছেন

প্রাচীন মিশরীয় ধর্মে হাপি ছিলো নীল নদের বার্ষিক বন্যার দেবতা। নদীর তীরে বন্যার ফলে জমে থাকা পালি মিশরীয়দের শস্য ফলানোর সুযোগ করে দিয়েছিল।[১] হাপি মিশরীয়দের মধ্যে ব্যাপক পূজিত হতো এবং তার বেশ কয়েকটি উপাধি ছিল। "মার্শেসের মাছ ও পাখির প্রভু" এবং "উদ্ভিদ উদ্ভাবনে নদী আনয়নের প্রভু" তার মধ্যে অন্যতম। হাপিকে সাধারণত বড় একটি পেট এবং বড় বুকের স্তনওয়ালা অ্যান্ড্রোজাইনাস রূপে দেখানো হয়, যার পরনে একটি লেংটি এবং ঐষ্টিক মেকি দাড়ি থাকে।[২]

পুরাণ[সম্পাদনা]

নীল নদের বার্ষিক বন্যাকে কখনো কখনো "হাপির আগমন" বলা হতো।[১] যেহেতু এই বন্যা মরুভূমি অঞ্চলে উর্বর মাটি সরবরাহ করতো, তাই হাপিকে উর্বরতার প্রতীক বিবেচনা করা হতো। তাঁর বৃহৎ নারীসুলভ স্তন ছিলো, কারণ তিনি বলেছিলেন যে তিনি উঁচুমানের পুষ্টিকর ফসল আনবেন। উর্বর প্রকৃতির কারণে তাকে মাঝে মধ্যে "দেবতাদের জনক"[১] হিসাবে বিবেচনা করা হত। পাশাপাশি তাকে একজন যত্নশীল পিতা হিসাবেও বিবেচনা করা হতো এজন্য যে তিনি বিশ্বজগতকে সুশৃঙ্খল ও সংগত ব্যবস্থায় বিশ্বজগতের ভারসাম্য বজায় রাখতে সহায়তা করছেন।[১] তিনি আসওয়ানের নিকটবর্তী নীল নদের উৎসস্থ একটি গুহায় বাস করতেন বলে ধারণা করা হতো।[৩] হাপির অনুরাগী ধর্মীয় গোষ্ঠীটি মূলত এলিফ্যান্টাইন নামে প্রথমে পরিচিত ছিল। তাঁর পুরোহিতরা বার্ষিক বন্যার স্থির মাত্রায় প্রবাহ নিশ্চিত করতে বিভিন্ন আচার অনুষ্ঠানে জড়িত ছিলো। এলিফ্যান্টাইনে পরিমাপকারী অফিসিয়াল ডিভাইস নাইলোমিটার দিয়ে পর্যবেক্ষণ করে বন্যার মাত্রা সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করতো কিন্তু হাপির পুরোহিতরা এই নাইলোমিটার তদারকি নিয়ে বেশ উদ্বিগ্ন ছিলেন।

হাপিকে নীল নদের দেবতা হিসাবে বিবেচনা করা হয়নি, কেবল নীল নদের বন্যার ঘটনার জন্যই তাকে দায়ী বিবেচনা করা হত।[১] তাকে পৃথিবীর মিশরীয় দেবতা "গেবের" বন্ধু[৪] এবং শস্যের দেবতা "নেপারের" প্রভু হিসাবেও বিবেচনা করা হতো।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Wilkinson, p.106
  2. Wilkinson, p.107
  3. Wilkinson, p.108
  4. Wilkinson, p.105
  5. Wilkinson, p.117