সান্ধ্য আইন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সান্ধ্য আইনের অধীনে ডাউনটাউন সান ফ্রান্সিসকো

সান্ধ্য আইন এমন এক ধরনের আইন যেখানে কোন একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য বিশেষ ধরনের কর্মকাণ্ডকে নিষিদ্ধ করা হয়।[১][২]

শব্দতত্ত্ব[সম্পাদনা]

"সান্ধ্য আইন"-এর আক্ষরিক অর্থ সন্ধ্যার সময় বা সন্ধ্যার পরে লোক চলাচলের নিয়ম কানুন।[৩] এটির ইংরেজি শব্দ curfew কার্ফ্যু, যা এসেছে ফরাসি ভাষার শব্দ couvre-feu কূভর-ফ্যু হতে, যার অর্থ অগ্নি-নির্বাপণ। মধ্যযুগে ইংরেজি শব্দ ভাণ্ডারে curfeu হিসেবে আত্তীকরণ হয় এবং আধুনিক যুগে সেটির বানান হয় curfew। উইলিয়াম দি কনকরারের মতে এই শব্দটির প্রকৃত অর্থ হল "কাঠের বাড়ি ঘরে জ্বালানো অগ্নিশিখা এবং আগুনের প্রদীপ থেকে অগ্নিকাণ্ড প্রতিরোধের জন্য রাত আটটার ঘণ্টা বাজবার মধ্যেই সকল অগ্নিশিখা ও আগুনের প্রদীপ নিভিয়ে ফেলার নিয়ম"।[৪]

প্রকারভেদ[সম্পাদনা]

বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সময়ে জারি করা সান্ধ্য আইন[সম্পাদনা]

মিশর[সম্পাদনা]

আইসল্যান্ড[সম্পাদনা]

যুক্তরাজ্য[সম্পাদনা]

যুক্তরাষ্ট্র[সম্পাদনা]

সান্ধ্য আইন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদেশ প্রদান করতে পারেন৷ বাংলাদেশে বিশেষ ক্ষমতা আইন, ১৯৭৪ এর ২৪ ধারায় সান্ধ্য আইন সম্পর্কে আলোকপাত করা হয়েছে৷ সরকারের নিয়ন্ত্রণ সাপেক্ষে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কোন নির্দিষ্ট এলাকায় নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কোন ব্যক্তিই সরকারের আদেশ অথবা অনুমতি ব্যতীত ঘরের বাহিরে চলাচলের নিষেধাজ্ঞাকে সান্ধ্য আইন বলে৷[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]