সুখোই সু-৫৭

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সু-৫৭
এমএকেএস ২০১৯ এয়ার শোতে একটি সু-৫৭ এর উড়ানের দৃশ্য।
ভূমিকা স্টিলথ বহুভূমিকাযুক্ত যুদ্ধবিমান
উৎস দেশ রাশিয়া
নির্মাতা আমুর এয়ারক্রাফ্ট প্ল্যান্টের কমসোমলস্ক
নকশা প্রণয়নকারী দল সুখোই
নকশা প্রণেতা আলেক্সান্ডার ডেভিডেঙ্কো[১]
প্রথম উড্ডয়ণ ২৯ জানুয়ারি ২০১০; ১১ বছর আগে (2010-01-29)[২]
প্রবর্তন ২০২০[৩][৪] (পরিকল্পিত)
অবস্থা ধারাবাহিক উৎপাদন
মুখ্য ব্যবহারকারী রুশ বিমানবাহিনী
রুশ নৌবাহিনী[৫]
নির্মিত হচ্ছে ২০০৯–বর্তমান
নির্মিত সংখ্যা ১২ টি (১০ টি পরীক্ষামূলক[৬] এবং ২ টি ধারাবাহিক[৭])(২০২০)[৮][৯]
প্রোগ্রাম খরচ US$8–10 billion (2009 est.)[১০][১১][১২]
ইউনিট খরচ $৪২ মিলিয়ন ডলার[১৩]
রুপভেদ সুখোই/এইচএএল এফজিএফএ

সুখোই সু-৫৭ (রুশ: Сухой Су-57; অসমর্থিত ন্যাটো রিপোর্টিংয়ের নাম: ফেলন)[১৪] একটি স্টিলথ, একক আসন, যমজ ইঞ্জিনের বহুভূমিকাযুক্ত পঞ্চম প্রজন্মের জেট যুদ্ধবিমান, যা বায়ু শ্রেষ্ঠত্ব ও আক্রমণ পরিচালনার জন্য ২০০২ সাল থেকে তৈরি করা হয়।[১৫] বিমানটি পিএকে এফএ-এর পণ্য, যা রুশ বিমানবাহিনীর পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমান কর্মসূচীর অন্তর্ভুক্ত। বিমানটির সুখোয়ের অভ্যন্তরীণ নাম টি-৫০। সু-৫৭ রাশিয়ান সামরিক পরিষেবাতে স্টিলথ প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য প্রথম বিমান হিসাবে পরিকল্পনা করা হয়। এর প্রথম উড়ানটি ২০১০ সালের ২৯ জানুয়ারি হয় এবং প্রথম উৎপাদনের বিমানটি ২০২০ সালে সরবরাহ করার পরিকল্পনা করা হয়।[১৬]

পূর্ববর্তী প্রজন্মের যুদ্ধবিমানের পাশাপাশি স্থল ও নৌ প্রতিরক্ষাকে কাটিয়ে ওঠার জন্য যুদ্ধবিমানটিতে সুপারক্রুজ, সুপারম্যানিউভারবিলিটি, স্টিলথ ও অ্যাডভান্স এভায়োনিকস ডিজাইন করা হয়।[১৭][১৮] সু-৫৭ এর উদ্দেশ্য রুশ বিমানবাহিনীতে মিগ-২৯সু-২৭ যুদ্ধবিমানকে সফল করা।[১৯]

নকশা[সম্পাদনা]

বিবরণ[সম্পাদনা]

সু-৫৭ এর উদ্দেশ্য রাশিয়ান বিমানবাহিনীর জন্য পঞ্চম প্রজন্মের বহুভূমিকাযুক্ত যুদ্ধবিমান ও প্রথম পরিচালনাগত স্টিলথ বিমান হিসাবে যুক্ত হওয়া। যদিও বেশিরভাগ তথ্যকে শ্রেণিবদ্ধ করা হয়েছে, সুখোই সংস্থা ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সূত্রগুলি প্রকাশ্যে বলেছে যে বিমানটি স্টিলথ, সুপারম্যানিউভেরেবল, সুপারক্রুজ সামর্থ্যযুক্ত, প্রচুর পরিমাণে মিশ্রিত উপকরণ অন্তর্ভুক্ত করবে এবং সক্রিয় পর্যায়ক্রমে অ্যারে রাডারের মতো উন্নত এভিওনিক্স ও সেন্সর ফিউশন অধিকারী।[১৮][২০][২১]

ইঞ্জিন[সম্পাদনা]

সু-৫৭ এর নকশা

প্রি-প্রোডাকশন সু-৫৭তে এনপিও স্যাটার্ন ইযদেলাই ১১৭ বা এল ৪১ এফ ১ টার্বোফ্যান যুক্ত ইঞ্জিন ব্যাবহার করবে। ইঞ্জিনটি এল৩১ এর একটি উন্নত ও আপগ্রেড ভার্সন যা সু-৫৭কে আরো শক্তিশালী ও শুকনো থ্রাস্ট তৈরি করে। ইঞ্জিনগুলির পূর্ণ কর্তৃত্ব ডিজিটাল ইঞ্জিন নিয়ন্ত্রণে (FADEC) রয়েছে এবং বিমানচালনা এবং পরিচালনার সুবিধার্থে ফ্লাইট কন্ট্রোল সিস্টেমে আপগ্রেড করা হয়েছে ।

