বিষয়বস্তুতে চলুন

সিউল ই-ল্যান্ড ফুটবল ক্লাব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সিউল ই-ল্যান্ড
পূর্ণ নামসিউল ই-ল্যান্ড ফুটবল ক্লাব
প্রতিষ্ঠিত২০১৪; ১০ বছর আগে (2014)
মাঠমকদং স্টেডিয়াম
ধারণক্ষমতা১৫,৫১১[১]
সভাপতিদক্ষিণ কোরিয়া পার্ক সুং-কিউং
ম্যানেজারদক্ষিণ কোরিয়া পার্ক চুং-কিউন
লিগকে লিগ ২
২০২২৭ম
ওয়েবসাইটক্লাব ওয়েবসাইট
বর্তমান মৌসুম

সিউল ই-ল্যান্ড ফুটবল ক্লাব (কোরীয়: 서울 이랜드 FC, ইংরেজি: Seoul E-Land FC; সাধারণত সিউল ই-ল্যান্ড এফসি এবং সংক্ষেপে সিউল ই-ল্যান্ড নামে পরিচিত) হচ্ছে সিউল ভিত্তিক একটি দক্ষিণ কোরীয় পেশাদার ফুটবল ক্লাব। এই ক্লাবটি বর্তমানে দক্ষিণ কোরিয়ার দ্বিতীয় স্তরের ফুটবল লিগ কে লিগ ২-এ প্রতিযোগিতা করে। এই ক্লাবটি ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ১৫,৫১১ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট মকদং স্টেডিয়ামে ক্লাবটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে।[২] বর্তমানে এই ক্লাবের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন দক্ষিণ কোরীয় সাবেক ফুটবল খেলোয়াড় পার্ক চুং-কিউন এবং সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন পার্ক সুং-কিউং[৩] বর্তমানে দক্ষিণ কোরীয় রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হান ইয়ং-সু এই ক্লাবের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন।[৪][৫]

কিম ইয়াং-কুয়াং, জন মিন-কুয়াং, ইউ জং-ওয়ান, জু মিন-কিউ এবং এদিসন তারাবাইয়ের মতো খেলোয়াড়গণ সিউল ই-ল্যান্ডের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

পেশাদার ফুটবল ক্লাব হিসেবে প্রথম মৌসুমে সিউল ই-ল্যান্ড দক্ষিণ কোরিয়ার পেশাদার ফুটবল ক্লাবগুলোর মধ্যকার আয়োজিত দক্ষিণ কোরীয় ফুটবল লিগ পদ্ধতির তৎকালীন দ্বিতীয় স্তরের পেশাদার ফুটবল লিগ কে লিগ চ্যালেঞ্জে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল; মার্টিন রেনির অধীনে উক্ত মৌসুমে সিউল ই-ল্যান্ড ১৬ জয় এবং ১৩ ড্রয়ে সর্বমোট ৬১ পয়েন্ট অর্জন করে ২০১৫ কে লিগ চ্যালেঞ্জের সামগ্রিক পয়েন্ট তালিকায় ৪র্থ স্থান অর্জন করেছিল।[৬][৭] কে লিগ চ্যালেঞ্জের উক্ত মৌসুমে দক্ষিণ কোরীয় আক্রমণভাগের খেলোয়াড় জু মিন-কিউ ২৩টি গোল করে সিউল ই-ল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ গোল করেছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]