সী কায়াক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কায়াক হল একধরনের ছোট নৌকা যা বৈঠা বা লগি ব্যবহার করে চালানো যায়

সী কায়াক অথবা ভ্রমণ করার জন্য কায়াক হল একধরনের ছোট নৌকা যা বৈঠা বা লগি ব্যবহার করে চালানো যায়৷ সাধারণত স্পোর্টস বা খেলার প্রতিযোগিতার উদ্দেশ্যে জলাশয়, নদী, সমুদ্র উপকূল বা সমুদ্রে চালানো হয়৷ [১]

সারা বিশ্বে সী কায়াক কয়েক ঘণ্টা হতে কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত সমুদ্র ভ্রমণে ব্যবহৃত হয়৷ অন্যান্য প্রয়োজনীয় উপকরণসহ একটি কায়াকে এক থেকে তিন জন চালকের স্থান হতে পারে৷ ভ্রমণের সময় বিভিন্ন প্রয়োজনীয় উপকরণ যেমন খাবার, ক্যাম্পিং গিয়ার, পানি ইত্যাদি বহন করা হয়৷ একজন চালক দ্বারা ব্যবহৃত একটি সী কায়াক সাধারণত ১০ থেকে ১৮ ফুট(৩.০-৫.৫ মিটার) লম্বা হয়৷ অপরদিকে দীর্ঘতম সী কায়াকগুলো ২৬ ফুট(৭.৯ মিটার) পর্যন্ত লম্বা হয়৷ কায়াকগুলো চওড়ায় ২১ ইঞ্চি(৫৩ সে.মি.) হতে ৩৬ ইঞ্চি(৯১ সে.মি.) পর্যন্ত হয়ে থাকে৷

পটভূমি[সম্পাদনা]

কায়াক তৈরি এবং ব্যবহার শুরুর ইতিহাসের দিকে তাকালে দেখা যাবে এর প্রচলন শুরু হয় কানাডার আলাস্কাতে ব্যবহৃত প্রথমদিককার নৌকা অথবা গ্রীনল্যান্ড এর দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলের এস্কিমোদের সীল মাছ ও সিন্ধুঘোটক শিকারের কাজে ব্যবহৃত নৌকাগুলো৷[১] পূর্বে এ নৌকাগুলোকে বলা হত আইকায়াক৷[২] এগুলো তৈরিতে হালকা কাঠের তক্তা এবং সী লায়ন অথবা সীল মাছের চামড়া ব্যবহার করা হত৷ প্রত্নতত্ত্ববিদরা ৪০০০ বছর পূর্বে সী কায়াক ব্যবহারের প্রমাণ খুঁজে পেয়েছেন৷[৩] কাঠের তক্তা ও চামড়ার দ্বারা তৈরি এসব কায়াক ১৯৫০ সালে যেসময় ফাইবারগ্লাস বোট চালু না হয়, তার আগ পর্যন্ত বাজার নিয়ন্ত্রণ করত৷ রোটোমোল্ডেট প্লাস্টিক কায়াক ব্যবহার প্রথম শুরু হয় ১৯৮৪ সালে৷ [২]

নকশা[সম্পাদনা]

আধুনিক সী কায়াক ব্যবহারের উপর নির্ভর করে বিভিন্ন ধাতুর সংমিশ্রণ, নকশা, আকার ইত্যাদিতে সজ্জিত করা হয়৷ আধুনিক সী কায়াক মূলত দুই ধরনের হয়ে থাকে৷ আধুনিক ফোল্ডিং কায়াকগুলো তৈরিতে ফ্রেম হিসাবে অ্যাশ বা বার্চ কাঠ কিংবা তার বদলে অ্যালুমিনিয়াম ধাতু এবং সীল মাছের চামড়ার বদলে পানিরোধী সিনথেটিক তন্তু ব্যবহার করা হয়ে থাকে৷ অপরদিকে রিগিড কায়াকগুলো তুলনামূলকভাবে অনমনীয় এবং দৃঢ়৷

আকৃতি[সম্পাদনা]

বেশিরভাগ সী কায়াকগুলো আকৃতিতে ১২ থেকে ২৪ ফুট(৩.৬৬ থেকে ৭.৩২ মিটার) পর্যন্ত হয়ে থাকে৷ বড় আকৃতির কায়াকগুলো সাধারণত দুই জন কিংবা তিনজন যাত্রী বহনের উপযোগী করে তৈরি করা৷ অন্যদিকে প্রচলিত সী কায়াকগুলো চওড়ায় সাধারণত ১৮ ইঞ্চি থেকে ৩২ ইঞ্চি(৪৫৭ থেকে ৮১৩ মিলিমিটার) হয়ে থাকে৷

উপকরণসমূহ[সম্পাদনা]

বর্তমান সময়ের অধিকাংশ কায়াকই ফাইবারগ্লাস, রোটোমোল্ডেড পলিথিন, থার্মোফর্মড প্লাস্টিক, ব্লো মোল্ডেড পলিথিন অথবা কার্বন কেভলার দিয়ে তৈরি৷ এছাড়া কার্বন ফাইবার এবং ফোম কোর ইত্যাদি বস্তুও ববহর করা হয়৷ কিছু কিছু কায়াক প্লাই উড অথবা উড স্ট্রিপ ফাইবার গ্লাস দ্বারা আবৃত করার মাধ্যমে হাতে তৈরি করা হয়৷

বিভিন্ন ধরণের সী কায়াকিং[সম্পাদনা]

কায়াক সেইলিং[সম্পাদনা]

কায়াক চালানোর সময় পাল ব্যবহারের মাধ্যমে একজন চালক আরও অধিক সুবিধা পেতে পারে৷ প্যাডেল ব্যবহার না করে পাল ব্যবহারের মাধ্যমে কায়াক ভ্রমণ বা চালনা করা যেতে পারে৷ আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে পাল ব্যবহারের মাধ্যমে একজন কায়াক চালক আরও অধিক গতি এবং অন্যান্য সুবিধা লাভ করতে পারে৷ [৩]

এক্সপিডিশন ট্রিপস[সম্পাদনা]

বিনোদনের লক্ষ্যে কিংবা বন্যপ্রাণী পর্যবেক্ষনের উদ্দেশ্যে সপ্তাহব্যাপী এ ধরনের ট্রিপ পরিচালিত হয়ে থাকে৷ আধুনিক সী কায়াকগুলোতে যন্ত্রপাতি বা উপকরণ বহণের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা থাকে৷ তাই প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি নিয়ে এ ধরনের ট্রিপ পরিচালনা করা হয়ে থাকে৷

সার্ফ কায়াকিং[সম্পাদনা]

সার্ফ কায়াকিং এর জন্য কায়াক চালনা এবং সার্ফিং করা, উভয়টিরই অভিজ্ঞতা থাকতে হয়৷ আধুনিক অনেক কায়াকই এ ধরনের স্পোর্টস এর জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়ে থাকে৷

সী ফিশিং[সম্পাদনা]

সী ফিশিং বা সমুদ্রে মাছ ধরার কাজেও কায়াক ব্যবহার করা হয়ে থাকে৷ অনেকেই শখের বশে এ ধরনের কায়াকিং করে থাকে৷

রেফারেন্স[সম্পাদনা]

  1. "Sea kayaks"। kayarchy.com। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৬ 
  2. "Kayak Background"। encyclopedia.com। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৬  line feed character in |শিরোনাম= at position 6 (সাহায্য)
  3. "Perfect Sailing Sit On Top Kayak"। topkayaking.com। ২২ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৬