সুমাইরা মালিক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুমাইরা মালিক
পাকিস্তান জাতীয় সংসদ-এর সদস্য
কাজের মেয়াদ
২০০২ – অক্টোবর ২০১৩
সংসদীয় এলাকাএনএ-৬৯ (খুশাব-১)
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1963-12-19) ১৯ ডিসেম্বর ১৯৬৩ (বয়স ৫৫)
জাতীয়তাপাকিস্তানি

সুমাইরা মালিক (উর্দু: سمیرا ملک‎‎; জন্ম ১৯ ডিসেম্বর ১৯৬৩) হচ্ছেন একজন পাকিস্তানি রাজনীতিবিদ যিনি ২০০২ থেকে অক্টোবর ২০১৩ পর্যন্ত পাকিস্তান জাতীয় সংসদ-এর সদস্য ছিলেন।

প্রারম্ভের জীবন ও শিক্ষা[সম্পাদনা]

মালিক ১৯ ডিসেম্বর ১৯৬৩ সালে জন্মগ্রহন করেন।[১][২]

তিনি পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে মাস্টার্স অব আর্টস ডিগ্রী লাভ করেছেন।[১]

রাজনৈতিক কর্মজীবন[সম্পাদনা]

মালিক পাকিস্তানের সাধারন নির্বাচন, ২০০২-এ এনএ-৬৯ (খুশাব-১) আসন হতে জাতীয় জোটের প্রার্থী হয়ে পাকিস্তান জাতীয় সংসদ-এর সদস্য নির্বাচিত হন। [৩] তিনি ৭১,৯২৫ টি ভোট পান এবং বিপক্ষ দলীয় পাকিস্তান মুসলিম লীগ (কিউ) (পিএমএল-কিউ) এর প্রার্থী উমর আসলাম খানকে পরাজিত করেন।[৪] সেপ্টেম্বর ২০০৪-এ, তিনি প্রধানমন্ত্রী শওকত আজিজ এর ফেডারেল মন্ত্রিসভায় যোগদান করেন এবং পর্যটন মন্ত্রী হিসাবে নিযুক্ত হন।[১]

তিনি পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচন, ২০০৮-এ পিএমএল-কিউ এর প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনী এলাকা এনএ -৬৯ (খুশাব -১) হতে জাতীয় সংসদে পুনরায় নির্বাচিত হন।[৫] তিনি ৬১,০৭৬ ভোট পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী উমর আসলাম খানকে পরাজিত করেন।[৬]

পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচন, ২০১৩-এ তিনি পাকিস্তান মুসলিম লীগ (এন) এর প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনী এলাকা এনএ -৬৯ (খুশাব -১) থেকে জাতীয় সংসদে পুনরায় নির্বাচিত হন।[৭] তিনি ১১৯,১৯৩ ভোট পেয়ে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের প্রার্থী উমর আসলাম খানকে পরাজিত করেন।[৮]

২০১৩ সালের অক্টোবরে জাল ডিগ্রীর কারণে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট জাতীয় সংসদে তাকে অযোগ্য ঘোষণা করে।[৯]

তিনি একবার নারী উন্নয়ন মন্ত্রী[১০] এবং যুব বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[১১]

মে ২০১৮-এ, পাকিস্তানের সুপ্রীম কোর্ট খুশাব জেলা কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হিসাবে মালিকের নির্বাচন বাতিল ও অযোগ্য ঘোষনা করে।[১২]

জুন ২০১৮-এ, সুপ্রিম কোর্ট তার জাল ডিগ্রি নিয়ে পূর্ব সিদ্ধান্ত বাতিল করে পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচন, ২০১৮-এ প্রতিযোগিতা করার অনুমতি দেয় তাকে।[১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Educational background of state ministers"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। ৬ সেপ্টেম্বর ২০০৪। ১০ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১৭ 
  2. "If elections are held on time…"www.thenews.com.pk (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. Niazi, Sajjad Abbas (১০ জানুয়ারি ২০১৪)। "All set for close contest in Khushab by-election"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ মার্চ ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 
  4. "2002 election result" (PDF)। ECP। ২৬ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  5. "SC disqualifies PML-N's Sumaira Malik in fake degree case"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। ২৮ অক্টোবর ২০১৩। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 
  6. "2008 election result" (PDF)। ECP। ৫ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  7. "NA-69 election: Hamza and Imran lead campaigns - The Express Tribune"The Express Tribune। ২০ জানুয়ারি ২০১৪। ৩১ মার্চ ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 
  8. "2013 election result" (PDF)। ECP। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  9. "Disqualification over fake degree"। Dawn.com। ২৯ অক্টোবর ২০১৩। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০১৪ 
  10. "Sumaira to head PML women's wing"www.thenews.com.pk (ইংরেজি ভাষায়)। ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 
  11. "OIC youth moot soon"DAWN.COM (ইংরেজি ভাষায়)। ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৬। ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুন ২০১৭ 
  12. "SC declares Sumaira Malik's election as chairperson Khushab district council null and void"Daily Pakistan Global। ৮ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১২ মে ২০১৮ 
  13. https://dunyanews.tv/en/Pakistan/443179-SC-permits-Sumaira-Malik-to-contest-elections-2018