ক্ষেপণাস্ত্র[সম্পাদনা]

সু -৫৭ প্রোটোটাইপটিতে দুটি মোটামুটি মূল অভ্যন্তরীণ অস্ত্র রয়েছে যা প্রতিটি প্রায় ৪. m মিটার (১৫.১ ফুট) লম্বা এবং ১.০ মিটার (৩.৩ ফুট) প্রশস্ত এবং দুটি ছোট ত্রিভুজাকৃতির বিভাগের অস্ত্র রাখার যায়গা রয়েছে(বে) যা ডানার মূলের কাছে ফিউজলেজের নিচে প্রসারিত হয়। অস্ত্রের অভ্যন্তরীণ বাহন বিমানের স্টিলথ ক্ষমতা বজায় রাখে এবং এয়ারোডাইনামিক ড্রাগকে উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করে, সুতরাং বাহ্যিক স্টোরগুলির সাথে পারফরম্যান্সের তুলনায় গতিময় পারফরম্যান্স বজায় রাখে।

এয়ার টু এয়ার লড়াইয়ের জন্য সু৫৭ প্রধান 'বে' তে ভিজুয়াল রেঞ্জের ও উইং এর "বে'' তে দুটি সল্প পরিসরের ক্ষেপণাস্ত্র বহন করতে পারবে।

মিডিয়াম রেঞ্জের ক্ষেপণাস্ত্র গুলি হল একটিভ রাডার হোমিং কে-৭৭এম ও স্বল্প পরিসরের ক্ষেপণাস্ত্রটি হোল ইনফ্ররেড হোমিং কে ৪৪ এম ২

এছাড়া খবরে বলা হয়েছে, ফাইটারটি দীর্ঘ পরিসরের হাইপারসোনিক আর -৩৩ এম ক্ষেপণাস্ত্র বহন করতে সক্ষম হবে ।

ক্যানন[সম্পাদনা]

ফাইটারটিতে ৯এ১-৪০৭ ১কে(জিএসএইচ-৩০-১) ৩০মিমি অটো ক্যানন রয়েছে। ক্যাননটি ৫০ কেজি ওজন সহ ৩০ মিমি বর্গের বুলেট এবং প্রতি মিনিটে 1,800 রাউন্ড পর্যন্ত গুলি চালাতে পারে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Т-50-Eng — Page 3"Т-50-Eng। ২০২০-০২-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৪ 
  2. "Russia draws back veil of secrecy with peek at future fighter"। RIA Novosti। ২৯ জানুয়ারি ২০১০। ১০ মে ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ মার্চ ২০১৯ 
  3. "Russia's Aerospace Forces to Receive Large-Scale Deliveries of Su-57 Jets in 2020 – Rostec"defense-aerospace.com। ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০২০ 
  4. "Sukhoi plans for Su-57 Stealth Fighter deliveries in 2020"। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০২০ 
  5. Druzhinin, Alexei (২৮ সেপ্টেম্বর ২০০৯)। "Russian Navy to get fifth generation carrier fighter after 2020"। RIA Novosti। ৮ অক্টোবর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জানুয়ারি ২০১১ 
  6. "Совершил первый полет последний Су-57, — источник"News.rambler.ru। ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১৮ 
  7. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; vedomosti নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  8. Наумов, Вадим। "Первый серийный Су-57 совершил полет в Комсомольске-на-Амуре"Народные Новости России 
  9. "Первый полет совершил второй серийный истребитель Су-57"Яндекс.Новости 
  10. Pandit, Rajat (১০ অক্টোবর ২০০৯)। "India, Russia to ink new military pact"। Times of India। ৫ জুলাই ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৩ 
  11. Shukla, Ajai (৫ জানুয়ারি ২০১০)। "India, Russia close to PACT on next generation fighter"। Business Standard। ৬ জানুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১০ 
  12. Shukla, Ajai (৬ জানুয়ারি ২০১০)। "India to develop 25% of fifth generation fighter"। Business Standard। ৮ জানুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০১০ 
  13. "Military Watch Magazine"militarywatchmagazine.com 
  14. "NATO assigns new reporting name for Su-57 5th generation jet fighter"ruaviation.com। ১ নভেম্বর ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২ নভেম্বর ২০১৯ 
  15. "Russia's 5th-generation fighter jet named as Su-57"TASS (ইংরেজি ভাষায়)। ১২ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০১৭ 
  16. Gady, Franz-Stefan। "Despite Su-57 Crash, Russia Plans for Mass Delivery of New Fighter Jet in 2020"thediplomat.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৯-৩০ 
  17. "Т-50-2 fighter aircraft made the flight to Akhtubinsk"Sukhoi.org (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৪। ২৭ এপ্রিল ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০১৪ 
  18. "Sukhoi Company launches flight tests of PAK FA advanced tactical frontline fighter"Sukhoi.org (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি)। ২৯ জানুয়ারি ২০১০। ১ মে ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জানুয়ারি ২০১১ 
  19. Cohen, Ariel (১৬ জানুয়ারি ২০০৯)। "Russia bets on new Sukhoi fighter to match F-35"। United Press International। ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ জানুয়ারি ২০১০ 
  20. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; KnAAPO PAK FA page নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  21. Karnozov, Vladimir (২৯ জানুয়ারি ২০১০)। "Sukhoi's PAK FA fighter completes first flight"Flightglobal। ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]