সাইপ্রাস মেইল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সাইপ্রাস মেইল
Cyprus Mail Logo.svg
ধরনদৈনিক সংবাদপত্র
ফরম্যাটবার্লিনার
মালিকসাইপ্রাস মেইল কোং লিমিটেড
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৪৫
সদর দপ্তরনিকোসিয়া, সাইপ্রাস
ওয়েবসাইটwww.cyprus-mail.com

সাইপ্রাস মেল সাইপ্রাসে প্রকাশিত একমাত্র ইংরেজি ভাষার দৈনিক সংবাদপত্র। এটি ১৯৪৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এটি দাবি করে যে এটি সম্পূর্ণ স্বাধীন রাজনৈতিক অবস্থানে আছে এবং কোন প্রকার রাজনৈতিক সম্পৃক্ততা নেই,[১] যদিও পর্যবেক্ষকরা এটিকে রাজনৈতিকভাবে রক্ষণশীল হিসাবে বর্ণনা করেছেন। [২] এটি প্রতিদিন (সোমবার ব্যতীত) প্রকাশিত হয় এবং স্থানীয় বেশিরভাগ নিবন্ধ সংবাদপত্রের ওয়েবসাইটে অনলাইনে পাওয়া যায়। [৩]

১৯৬০ সালে সাইপ্রাস টাইমসের প্রকাশ বন্ধ পর থেকে ১৯৭৯ সালে সাইপ্রাস উইকলি প্রতিষ্ঠা হওয়া পূর্বপর্যন্ত সাইপ্রাস মেল সাইপ্রাসের একমাত্র ইংরেজি ভাষার সংবাদপত্র ছিল।

প্রচলন[সম্পাদনা]

সাইপ্রাস মেইল সঞ্চলন কম (সাইপ্রাসে প্রকাশিত সব দৈনিক সংবাদপত্রের মধ্যে)। [২] মূলধারার সংবাদপত্র যেমন ফিলেলেফথেরস, সিমেরিনি এবং হারাভগি -র মত পত্রিকার অনেক পিছনে ।

রাজনৈতিক অবস্থান[সম্পাদনা]

এর প্রথম বছরগুলিতে সাইপ্রাস মেল ব্রিটিশ শাসনের সময়কালে সাইপ্রাসে প্রতিষ্ঠিত আরেকটি ইংরেজি ভাষার সংবাদপত্র সাইপ্রাস টাইমসের (যা টাইমস অফ সাইপ্রাস নামে পরিচিত) প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল। সেই সময়ে সাইপ্রাস মেইলকে আরও রাজনৈতিক অধিকার নিয়ে সোচ্চার দেখা যেত সামাজিকভাবে উদার সাইপ্রাস টাইমসের চাইতে; বিশেষত গ্রিসের সাথে এনোসিস অর্থাৎ ইউনিয়নের বিরোধিতা করার প্রবণতার বেলায়। [৪] এনোসিসের এই বিরোধিতার কারণে গ্রীক সাইপ্রিওটরা এটিকে ব্যাপকভাবে অপছন্দ করে এবং প্রধানত ব্রিটিশ উপনিবেশিক প্রশাসন ও সামরিক কর্মীদের মধ্যে প্রচারিত হয়।

সাম্প্রতিক বছরগুলিতে, সংবাদপত্রটি সাইপ্রাস বিরোধের ব্যাপারে "সহজ-সমাধান" অবস্থান নিয়েছে (উদাহরণস্বরূপ, এটি ২০০৪ সালের বিতর্কিত আনান পরিকল্পনাকে সমর্থন করেছিল) যা গ্রীকবিরোধী পক্ষপাতদুষ্টির অভিযোগ (অন্যান্য পত্রিকা দ্বারা) এবং এই দ্বীপের উত্তরাঞ্চলে তুর্কি দখলকে "সাধারণীকরণ" করে। [৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "About Cyprus Mail Newspaper"। World313। ২৬ আগস্ট ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১১ 
  2. https://www.nationsencyclopedia.com/Asia-and-Oceania/Cyprus-MEDIA.html
  3. "Home page"Cyprus Mail। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১১ 
  4. See Manchester Guardian, 12 December 1949, p.8
  5. Simerini, April 27, 2004